ঢাকা ০৩:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২
সংবাদ শিরোনাম ::
বারইখালিতে পুত্রের সামনে বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করা, আসামি ফরিদ ও আসিফ গ্রেফতার নান্দাইলে বিদ্যুৎপৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু বাংলাদেশী তৈরি টুটু পিস্তল,চাইনিজ কুড়াল ৫০০ গ্রাম গাঁজা সহ ০৪ জন কিশোর গ্যাং এর সদস্য গ্রেফতার বাগেরহাট জেলার মোরেলগঞ্জে মটরসাইকেল চালককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা, ছেলের অবস্থা আশঙ্কাজনক নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ এর মিজমিজি এলাকায় বৈধ গ্যাস লাইন পুনঃ সংযোগ এর দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন মোংলায় ২৮৪ জন বনদস্যুকে ঈদ উপহার দিলো র‌্যাব-৮ লক্ষ্মীপুরে টাকা আত্মসাতের মামলায় চেয়ারম্যান কারাগারে লক্ষ্মীপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বীজ ব্যবসায়ীর জরিমানা কুয়াকাটা সৈকতে পদ্মার ঢেউ, পর্যটকরা এখন দক্ষিণমুখী নিজ প্রতিভার বিকাশ ঘটিয়ে দর্শকদের দৃষ্টি কেড়েছে ৩য় শ্রেণির ছাত্রী লাবিবা

বাঘায় পদ্মার চরে আধিপত্য বিস্তারে হামলা-মারধরে ৩ নারীসহ আহত -৬

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি।।

রাজশাহীর বাঘায় পদ্মার চরে আধিপত্য বিস্তারে হামলা চালিয়ে মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। হামলার
ঘটনায় তিন নারীসহ ৬ জন গুরুতর আহত হয়েছে। তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলা সদর থেকে
১৫ কিলোমিটার দুরে পদ্মার চরাঞ্চলের চকরাজাপুর ইউনিয়নের করারি নওশারা গ্রামে।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়,শনিবার (৮ জানুয়ারী) সকালের দিকে ওই গ্রামের জমসেদের ছেলে
আলমগীরসহ তার লোকজন লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে মারধর করে। এতে
আহম্মদ মন্ডলের ছেলে শরিফুল ইসলাম,তার স্ত্রী মর্জিনা বেগম,আমান মন্ডলের স্ত্রী মাজেদা
বেগম,শহিদুলের ছেলে জিয়ারুল ইসলামসহ ৪জন আহত হয়। তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে
নেওয়ার পর সকলকেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনার ৩দিন
আগে একই গ্রামের আলমগীর ও তার মা আশুরা বেগমকে মারধর করে শরিফুল ইসলামসহ তার পক্ষের
লোকজন। এদের ২জনকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
স্থানীয়রা জানান, আধিপত্য বিস্তারে ওই গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে দু’টি পক্ষের মধ্যে দ্ব›দ্ব চলে
আসছে।পক্ষদ্বয়ের পাল্টাপল্টি হামলায় গুলিবিদ্ধসহ হতাহতের ঘটনায় একাধিক মামলাও রয়েছে। এসব
জের ধরে বৃহস্পতিবার (৬জানুয়ারি) ও শনিবার (৮জানুয়ারি) পৃথক পৃথক হামলা ও মারপিটের
ঘটনায় হতাহতের ঘটনা ঘটে।
শরিফুল ইসলামের নিকট আত্মীয় মাহাবুল ইসলাম জানান,হাসপাতাল থেকে এসেই
লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে আলমগীর ও তার পক্ষের লোকজনকে
এলোপাথাড়ি মারপিট করে শরিফুল ইসলাম তার পক্ষের লোকজন । তবে ৩দিন আগে আলমগীর ও তার
মাকে মারপিটের কথা জানিয়েছেন মাহাবুল ইসলাম। শরিফুল ইসলামের ভাই বেলাল হোসেন বলেন,
শরিফুলের জমিতে মাটি কাটাকালিন সময়ে তারা হামলা করে।
আলমগীর জানান,তার আখক্ষেতে,আখের মাথা কেটে নিয়ে যায় শরিফুল ইসলাম। বিষয়টি জানার
পর চোরকে উদ্দেশ্য করে গালাগালি করে আমার বাবা জমসেদ আলী। এর জের ধরে আমাকে ও আমার
মাকে মারপিট করে শরিফুল ইসলাম ও তার লোকজন।
এতে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন তারা । শনিবারের ঘটনায় হামলা-মারপিটের সঙ্গে
আমি জড়িত নই। চুরির ঘটনা নিয়ে মারপিটে আহত হয়েছে বলে দাবি করেছেন আলমগীর
হোসেন। ৮মাস আগেও শরিফুল ইসলাম আমার বাবাকে মারপিট করে। এতে একটি পায়ের হাঁড়
ভেঙ্গে যায়।
বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ
পাঠানো হয়েছিল। এ বিষয়ে অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।##

