ঢাকা ০৭:৫৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩
সংবাদ শিরোনাম ::
ভারতবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে শহীদ পরিবারের পাশে থাকার আহবান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী হোমনায় ইয়াবা ব্যবসায়ী,সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজিদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন লামা বনবিভাগের সাড়াশি ৯ টি ব্রীকফিল্ডের প্রায় ৯ হাজার ঘনফুট গাছ জব্দ বর্তমান সরকার উন্নয়ন বান্ধব সরকার এই সরকারের সময় গ্রামীণ অবকাঠামোয় ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে বাশিস পীরগঞ্জ শাখার নবনির্বাচিতদের শপথ পাঠ করা হয়েছে খুলনা নগরের-খাঁন এ সবুর রোড-(আপার যশোর রোড)-এ-চলছে-রাস্তা সম্পসারনের কাজ রাঙামাটিতে উপজাতীয় সন্ত্রাসীদের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে নিহত-১ সন্দ্বীপের বানীরহাটে একরাতে ১৮দোকান চুরি মেট্রোপলিটন পুলিশ (ট্রাফিক) বন্দর বিভাগের আয়োজনে সচেতনতামূলক সভা তারাকান্দায় গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী জন্মদিন উদযাপন

সমালোচনার মুখে পদত্যাগ করল টোকিও অলিম্পিক প্রধান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক রিপোর্টার।।

প্রবল বিতর্কের জন্ম দেওয়া টোকিও অলিম্পিক আয়োজক কমিটির প্রধান ইয়োশিরো মোরি পদত্যাগ করেছেন। দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণার সময় আবারও তিনি নারীদের প্রতি অশোভন মন্তব্যের জন্য ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছেন।

অলিম্পিক আয়োজক কমিটির শুক্রবারের এক বিশেষ বৈঠকে এই ঘোষণা দেন ৮৩ বছর বয়সী জাপানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী।

“আমার অনুপযুক্ত মন্তব্য বড় ধরনের সমস্যা তৈরি করেছে। আমি দুঃখিত।”

তিনি বলেন, এখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো টোকিও অলিম্পিকের সফল আয়োজন।

করোনাভাইরাসের কারণে এক বছর পিছিয়ে যাওয়া এই টুর্নামেন্ট শুরুর মাত্র পাঁচ মাস আগে পদত্যাগ করলেন ২০০০ থেকে ২০০১ পর্যন্ত জাপানের প্রধানমন্ত্রী থাকা মোরি।

চলতি মাসের শুরুর দিকে অলিম্পিক কমিটির এক বৈঠকে তিনি বলেছিলেন, নারীরা বেশি কথা বলে এবং বৈঠকে বেশি নারী পরিচালক থাকলে ‘সময় বেশি লাগে।’ এতে বিশ্বব্যাপী সমালোচনার ঝড় ওঠে। তাকে বরখাস্ত করার দাবি ওঠে।

তখনই অবশ্য মোরি তার মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়েছিলেন, কিন্তু পদত্যাগ করতে রাজি হননি।

কিন্তু গত এক সপ্তাহ ধরে ক্রমাগত চাপ বাড়তে থাকায় সরে যেতে বাধ্য হলেন তিনি। টয়োটাসহ টুর্নামেন্টটির মূল পৃষ্ঠপোষক কোম্পানিগুলো তার মন্তব্যের সমালোচনা শুরু করেছিল।

গত মঙ্গলবার একদল নারী আইন প্রনেতা মোরির ওই মন্তব্যের প্রতিবাদে সাদা পোশাক পরেন। তাদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশে একই কাজ করেন কিছু পুরুষও।

প্রতিবাদস্বরূপ টোকিও গভর্নর ইউরিকো কোয়িকে অলিম্পিকের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে অংশগ্রহণে অস্বীকৃতি জানান।

