ঢাকা ০৯:৩২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
কোটা সংস্কারের পক্ষে সরকার নীতিগতভাবে একমত: আইনমন্ত্রী ঘোষণার পর মানছেন না কোটা আন্দোলনকারীরা আমার ভাইদের ফেরত দেওয়া হোক আগে রায়পুরে বালু উত্তোলনে ভাঙন আতঙ্ক সরকারের কাছ থেকে দৃশ্যমান পদক্ষেপ ও সমাধানের পথ তৈরির প্রত্যাশা করে বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন শনির আখড়া-যাত্রাবাড়ী সড়কে চলছে সংঘর্ষ, যান চলালাচল অচল করে দিচ্ছেন ফেসবুক লাইভে এসে পদত্যাগের ঘোষণা ছাত্রলীগ নেতার উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত কমপ্লিট শাটডাউন ঢাকার সঙ্গে সব জেলার যোগাযোগ বন্ধ, টার্মিনাল থেকে ছাড়ছে না কোনো বাস ফুলবাড়ীর দৌলতপুর ইউনিয়নে গরু চুরির হিড়িক দেশবাসীর প্রতি মির্জা ফখরুলের আহ্বান, শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঢাবি, ৬টার মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশ

বাঘায় পদ্মার চরে আধিপত্য বিস্তারে হামলা-মারধরে ৩ নারীসহ আহত -৬

সময়ের কন্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : ০৯:০৩:৩৩ পূর্বাহ্ণ, রবিবার, ৯ জানুয়ারি ২০২২
  • / ২৫৪ ৫০০.০০০ বার পাঠক

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি।।

রাজশাহীর বাঘায় পদ্মার চরে আধিপত্য বিস্তারে হামলা চালিয়ে মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। হামলার
ঘটনায় তিন নারীসহ ৬ জন গুরুতর আহত হয়েছে। তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলা সদর থেকে
১৫ কিলোমিটার দুরে পদ্মার চরাঞ্চলের চকরাজাপুর ইউনিয়নের করারি নওশারা গ্রামে।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়,শনিবার (৮ জানুয়ারী) সকালের দিকে ওই গ্রামের জমসেদের ছেলে
আলমগীরসহ তার লোকজন লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে মারধর করে। এতে
আহম্মদ মন্ডলের ছেলে শরিফুল ইসলাম,তার স্ত্রী মর্জিনা বেগম,আমান মন্ডলের স্ত্রী মাজেদা
বেগম,শহিদুলের ছেলে জিয়ারুল ইসলামসহ ৪জন আহত হয়। তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে
নেওয়ার পর সকলকেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনার ৩দিন
আগে একই গ্রামের আলমগীর ও তার মা আশুরা বেগমকে মারধর করে শরিফুল ইসলামসহ তার পক্ষের
লোকজন। এদের ২জনকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
স্থানীয়রা জানান, আধিপত্য বিস্তারে ওই গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে দু’টি পক্ষের মধ্যে দ্ব›দ্ব চলে
আসছে।পক্ষদ্বয়ের পাল্টাপল্টি হামলায় গুলিবিদ্ধসহ হতাহতের ঘটনায় একাধিক মামলাও রয়েছে। এসব
জের ধরে বৃহস্পতিবার (৬জানুয়ারি) ও শনিবার (৮জানুয়ারি) পৃথক পৃথক হামলা ও মারপিটের
ঘটনায় হতাহতের ঘটনা ঘটে।
শরিফুল ইসলামের নিকট আত্মীয় মাহাবুল ইসলাম জানান,হাসপাতাল থেকে এসেই
লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে আলমগীর ও তার পক্ষের লোকজনকে
এলোপাথাড়ি মারপিট করে শরিফুল ইসলাম তার পক্ষের লোকজন । তবে ৩দিন আগে আলমগীর ও তার
মাকে মারপিটের কথা জানিয়েছেন মাহাবুল ইসলাম। শরিফুল ইসলামের ভাই বেলাল হোসেন বলেন,
শরিফুলের জমিতে মাটি কাটাকালিন সময়ে তারা হামলা করে।
আলমগীর জানান,তার আখক্ষেতে,আখের মাথা কেটে নিয়ে যায় শরিফুল ইসলাম। বিষয়টি জানার
পর চোরকে উদ্দেশ্য করে গালাগালি করে আমার বাবা জমসেদ আলী। এর জের ধরে আমাকে ও আমার
মাকে মারপিট করে শরিফুল ইসলাম ও তার লোকজন।
এতে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন তারা । শনিবারের ঘটনায় হামলা-মারপিটের সঙ্গে
আমি জড়িত নই। চুরির ঘটনা নিয়ে মারপিটে আহত হয়েছে বলে দাবি করেছেন আলমগীর
হোসেন। ৮মাস আগেও শরিফুল ইসলাম আমার বাবাকে মারপিট করে। এতে একটি পায়ের হাঁড়
ভেঙ্গে যায়।
বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ
পাঠানো হয়েছিল। এ বিষয়ে অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।##

