ঢাকা ০১:২৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
ভাঙা কালভার্টের সড়কে ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত দেশের ক্ষতি চায় বিএনপি’ভারতের সঙ্গে বৈরী সম্পর্ক সৃষ্টি করে রাশিয়ার দুটি জ্বালানি ডিপোতে ড্রোন হামলায় আগুন যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বেনজীর ও আছাদুজ্জামানের সম্পদ নিয়ে এবার মুখ খুললেন বছরে ৯২ হাজার কোটি টাকা পাচার হয়: সাবেক পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী মতিউর রহমান একজন জাতীয় রাজস্ব কর্মকর্তা। বর্তমানে কাস্টমস তার বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদের পাহাড় রয়েছে সাবেক পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামানের দুর্নীতি তদন্তে নামছে দুদক? বেনজীর সময় পাবেনা আর জানালেন দুদক আইনজীবী রাজধানী যাত্রাবাড়ীতে স্ত্রীর লাশ ঘরে, পার্কিংয়ে স্বামীর লাশ

মোদির সফরের বিরোধিতাকারীরা তারা সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী -কাদের

সময়ের কন্ঠ রিপোর্ট।।

যারা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলোদেশে আসার বিরোধিতা করছে তারা সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘আমরা কোনও ব্যক্তি বিশেষকে আমন্ত্রণ জানাইনি। আমরা আমন্ত্রণ জানিয়েছি একাত্তরে আমাদের প্রধান মিত্র দেশ ভারতের জনগণের নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রীকে।’

আজ শুক্রবার ভোরে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে প্রতিক্রিয়া ব্যক্তকালে ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরোধিতাকারীদের কুচক্রী আখ্যায়িত করে কাদের আরও বলেন, ‘বিজয় সুসংহত করার পথে অন্তরায় সৃষ্টিকারী সাম্প্রদায়িক শক্তি এবং বর্ণচোরা মুক্তিযুদ্ধাদের চিহ্নিত করতে হবে, প্রতিহত করতে হবে। বর্ণচোরা মুক্তিযোদ্ধারাও সাম্প্রদায়িক শক্তির চেয়ে কম শত্রু নয়। এরাও সমভাবে ক্ষতিকর, এটা বরং আরও বেশি ক্ষতিকর।’

স্বাধীনতার সুফল সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

আরো খবর.......

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ভাঙা কালভার্টের সড়কে ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন

মোদির সফরের বিরোধিতাকারীরা তারা সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী -কাদের

আপডেট টাইম : ০৬:২৬:১০ পূর্বাহ্ণ, শুক্রবার, ২৬ মার্চ ২০২১

সময়ের কন্ঠ রিপোর্ট।।

যারা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলোদেশে আসার বিরোধিতা করছে তারা সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘আমরা কোনও ব্যক্তি বিশেষকে আমন্ত্রণ জানাইনি। আমরা আমন্ত্রণ জানিয়েছি একাত্তরে আমাদের প্রধান মিত্র দেশ ভারতের জনগণের নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রীকে।’

আজ শুক্রবার ভোরে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে প্রতিক্রিয়া ব্যক্তকালে ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরোধিতাকারীদের কুচক্রী আখ্যায়িত করে কাদের আরও বলেন, ‘বিজয় সুসংহত করার পথে অন্তরায় সৃষ্টিকারী সাম্প্রদায়িক শক্তি এবং বর্ণচোরা মুক্তিযুদ্ধাদের চিহ্নিত করতে হবে, প্রতিহত করতে হবে। বর্ণচোরা মুক্তিযোদ্ধারাও সাম্প্রদায়িক শক্তির চেয়ে কম শত্রু নয়। এরাও সমভাবে ক্ষতিকর, এটা বরং আরও বেশি ক্ষতিকর।’

স্বাধীনতার সুফল সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।