ঢাকা ১২:৫০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২
সংবাদ শিরোনাম ::
গাজীপুর কাশেমপুরে থানাধীন এলাকায় আগে ককটেল পরে  ফিল্মি স্টাইলে ডাকাতি আশুলিয়া দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ৭৭ তম জন্মবার্ষিকী পালিত ট্রেনের ছাদে যাত্রী, মানছে না নিয়ম ট্রেনের ছাদে যাত্রী নেয়া নিষেধ থাকলেও, হরহামেশা যাত্রী উঠেই যাচ্ছেন গাজীপুরে নবীণ প্রবীণ সংঘের উদ্দোগে ১৫ ই আগস্ট জাতিয় শোক দিবস (২০২২)এ আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত বেনাপোলে “সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেড” এর মেট্রো শাখা উদ্বোধণ আশুলিয়ায় সাইদুর রহমান এর আয়োজনে ১৫ ই আগস্ট (২০২২) জাতিয় শোক দিবসে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত কাশেমপুর ভাঙ্গা ব্রিজের জন্য শত শত মানুষের দুর্ভোগ পাঁচবিবিতে বসত বাড়ী ফিরে পেতে মানববন্ধন নেপালের কাঠমান্ডুতে দক্ষিণ এশীয় জলবায়ু সম্মেলনে যোগ দিলেন দৈনিক কালের খবর সম্পাদক এম আই ফারুক আশুলিয়ায় থানা আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের শোক দিবস পালন

কালিয়াকৈর দরপত্র জমাদানে বাধা আ’লীগ কর্মীরা

সময়ের কন্ঠ রিপোর্টার।।

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গত সোমবার ছয়টি প্যাকেজের দরপত্র জামাদানে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। দলীয় নেতাকর্মীদের পছন্দের তিন প্রতিষ্ঠান সহজে টেন্ডার জমা দিতে পারলেও ছয়-সাতটি প্রতিষ্ঠান দরপত্র জমা দিতে পারেনি। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৬৭ লাখ টাকার ওষুধপত্র, আসবাবপত্র, এক্সরে মেশিনের জিনিসপত্রসহ ছয়টি প্যাকেজের পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেয়।
সোমবার সকাল ৯টা থেকে ১১টা পর্যন্ত সিডিউল জমা দেওয়ার সূচি নির্ধারণ করে টেন্ডার বাস্তবায়ন কমিটি। এ সময় আওয়ামী লীগ, যুবলীগের দেড় শতাধিক নেতাকর্মী মোটরসাইকেল মহড়া নিয়ে স্বাস্থ্যকেন্দ্রের প্রধান গেটসহ দরপত্র বক্সের কাছে পাহারা বসায়। ফলে সাড়ে ৯টার দিকে কয়েকজন দরপত্র সিডিউল জামা দিতে গেলে আওয়ামী লীগ কর্মী আব্দুর রহমান, শাহিন তসলিমের নেতৃত্বে দেড় শতাধিক কর্মী তাদের তল্লাশি করে। এ সময় সাধারণ মানুষ ও রোগীকেও হাসপাতালের ভেতর ঢুকতে দেওয়া হয়নি। দরপত্র জমাদানে বাধার নামে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় মেসার্স রাজ ড্রাগ হাউসের নামে টেন্ডার জমা দিতে আসেন সেলিম নামক এক ব্যক্তি। তার কাছ থেকে সিডিউল কেড়ে নিয়ে ছিঁড়ে ফেলা হয়। একই সঙ্গে আরও সাত-আটজনের টেন্ডার কেড়ে নেওয়া হয়। দলীয় নেতাকর্মীর পছন্দের নবী ফার্মেসি, নিপুণ প্রযুক্তি ফার্মেসি ও সেফওয়ে সার্জিক্যাল অ্যান্ড মেডিসিন নামক প্রতিষ্ঠানের পক্ষে দরপত্রের সিডিউল জমা দেওয়া হয়। টেন্ডারবাজির খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে দলীয় নেতাকর্মীরা সকাল সাড়ে ১১টা পর্যন্ত হাসপাতালের সামনে ও আশপাশে পাহারা দেয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সির্ভিল সার্জনের কাছে একাধিক লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। দরপত্র ছিঁড়ে ফেলা মেসার্স রাজ ড্রাগ হাউসের সেলিম হোসেন জানান, সকালে টেন্ডার শিডিউল জমা দিতে গেলে দেড় শতাধিক নেতাকর্মী পথরোধ করে। পরে শিডিউল কেড়ে নিয়ে ছিঁড়ে ফেলে। এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. রেজাউল করিম রাসেল জানান, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী শত শত। কে কোথায় কী ঘটনা ঘটায় তা অনেক ক্ষেত্রেই জানা সম্ভব হয় না। তবে টেন্ডারের বিষয়টি আমার জানা নেই। কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আল বেলাল হোসেন জানান, হাসপাতাল এলাকায় কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। তবে পথিমধ্যে কেউ কেউ ঝামেলা করেছে- এরকম অনেকেই মৌখিক অভিযোগ দিয়েছে। তিনটি শিডিউল বাক্সে জমা পড়েছে। কোন প্রতিষ্ঠানকে কাজ দেওয়া হবে তা টেন্ডার কমিটি দুই-তিন দিনের মধ্যে বাছাই করবে। ইউএনও কাজী হাফিজুল আমিন জানান, টেন্ডারবাজির কোনো অভিযোগ পাইনি। তবে কেউ অভিযোগ দিলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

