ঢাকা ০৫:১০ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
ভিকারুননিসার ১৬৯ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিলের আদেশ বহাল ট্রাম্পকে গুলি করা ব্যক্তির সম্পর্কে যা জানাল রয়টার্স সালমানের হাত ধরলেন ঐশ্বরিয়া, সম্ভব হলো যেভাবে গণপদযাত্রায় অংশ নিতে জড়ো হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা বঙ্গভবন অবস্থান হবে সরাইলে ১০ম বারের মতো আশুতোষ চক্রবর্তী স্মারক শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অবশেষে ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে বৈঠ অবশেষে ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকরা মৃত্যুপুরী গাজা নগরী, ‘কুকুরে খাচ্ছে লাশ’ আন্দোলনকারীদের তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য সুশান্ত পালের ‘তোমরা এমনিতেই চাকরি পাবে না, কোটা থাক না থাক’ গাজীপুরে উচ্চ আদালতের রায় উপেক্ষা:ভূমিদস্যুদের সহযোগিতায় স্থানীয় পুলিশ পর্ব ১ মঠবাড়ীয়া আমড়াগাছিয়ায় মাদক সহ ১জন আটক ৬ মাসের কারাদন্ড

১২ বছরের মধ্যে গুরুতর সঙ্কটে মেরকেল

সময়ের কন্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : ১২:৩৫:৪৯ অপরাহ্ণ, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০১৭
  • / ৪৮৬ .000 বার পাঠক

ফাইল ছবি

জার্মানিতে জোট সরকার গঠনের ব্যাপারে যে আলোচনা চলছিল তা ভেস্তে গেছে। এতে করে চ্যান্সেলর হিসেবে এক যুগের মধ্যে এবারই সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন অ্যাঞ্জেলা মেরকেল।

মেরকেলের দল সিডিইউ এবং গ্রিন পার্টির সঙ্গে গত চার সপ্তাহ ধরে আলোচনা করেছে এফডিপি। তবে এখন পর্যন্ত সমঝোতায় আসতে পারেনি দলগুলো।

এফডিপি নেতা ক্রিশ্চিয়ান লিন্ডনার জানান, তাদেরকে বিশ্বাস করার মতো কোনো ভিত্তি নেই। সে কারণে ঠিক কী ঘটতে যাচ্ছে, তা পরিষ্কারভাবে বলা যাচ্ছে না।

তবে প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক ওয়াল্টার স্টেইনমিয়ারের সঙ্গে মেরকেলের সাক্ষাতের কারণে পরিস্থিতি বদলে যেতে পারে। পার্লামেন্ট ভেঙে দিয়ে আগাম নির্বাচনের ডাক দেয়ার ক্ষমতা রয়েছে প্রেসিডেন্টের।

সেপ্টেম্বরের নির্বাচনে মেরকেলের দল জয়ী হলেও বেশিরভাগ ভোটার মূলধারার দলগুলোর সমর্থন বদলে ফেলেছেন।

মেরকেল জানিয়েছেন, আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার ব্যাপারে তিনি কথা বলতে সোমবারের পরে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। আনুষ্ঠানিকভাবে প্রেসিডেন্টকে তিনি জানাবেন, আলোচনা ব্যর্থ হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ‘একজন চ্যান্সেলর হিসেবে, আগামীতে দুর্দিন আসলে এই দেশ ভালভাবে পরিচালনা করার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য আমি সবকিছুই করব।’

আরো খবর.......

আপলোডকারীর তথ্য

১২ বছরের মধ্যে গুরুতর সঙ্কটে মেরকেল

আপডেট টাইম : ১২:৩৫:৪৯ অপরাহ্ণ, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০১৭

জার্মানিতে জোট সরকার গঠনের ব্যাপারে যে আলোচনা চলছিল তা ভেস্তে গেছে। এতে করে চ্যান্সেলর হিসেবে এক যুগের মধ্যে এবারই সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন অ্যাঞ্জেলা মেরকেল।

মেরকেলের দল সিডিইউ এবং গ্রিন পার্টির সঙ্গে গত চার সপ্তাহ ধরে আলোচনা করেছে এফডিপি। তবে এখন পর্যন্ত সমঝোতায় আসতে পারেনি দলগুলো।

এফডিপি নেতা ক্রিশ্চিয়ান লিন্ডনার জানান, তাদেরকে বিশ্বাস করার মতো কোনো ভিত্তি নেই। সে কারণে ঠিক কী ঘটতে যাচ্ছে, তা পরিষ্কারভাবে বলা যাচ্ছে না।

তবে প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক ওয়াল্টার স্টেইনমিয়ারের সঙ্গে মেরকেলের সাক্ষাতের কারণে পরিস্থিতি বদলে যেতে পারে। পার্লামেন্ট ভেঙে দিয়ে আগাম নির্বাচনের ডাক দেয়ার ক্ষমতা রয়েছে প্রেসিডেন্টের।

সেপ্টেম্বরের নির্বাচনে মেরকেলের দল জয়ী হলেও বেশিরভাগ ভোটার মূলধারার দলগুলোর সমর্থন বদলে ফেলেছেন।

মেরকেল জানিয়েছেন, আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার ব্যাপারে তিনি কথা বলতে সোমবারের পরে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। আনুষ্ঠানিকভাবে প্রেসিডেন্টকে তিনি জানাবেন, আলোচনা ব্যর্থ হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ‘একজন চ্যান্সেলর হিসেবে, আগামীতে দুর্দিন আসলে এই দেশ ভালভাবে পরিচালনা করার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য আমি সবকিছুই করব।’