ঢাকা ০৬:৪০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
মেট্রোরেল স্টেশনের ধ্বংসলীলা দেখে কাঁদলেন প্রধানমন্ত্রী রুশ এমআই-২৮ সামরিক হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত মস্কোর দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত কালুগা অঞ্চলে আজ বৃহস্পতিবার হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয় কে হামলা চালাবে—বিএনপির নীল নকশা আগেই প্রস্তুত ছিল: কাদের ৪ দিন কোথায় কী অবস্থায় ছিলেন সমন্বয়ক আসিফ সারা দেশে হাজারো প্রাণ কেড়ে নেওয়ার ব্যাপারে সরকার কোনো কথা বলছে না: মির্জা ফখরুল সব ধরনের সহিংসতার হুমকি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র ডিএমপির তিন যুগ্ম-কমিশনারকে স্থান বদলি বাসে আগুন দিতে ৪ লাখ টাকায় চুক্তি, শ্রমিক লীগ নেতা গ্রেপ্তার রোকেয়া হলে ছাত্রলীগ নেত্রীদের হলছাড়া করল আন্দোলনকারীরা আন্দোলনকারীদের মৃত্যুর জন্য সরকারের পক্ষ থেকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে, ৩৩ নাগরিকের বিবৃতি বিবৃতিতে বলা হয়, দাবি আদায় করতে হয় জীবনের বিনিময়ে বা দমন করতে হয় হত্যা করে

মেডিকেলের উত্তরপত্র পুনঃনিরীক্ষণ শুধুই সান্ত্বনার!

  • আপডেট টাইম : ০৮:৪৪:২৪ পূর্বাহ্ণ, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭
  • / ৪৪৩ ৫০০.০০০ বার পাঠক

ফাইল ছবি

আশায় বুক বেঁধে নির্দিষ্ট পরিমাণ ফি দিয়ে উত্তরপত্র পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করেছিলেন মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ৯৬২ শিক্ষার্থী। উত্তরপত্র দেখার সময় হয়তো অনিচ্ছাকৃত কোনো ভুলে তাদের মেধাতালিকায় ঠাঁই হয়নি ভেবেছিলেন। তবে তাদের জন্য দ্বিতীয়বারও নতুন কোনো সুখবর আসেনি। ৯৬২ ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর উত্তরপত্র পুনঃনিরীক্ষণে আগের নম্বরই রয়ে গেছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (চিকিৎসা শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. আবদুর রশীদ জাগো নিউজকে বলেন, উত্তরপত্রে কোনো ধরনের ভুল পাওয়া যায়নি। আবেদনকারী প্রত্যেকের উত্তরপত্র মেশিনে পুনঃনিরীক্ষা ছাড়াও হাতেকলমে দেখা হয়েছে। চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহ জুড়ে ৯৬২ আবেদনকারীর খাতা দেখার কাজ শেষ হয়েছে। ইতোমধ্যেই ফলাফলে কোনো পরিবর্তন নেই মর্মে মোবাইলে ক্ষুদেবার্তায় সকলকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের সান্ত্বনার জন্যই খাতা পুনঃনিরীক্ষণের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। বিশেষজ্ঞ কমিটির সদস্যদের উপস্থিতিতে যেভাবে পৃথক দুই মেশিনে ভর্তি পরীক্ষার খাতা দেখা হয় সেখানে ভুল হওয়ার সুযোগ থাকে না বললেই চলে।

জানা গেছে, স্বাস্থ্য অধিদফতরের নির্দেশনা অনুসারে গত ১৭ অক্টোবর ২৬ অক্টোবর (মোট ৯ দিন) ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী অফেরতযোগ্য এক হাজার টাকা জমা দিয়ে উত্তরপত্র পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করেন। এ সময়ে মোট ৯৬২ জন ছাত্রছাত্রীর আবেদনপত্র জমা পড়ে।

উল্লেখ্য, চলতি বছর অনুষ্ঠিত মেডিকেলের ভর্তি পরীক্ষায় ৮০ হাজার ৮১৮ পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। তাদের মধ্যে ন্যূনতম ৪০ নম্বর পেয়ে ৪১ হাজার ১৩২ জন পাস করেছেন।

আরো খবর.......

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

মেডিকেলের উত্তরপত্র পুনঃনিরীক্ষণ শুধুই সান্ত্বনার!

আপডেট টাইম : ০৮:৪৪:২৪ পূর্বাহ্ণ, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭

আশায় বুক বেঁধে নির্দিষ্ট পরিমাণ ফি দিয়ে উত্তরপত্র পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করেছিলেন মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ৯৬২ শিক্ষার্থী। উত্তরপত্র দেখার সময় হয়তো অনিচ্ছাকৃত কোনো ভুলে তাদের মেধাতালিকায় ঠাঁই হয়নি ভেবেছিলেন। তবে তাদের জন্য দ্বিতীয়বারও নতুন কোনো সুখবর আসেনি। ৯৬২ ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর উত্তরপত্র পুনঃনিরীক্ষণে আগের নম্বরই রয়ে গেছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (চিকিৎসা শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. আবদুর রশীদ জাগো নিউজকে বলেন, উত্তরপত্রে কোনো ধরনের ভুল পাওয়া যায়নি। আবেদনকারী প্রত্যেকের উত্তরপত্র মেশিনে পুনঃনিরীক্ষা ছাড়াও হাতেকলমে দেখা হয়েছে। চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহ জুড়ে ৯৬২ আবেদনকারীর খাতা দেখার কাজ শেষ হয়েছে। ইতোমধ্যেই ফলাফলে কোনো পরিবর্তন নেই মর্মে মোবাইলে ক্ষুদেবার্তায় সকলকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের সান্ত্বনার জন্যই খাতা পুনঃনিরীক্ষণের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। বিশেষজ্ঞ কমিটির সদস্যদের উপস্থিতিতে যেভাবে পৃথক দুই মেশিনে ভর্তি পরীক্ষার খাতা দেখা হয় সেখানে ভুল হওয়ার সুযোগ থাকে না বললেই চলে।

জানা গেছে, স্বাস্থ্য অধিদফতরের নির্দেশনা অনুসারে গত ১৭ অক্টোবর ২৬ অক্টোবর (মোট ৯ দিন) ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী অফেরতযোগ্য এক হাজার টাকা জমা দিয়ে উত্তরপত্র পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করেন। এ সময়ে মোট ৯৬২ জন ছাত্রছাত্রীর আবেদনপত্র জমা পড়ে।

উল্লেখ্য, চলতি বছর অনুষ্ঠিত মেডিকেলের ভর্তি পরীক্ষায় ৮০ হাজার ৮১৮ পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। তাদের মধ্যে ন্যূনতম ৪০ নম্বর পেয়ে ৪১ হাজার ১৩২ জন পাস করেছেন।