গাজীপুর কাশেমপুরে থানাধীন এলাকায় আগে ককটেল পরে  ফিল্মি স্টাইলে ডাকাতি

কালিয়াকৈর দরপত্র জমাদানে বাধা আ’লীগ কর্মীরা

আপডেট টাইম : ১০:০৯:২৮ পূর্বাহ্ণ, মঙ্গলবার, ৪ মে ২০২১

সময়ের কন্ঠ রিপোর্টার।।

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গত সোমবার ছয়টি প্যাকেজের দরপত্র জামাদানে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। দলীয় নেতাকর্মীদের পছন্দের তিন প্রতিষ্ঠান সহজে টেন্ডার জমা দিতে পারলেও ছয়-সাতটি প্রতিষ্ঠান দরপত্র জমা দিতে পারেনি। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৬৭ লাখ টাকার ওষুধপত্র, আসবাবপত্র, এক্সরে মেশিনের জিনিসপত্রসহ ছয়টি প্যাকেজের পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেয়।
সোমবার সকাল ৯টা থেকে ১১টা পর্যন্ত সিডিউল জমা দেওয়ার সূচি নির্ধারণ করে টেন্ডার বাস্তবায়ন কমিটি। এ সময় আওয়ামী লীগ, যুবলীগের দেড় শতাধিক নেতাকর্মী মোটরসাইকেল মহড়া নিয়ে স্বাস্থ্যকেন্দ্রের প্রধান গেটসহ দরপত্র বক্সের কাছে পাহারা বসায়। ফলে সাড়ে ৯টার দিকে কয়েকজন দরপত্র সিডিউল জামা দিতে গেলে আওয়ামী লীগ কর্মী আব্দুর রহমান, শাহিন তসলিমের নেতৃত্বে দেড় শতাধিক কর্মী তাদের তল্লাশি করে। এ সময় সাধারণ মানুষ ও রোগীকেও হাসপাতালের ভেতর ঢুকতে দেওয়া হয়নি। দরপত্র জমাদানে বাধার নামে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় মেসার্স রাজ ড্রাগ হাউসের নামে টেন্ডার জমা দিতে আসেন সেলিম নামক এক ব্যক্তি। তার কাছ থেকে সিডিউল কেড়ে নিয়ে ছিঁড়ে ফেলা হয়। একই সঙ্গে আরও সাত-আটজনের টেন্ডার কেড়ে নেওয়া হয়। দলীয় নেতাকর্মীর পছন্দের নবী ফার্মেসি, নিপুণ প্রযুক্তি ফার্মেসি ও সেফওয়ে সার্জিক্যাল অ্যান্ড মেডিসিন নামক প্রতিষ্ঠানের পক্ষে দরপত্রের সিডিউল জমা দেওয়া হয়। টেন্ডারবাজির খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে দলীয় নেতাকর্মীরা সকাল সাড়ে ১১টা পর্যন্ত হাসপাতালের সামনে ও আশপাশে পাহারা দেয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সির্ভিল সার্জনের কাছে একাধিক লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। দরপত্র ছিঁড়ে ফেলা মেসার্স রাজ ড্রাগ হাউসের সেলিম হোসেন জানান, সকালে টেন্ডার শিডিউল জমা দিতে গেলে দেড় শতাধিক নেতাকর্মী পথরোধ করে। পরে শিডিউল কেড়ে নিয়ে ছিঁড়ে ফেলে। এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. রেজাউল করিম রাসেল জানান, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী শত শত। কে কোথায় কী ঘটনা ঘটায় তা অনেক ক্ষেত্রেই জানা সম্ভব হয় না। তবে টেন্ডারের বিষয়টি আমার জানা নেই। কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আল বেলাল হোসেন জানান, হাসপাতাল এলাকায় কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। তবে পথিমধ্যে কেউ কেউ ঝামেলা করেছে- এরকম অনেকেই মৌখিক অভিযোগ দিয়েছে। তিনটি শিডিউল বাক্সে জমা পড়েছে। কোন প্রতিষ্ঠানকে কাজ দেওয়া হবে তা টেন্ডার কমিটি দুই-তিন দিনের মধ্যে বাছাই করবে। ইউএনও কাজী হাফিজুল আমিন জানান, টেন্ডারবাজির কোনো অভিযোগ পাইনি। তবে কেউ অভিযোগ দিলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।