আগামী জুলাই-আগস্টে হতে যাওয়া এই প্রতিযোগিতা থেকে চারশর বেশি স্বেচ্ছাসেবী তাদের আবেদন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন বলে স্থানীয় গণমাধ্যমের খবর।
মোরির জায়গায় কে দায়িত্বে আসবেন তা এখনও পরিষ্কার নয়। এজন্য তিনি সুপরিচিত ক্রীড়া প্রশাসক ৮৪ বছর বয়সী সাবুরো কাওয়াবুচিকে দায়িত্ব দেওয়ার কথা বলেন। তবে এর বিরুদ্ধেও প্রতিবাদ হয়েছে।

আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ভারতবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে শহীদ পরিবারের পাশে থাকার আহবান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

সমালোচনার মুখে পদত্যাগ করল টোকিও অলিম্পিক প্রধান

আপডেট টাইম : ১২:৩৫:১৫ অপরাহ্ণ, শুক্রবার, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক রিপোর্টার।।

প্রবল বিতর্কের জন্ম দেওয়া টোকিও অলিম্পিক আয়োজক কমিটির প্রধান ইয়োশিরো মোরি পদত্যাগ করেছেন। দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণার সময় আবারও তিনি নারীদের প্রতি অশোভন মন্তব্যের জন্য ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছেন।

অলিম্পিক আয়োজক কমিটির শুক্রবারের এক বিশেষ বৈঠকে এই ঘোষণা দেন ৮৩ বছর বয়সী জাপানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী।

“আমার অনুপযুক্ত মন্তব্য বড় ধরনের সমস্যা তৈরি করেছে। আমি দুঃখিত।”

তিনি বলেন, এখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো টোকিও অলিম্পিকের সফল আয়োজন।

করোনাভাইরাসের কারণে এক বছর পিছিয়ে যাওয়া এই টুর্নামেন্ট শুরুর মাত্র পাঁচ মাস আগে পদত্যাগ করলেন ২০০০ থেকে ২০০১ পর্যন্ত জাপানের প্রধানমন্ত্রী থাকা মোরি।

চলতি মাসের শুরুর দিকে অলিম্পিক কমিটির এক বৈঠকে তিনি বলেছিলেন, নারীরা বেশি কথা বলে এবং বৈঠকে বেশি নারী পরিচালক থাকলে ‘সময় বেশি লাগে।’ এতে বিশ্বব্যাপী সমালোচনার ঝড় ওঠে। তাকে বরখাস্ত করার দাবি ওঠে।

তখনই অবশ্য মোরি তার মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়েছিলেন, কিন্তু পদত্যাগ করতে রাজি হননি।

কিন্তু গত এক সপ্তাহ ধরে ক্রমাগত চাপ বাড়তে থাকায় সরে যেতে বাধ্য হলেন তিনি। টয়োটাসহ টুর্নামেন্টটির মূল পৃষ্ঠপোষক কোম্পানিগুলো তার মন্তব্যের সমালোচনা শুরু করেছিল।

গত মঙ্গলবার একদল নারী আইন প্রনেতা মোরির ওই মন্তব্যের প্রতিবাদে সাদা পোশাক পরেন। তাদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশে একই কাজ করেন কিছু পুরুষও।

প্রতিবাদস্বরূপ টোকিও গভর্নর ইউরিকো কোয়িকে অলিম্পিকের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে অংশগ্রহণে অস্বীকৃতি জানান।

আগামী জুলাই-আগস্টে হতে যাওয়া এই প্রতিযোগিতা থেকে চারশর বেশি স্বেচ্ছাসেবী তাদের আবেদন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন বলে স্থানীয় গণমাধ্যমের খবর।
মোরির জায়গায় কে দায়িত্বে আসবেন তা এখনও পরিষ্কার নয়। এজন্য তিনি সুপরিচিত ক্রীড়া প্রশাসক ৮৪ বছর বয়সী সাবুরো কাওয়াবুচিকে দায়িত্ব দেওয়ার কথা বলেন। তবে এর বিরুদ্ধেও প্রতিবাদ হয়েছে।