আরো খবর.......

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বাঘায় পদ্মার চরে আধিপত্য বিস্তারে হামলা-মারধরে ৩ নারীসহ আহত -৬

আপডেট টাইম : ০৯:০৩:৩৩ পূর্বাহ্ণ, রবিবার, ৯ জানুয়ারি ২০২২

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি।।

রাজশাহীর বাঘায় পদ্মার চরে আধিপত্য বিস্তারে হামলা চালিয়ে মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। হামলার
ঘটনায় তিন নারীসহ ৬ জন গুরুতর আহত হয়েছে। তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলা সদর থেকে
১৫ কিলোমিটার দুরে পদ্মার চরাঞ্চলের চকরাজাপুর ইউনিয়নের করারি নওশারা গ্রামে।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়,শনিবার (৮ জানুয়ারী) সকালের দিকে ওই গ্রামের জমসেদের ছেলে
আলমগীরসহ তার লোকজন লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে মারধর করে। এতে
আহম্মদ মন্ডলের ছেলে শরিফুল ইসলাম,তার স্ত্রী মর্জিনা বেগম,আমান মন্ডলের স্ত্রী মাজেদা
বেগম,শহিদুলের ছেলে জিয়ারুল ইসলামসহ ৪জন আহত হয়। তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে
নেওয়ার পর সকলকেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনার ৩দিন
আগে একই গ্রামের আলমগীর ও তার মা আশুরা বেগমকে মারধর করে শরিফুল ইসলামসহ তার পক্ষের
লোকজন। এদের ২জনকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
স্থানীয়রা জানান, আধিপত্য বিস্তারে ওই গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে দু’টি পক্ষের মধ্যে দ্ব›দ্ব চলে
আসছে।পক্ষদ্বয়ের পাল্টাপল্টি হামলায় গুলিবিদ্ধসহ হতাহতের ঘটনায় একাধিক মামলাও রয়েছে। এসব
জের ধরে বৃহস্পতিবার (৬জানুয়ারি) ও শনিবার (৮জানুয়ারি) পৃথক পৃথক হামলা ও মারপিটের
ঘটনায় হতাহতের ঘটনা ঘটে।
শরিফুল ইসলামের নিকট আত্মীয় মাহাবুল ইসলাম জানান,হাসপাতাল থেকে এসেই
লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে আলমগীর ও তার পক্ষের লোকজনকে
এলোপাথাড়ি মারপিট করে শরিফুল ইসলাম তার পক্ষের লোকজন । তবে ৩দিন আগে আলমগীর ও তার
মাকে মারপিটের কথা জানিয়েছেন মাহাবুল ইসলাম। শরিফুল ইসলামের ভাই বেলাল হোসেন বলেন,
শরিফুলের জমিতে মাটি কাটাকালিন সময়ে তারা হামলা করে।
আলমগীর জানান,তার আখক্ষেতে,আখের মাথা কেটে নিয়ে যায় শরিফুল ইসলাম। বিষয়টি জানার
পর চোরকে উদ্দেশ্য করে গালাগালি করে আমার বাবা জমসেদ আলী। এর জের ধরে আমাকে ও আমার
মাকে মারপিট করে শরিফুল ইসলাম ও তার লোকজন।
এতে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন তারা । শনিবারের ঘটনায় হামলা-মারপিটের সঙ্গে
আমি জড়িত নই। চুরির ঘটনা নিয়ে মারপিটে আহত হয়েছে বলে দাবি করেছেন আলমগীর
হোসেন। ৮মাস আগেও শরিফুল ইসলাম আমার বাবাকে মারপিট করে। এতে একটি পায়ের হাঁড়
ভেঙ্গে যায়।
বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ
পাঠানো হয়েছিল। এ বিষয়ে অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।##