জাতীয় আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বারইখালিতে পুত্রের সামনে বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করা, আসামি ফরিদ ও আসিফ গ্রেফতার

বাঘায় পদ্মার চরে আধিপত্য বিস্তারে হামলা-মারধরে ৩ নারীসহ আহত -৬

আপডেট টাইম : ০৯:০৩:৩৩ পূর্বাহ্ণ, রবিবার, ৯ জানুয়ারি ২০২২

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি।।

রাজশাহীর বাঘায় পদ্মার চরে আধিপত্য বিস্তারে হামলা চালিয়ে মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। হামলার
ঘটনায় তিন নারীসহ ৬ জন গুরুতর আহত হয়েছে। তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলা সদর থেকে
১৫ কিলোমিটার দুরে পদ্মার চরাঞ্চলের চকরাজাপুর ইউনিয়নের করারি নওশারা গ্রামে।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়,শনিবার (৮ জানুয়ারী) সকালের দিকে ওই গ্রামের জমসেদের ছেলে
আলমগীরসহ তার লোকজন লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে মারধর করে। এতে
আহম্মদ মন্ডলের ছেলে শরিফুল ইসলাম,তার স্ত্রী মর্জিনা বেগম,আমান মন্ডলের স্ত্রী মাজেদা
বেগম,শহিদুলের ছেলে জিয়ারুল ইসলামসহ ৪জন আহত হয়। তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে
নেওয়ার পর সকলকেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনার ৩দিন
আগে একই গ্রামের আলমগীর ও তার মা আশুরা বেগমকে মারধর করে শরিফুল ইসলামসহ তার পক্ষের
লোকজন। এদের ২জনকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
স্থানীয়রা জানান, আধিপত্য বিস্তারে ওই গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে দু’টি পক্ষের মধ্যে দ্ব›দ্ব চলে
আসছে।পক্ষদ্বয়ের পাল্টাপল্টি হামলায় গুলিবিদ্ধসহ হতাহতের ঘটনায় একাধিক মামলাও রয়েছে। এসব
জের ধরে বৃহস্পতিবার (৬জানুয়ারি) ও শনিবার (৮জানুয়ারি) পৃথক পৃথক হামলা ও মারপিটের
ঘটনায় হতাহতের ঘটনা ঘটে।
শরিফুল ইসলামের নিকট আত্মীয় মাহাবুল ইসলাম জানান,হাসপাতাল থেকে এসেই
লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে আলমগীর ও তার পক্ষের লোকজনকে
এলোপাথাড়ি মারপিট করে শরিফুল ইসলাম তার পক্ষের লোকজন । তবে ৩দিন আগে আলমগীর ও তার
মাকে মারপিটের কথা জানিয়েছেন মাহাবুল ইসলাম। শরিফুল ইসলামের ভাই বেলাল হোসেন বলেন,
শরিফুলের জমিতে মাটি কাটাকালিন সময়ে তারা হামলা করে।
আলমগীর জানান,তার আখক্ষেতে,আখের মাথা কেটে নিয়ে যায় শরিফুল ইসলাম। বিষয়টি জানার
পর চোরকে উদ্দেশ্য করে গালাগালি করে আমার বাবা জমসেদ আলী। এর জের ধরে আমাকে ও আমার
মাকে মারপিট করে শরিফুল ইসলাম ও তার লোকজন।
এতে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন তারা । শনিবারের ঘটনায় হামলা-মারপিটের সঙ্গে
আমি জড়িত নই। চুরির ঘটনা নিয়ে মারপিটে আহত হয়েছে বলে দাবি করেছেন আলমগীর
হোসেন। ৮মাস আগেও শরিফুল ইসলাম আমার বাবাকে মারপিট করে। এতে একটি পায়ের হাঁড়
ভেঙ্গে যায়।
বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ
পাঠানো হয়েছিল। এ বিষয়ে অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।##