ঢাকা ০৪:৩৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
পানি নিস্কাশনের রাস্তা বন্ধ করে পুকুর নির্মানের কারনে প্রায় শত বিঘা ফসলী জমি পানির নীচে ইবি শিক্ষার্থীকে গলাটিপে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে তদন্ত কমিটি গঠন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় বেগম জাহানারা হান্নান উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩য় বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্টিত জামালপুরে ভেজাল কীটনাশকে বাজার সয়লাব, কৃষি শিল্প ধ্বংসের পাঁয়তারা মোংলায় সিবিএ নির্বাচন নিয়ে শ্রমিক-কর্মচারীদের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে নওগাঁ প্রাইভেট কার থেকে ৭২ কেজি গাঁজাসহ এক জন গ্রেপ্তার ভাষা সৈনিক মোস্তফা এম এ মতিন সাহিত্য পুরস্কার পেলেন হোসেনপুরের কবি শাহ আলম বিল্লাল গুজরাটের পোরবন্দরের জলসীমায় ২২০০০হাজার, কোটি টাকার মাদকদ্রব্য আটক করেছে নৌবাহিনী ও এনসিবি, গ্রেপ্তার পাঁচ পাক নাগরিক রায়পুরে অসামাজিক কার্যকলাপে আটক ৫ রাজধানীর ৪ হাসপাতালে র‍্যাবের অভিযান

ফিরিঙ্গী বাজার এলাকায় অবস্থিত ‘উপলব্ধি’ শিশু নিবাসে আয়োজিত নবম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সিএমপি কমিশনার

বিভাগীয় ব্যুরো প্রধান।।

রবিবার ১২ ডিসেম্বর চট্টগ্রামের কোতোয়ালী থানাধীন ফিরিঙ্গী বাজার এলাকায় অবস্থিত ‘উপলব্ধি’ শিশু নিবাসে আয়োজিত হয় প্রতিষ্ঠানটির নবম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী।

এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর, পিপিএম।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ‘উপলব্ধি’র চেয়ারম্যান এম সাইফুল ইসলাম।

সিএমপি কমিশনার এসময় ‘উপলব্ধি’র সার্বিক কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। সরকার অনুমোদিত সমাজসেবা মূলক একটি অরাজনৈতিক মানবিক প্রতিষ্ঠান ‘উপলব্ধি’। হারিয়ে যাওয়া, স্বজনহীন অসহায়, ঠিকানাবিহীন ভাসমান মেয়ে শিশুদের নিয়ে কাজ করে থাকে এই প্রতিষ্ঠান। সম্পূর্ণভাবে স্থানীয় হৃদয়বান ব্যাক্তিদের আর্থিক সহযোগিতায় এটি পরিচালিত হয়। বর্তমানে এই প্রতিষ্ঠানে ৬৫ জন মেয়ে শিশু রয়েছে। যারা অধিকাংশই নিজ ঠিকানা জানে না। এমন কি, এ ধরাধামে তাদের কেউ আছে কিনা তাও অনেকে সঠিক ভাবে বলতে পারে না! ‘উপলব্ধি’ তাদের একমাত্র বসতবাড়ি, একমাত্র ঠিকানা।

প্রতিষ্ঠানটি চট্টগ্রামের ফিরিঙ্গী বাজার এলাকায় কোতোয়ালী থানাধীন একটি ভাড়াকৃত বাড়িতে অবস্থিত। এখানে থেকেই এই শিশুরা শহরের বিভিন্ন স্কুলে লেখাপড়া করে। শুধু লেখাপড়া ছাড়াও খেলাধূলা, নাচ, গান, চিত্রাংকন, আবৃত্তি, বিতর্ক ইত্যাদি প্রতিযোগিতায় তারা তাদের প্রতিভার স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হয়েছে।

এই প্রতিষ্ঠানের চারজন মেয়ে বর্তমানে এস এস সি পরীক্ষার্থী, ছয়জন মেয়ে সরকারি গার্লস হাই স্কুলে মেধা তালিকায় পড়ার সুযোগ পেয়েছে। একাধিক মেয়ে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি নিয়ে পড়াশুনা করছে। অধিক বই পড়ার জন্য প্রতি বছর বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র থেকে এই শিশুরা পুরষ্কৃত হচ্ছে। তাদের আলোকোজ্জ্বল চোখ আমাদের বিশ্বাস করতে বাধ্য করেছে তারা একদিন বড় হবে, অনেক বড়। নবজাতক শিশু থেকে শুরু করে সব বয়সের শিশুদের থাকার ব্যবস্থা আছে এই প্রতিষ্ঠানের তত্ত্বাবধানে। এসময় সিএমপি কমিশনার মহোদয় প্রতিষ্ঠানের শিশুদের কল্যাণে আর্থিক সহায়তা ও শীত বস্ত্র প্রদান করেন।

