ঢাকা ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
রাণীশংকৈলে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন নওগাঁর নিয়ামতপুরে শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২১শে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে ভাষা শহীদদের স্বরনে শ্রদ্ধাঞ্জলি দেবহাটা উপজেলা সমিতির ও পিকনিক স্পট পরিদর্শন কালিহাতীতে মহান শহিদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত আজ সারা ভারতের বিভিন্ন যায়গার সাথে সিরাকল মহাবিদ্যালয়ে উদযাপিত হল ভাষা দিবস আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উৎযাপন ভৈরবে অমর ২১শে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে সকল বীর শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়েছে কিশোরগঞ্জে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত কমলনগরে সয়াবিন ক্ষেত থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার ২১ শে ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে

বিধানসভায় নামাজের ঘর, ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া বিরোধীদের

  • সময়ের কন্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : ০১:১৯:৩১ অপরাহ্ণ, বৃহস্পতিবার, ৯ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • ১৬১ ০.০০০ বার পাঠক

আন্তর্জাতিক রিপোর্ট।।

ঝাড়খণ্ড রাজ্য বিধানসভায় মুসলমান বিধায়ক ও কর্মীদের নামাজ পড়ার জন্য একটি ঘর বরাদ্দ দিয়েছেন স্পিকার।  আর এতেই ক্ষুব্ধ হয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। স্পিকার কেন নামাজের ঘর দিয়েছেন এর প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বিজেপি সারা রাজ্য জুড়ে ‘কালো দিবস’ পালন করছে।

এর আগে বুধবার দলের কর্মী সমর্থকরা রাস্তায় বিক্ষোভ করার সময় পুলিশ তাদের ওপরে লাঠিচার্জ ও জলকামান ছোড়ে।

এদিকে বিজেপির প্রতিবাদের কারণে স্পিকার রবীন্দ্রনাথ মাহাতো বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন, নামাজের ঘর রাখা হবে কী না, তা একটি সর্বদলীয় কমিটি স্থির করবে।

বিবিসি বাংলা জানিয়েছে, সম্প্রতি বিধানসভার সচিবালয় এক নির্দেশনায় জানায়, টি ডব্লিউ ৩৪৮ নম্বর ঘরটিকে নামাজ পড়ার জন্য ব্যবহার করা হবে। এরপর থেকেই বিজেপি প্রতিবাদ শুরু করে।

গত সোমবার বিধানসভার অধিবেশন শুরু হতেই বিজেপির বিধায়করা বিক্ষোভ দেখান। তারা ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগানও দেন।

ওই রাজ্যে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার নেতৃত্বাধীন সরকার রয়েছে ২০১৯ সাল থেকে, আর বিজেপি সেখানে প্রধান বিরোধী দল।

বিজেপির অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সরেন তোষণের রাজনীতির সব সীমা ছাড়িয়ে গেছেন।

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

রাণীশংকৈলে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

বিধানসভায় নামাজের ঘর, ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া বিরোধীদের

আপডেট টাইম : ০১:১৯:৩১ অপরাহ্ণ, বৃহস্পতিবার, ৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

আন্তর্জাতিক রিপোর্ট।।

ঝাড়খণ্ড রাজ্য বিধানসভায় মুসলমান বিধায়ক ও কর্মীদের নামাজ পড়ার জন্য একটি ঘর বরাদ্দ দিয়েছেন স্পিকার।  আর এতেই ক্ষুব্ধ হয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। স্পিকার কেন নামাজের ঘর দিয়েছেন এর প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বিজেপি সারা রাজ্য জুড়ে ‘কালো দিবস’ পালন করছে।

এর আগে বুধবার দলের কর্মী সমর্থকরা রাস্তায় বিক্ষোভ করার সময় পুলিশ তাদের ওপরে লাঠিচার্জ ও জলকামান ছোড়ে।

এদিকে বিজেপির প্রতিবাদের কারণে স্পিকার রবীন্দ্রনাথ মাহাতো বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন, নামাজের ঘর রাখা হবে কী না, তা একটি সর্বদলীয় কমিটি স্থির করবে।

বিবিসি বাংলা জানিয়েছে, সম্প্রতি বিধানসভার সচিবালয় এক নির্দেশনায় জানায়, টি ডব্লিউ ৩৪৮ নম্বর ঘরটিকে নামাজ পড়ার জন্য ব্যবহার করা হবে। এরপর থেকেই বিজেপি প্রতিবাদ শুরু করে।

গত সোমবার বিধানসভার অধিবেশন শুরু হতেই বিজেপির বিধায়করা বিক্ষোভ দেখান। তারা ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগানও দেন।

ওই রাজ্যে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার নেতৃত্বাধীন সরকার রয়েছে ২০১৯ সাল থেকে, আর বিজেপি সেখানে প্রধান বিরোধী দল।

বিজেপির অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সরেন তোষণের রাজনীতির সব সীমা ছাড়িয়ে গেছেন।