এসময় সেখানে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, ‘উপলব্ধি’র সদস্য ও কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

পানি নিস্কাশনের রাস্তা বন্ধ করে পুকুর নির্মানের কারনে প্রায় শত বিঘা ফসলী জমি পানির নীচে

ফিরিঙ্গী বাজার এলাকায় অবস্থিত ‘উপলব্ধি’ শিশু নিবাসে আয়োজিত নবম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সিএমপি কমিশনার

আপডেট টাইম : ০৪:৪৩:৩৮ অপরাহ্ণ, রবিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০২১

বিভাগীয় ব্যুরো প্রধান।।

রবিবার ১২ ডিসেম্বর চট্টগ্রামের কোতোয়ালী থানাধীন ফিরিঙ্গী বাজার এলাকায় অবস্থিত ‘উপলব্ধি’ শিশু নিবাসে আয়োজিত হয় প্রতিষ্ঠানটির নবম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী।

এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর, পিপিএম।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ‘উপলব্ধি’র চেয়ারম্যান এম সাইফুল ইসলাম।

সিএমপি কমিশনার এসময় ‘উপলব্ধি’র সার্বিক কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। সরকার অনুমোদিত সমাজসেবা মূলক একটি অরাজনৈতিক মানবিক প্রতিষ্ঠান ‘উপলব্ধি’। হারিয়ে যাওয়া, স্বজনহীন অসহায়, ঠিকানাবিহীন ভাসমান মেয়ে শিশুদের নিয়ে কাজ করে থাকে এই প্রতিষ্ঠান। সম্পূর্ণভাবে স্থানীয় হৃদয়বান ব্যাক্তিদের আর্থিক সহযোগিতায় এটি পরিচালিত হয়। বর্তমানে এই প্রতিষ্ঠানে ৬৫ জন মেয়ে শিশু রয়েছে। যারা অধিকাংশই নিজ ঠিকানা জানে না। এমন কি, এ ধরাধামে তাদের কেউ আছে কিনা তাও অনেকে সঠিক ভাবে বলতে পারে না! ‘উপলব্ধি’ তাদের একমাত্র বসতবাড়ি, একমাত্র ঠিকানা।

প্রতিষ্ঠানটি চট্টগ্রামের ফিরিঙ্গী বাজার এলাকায় কোতোয়ালী থানাধীন একটি ভাড়াকৃত বাড়িতে অবস্থিত। এখানে থেকেই এই শিশুরা শহরের বিভিন্ন স্কুলে লেখাপড়া করে। শুধু লেখাপড়া ছাড়াও খেলাধূলা, নাচ, গান, চিত্রাংকন, আবৃত্তি, বিতর্ক ইত্যাদি প্রতিযোগিতায় তারা তাদের প্রতিভার স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হয়েছে।

এই প্রতিষ্ঠানের চারজন মেয়ে বর্তমানে এস এস সি পরীক্ষার্থী, ছয়জন মেয়ে সরকারি গার্লস হাই স্কুলে মেধা তালিকায় পড়ার সুযোগ পেয়েছে। একাধিক মেয়ে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি নিয়ে পড়াশুনা করছে। অধিক বই পড়ার জন্য প্রতি বছর বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র থেকে এই শিশুরা পুরষ্কৃত হচ্ছে। তাদের আলোকোজ্জ্বল চোখ আমাদের বিশ্বাস করতে বাধ্য করেছে তারা একদিন বড় হবে, অনেক বড়। নবজাতক শিশু থেকে শুরু করে সব বয়সের শিশুদের থাকার ব্যবস্থা আছে এই প্রতিষ্ঠানের তত্ত্বাবধানে। এসময় সিএমপি কমিশনার মহোদয় প্রতিষ্ঠানের শিশুদের কল্যাণে আর্থিক সহায়তা ও শীত বস্ত্র প্রদান করেন।

এসময় সেখানে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, ‘উপলব্ধি’র সদস্য ও কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।