ঢাকা ০১:৫১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২
সংবাদ শিরোনাম ::
হবিগঞ্জের শায়েস্তাঞ্জে র‍্যাবের অভিযানে ১বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার দিন দিন বেড়েই চলছে পণ্য, বাজারজুড়ে দীর্ঘশ্বাস পারমাণবিক চুক্তির দ্বারপ্রান্তে ইরান ও পশ্চিমা দেশগুলো  পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যের ব্যাখ্যা চাই: মির্জা ফখরুল কসবায় চার হাজার পিস ইয়াবাসহ যুবক গ্রেফতার যশোরের শার্শার রুদ্রপুর সীমান্তে সোনারবারসহ পাচারকারী আটক গাজীপুর মহানগর পুলিশ কর্তৃক ২৪ ঘন্টার উদ্ধার অভিযান কাশিমপুরে ৭ বছরের এক মাদ্রাসার। ছাত্র কে বলাৎকারে এক মুদি, দোকানদার আটক আশুলিয়া থানা যুবলীগের আয়োজনে জাতিয় শোক দিবস পালন অপশাসন কী, অপশাসনের ফল কী হতে পারে, বাংলাদেশের মানুষ তা প্রত্যক্ষ করেছে ২০০১ সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত

ইসরায়েলের সঙ্গে টিকা বিনিময় চুক্তি বাতিল করল ফিলিস্তিন

আন্তর্জাতিক রিপোর্ট।।

মেয়াদোত্তীর্ণ হতে খুব বেশি সময় বাকি নেই। তাই ইসরায়েলের কাছ থেকে ফাইজার-বায়োএনটেকের অন্তত ১০ লাখ ডোজ কোভিড টিকা না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফিলিস্তিন।

বিবিসি জানায়, শুক্রবার ইসরায়েলের নতুন প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেটের কার্যালয় থেকে একটি টিকা বিনিময় চু্ক্তির অধিনে ফিলিস্তিনকে ফাইজারের ওই টিকা দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। বলা হয়েছিল, তাদের এখন আর ওই টিকার দরকার নেই। ফিলিস্তিনের টিকাদান কার্যক্রমের গতি বাড়াতে তাই তারা ওই টিকা তাদের দেবে।

বিনিময়ে চুক্তির শর্ত অনুযায়ী ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষও ফাইজারের কাছ থেকে তাদের টিকার যে চালান পাওয়ার কথা রয়েছে তা থেকে একই পরিমাণ টিকার ডোজ ইসরায়েলকে দিতে হবে।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাই আলকাইলা বলেন, ওই টিকাগুলোর মেয়াদ আগামী জুলাই অথবা অগাস্ট মাসে শেষ হয়ে যাবে বলে তারা জানিয়েছেন। টিকাগুলো কবে নাগাদ পৌঁছানো সম্ভব বললে তারা জুন মাসের কথা বলেন। সেক্ষেত্রে ওই টিকাগুলো ব্যবহারের জন্য আমরা পর্যাপ্ত সময় পাব না। তাই আমরা সেগুলো গ্রহণ না কার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

ইসরায়েল কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি।

এ বিষয়ে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র ইব্রাহিম মেলহেম এক বিবৃতিতে বলেন, টিকার মেয়াদোত্তীর্ণর তারিখ ঘনিয়ে আসায় ফিলিস্তিন সরকার সেগুলো গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। আমরা বরং তার বদলে সরাসরি ফাইজারের কাছে টিকার যে অর্ডার দিয়েছি সেগুলো আসার অপেক্ষা করবো।

কোভিড-১৯ টিকার একটি মেয়াদ আছে। মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পর সেগুলো আর ব্যবহার করা যায় না। যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখনই মেয়াদোত্তীর্ণ টিকা নষ্ট করে না ফেলার পরামর্শ দিয়েছে। বলেছে, মেয়াদ পার হয়ে যাওয়ার পরও টিকার কার্যকারিতা থাকে কিনা তা নিয়ে বেশ কয়েকটি গবেষণা চলছে।

ফাইজারের কয়েকলাখ ডোজ টিকা পাওয়ার পরই ইসরায়েল দেশটির প্রায় ৫৫ শতাংশ মানুষকে দুই ডোজ টিকা দেওয়ার কাজ শেষ করেছে। অন্যদিকে, পশ্চিম তীর ও গাজায় মাত্র এক ডোজ টিকা পেয়েছেন ৩৩ শতাংশ ফিলিস্তিনি, বলছেন ফিলিস্তিনি কর্মকর্তারা।

আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

হবিগঞ্জের শায়েস্তাঞ্জে র‍্যাবের অভিযানে ১বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার

ইসরায়েলের সঙ্গে টিকা বিনিময় চুক্তি বাতিল করল ফিলিস্তিন

আপডেট টাইম : ০৯:৪৯:১৯ পূর্বাহ্ণ, শনিবার, ১৯ জুন ২০২১

আন্তর্জাতিক রিপোর্ট।।

মেয়াদোত্তীর্ণ হতে খুব বেশি সময় বাকি নেই। তাই ইসরায়েলের কাছ থেকে ফাইজার-বায়োএনটেকের অন্তত ১০ লাখ ডোজ কোভিড টিকা না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফিলিস্তিন।

বিবিসি জানায়, শুক্রবার ইসরায়েলের নতুন প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেটের কার্যালয় থেকে একটি টিকা বিনিময় চু্ক্তির অধিনে ফিলিস্তিনকে ফাইজারের ওই টিকা দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। বলা হয়েছিল, তাদের এখন আর ওই টিকার দরকার নেই। ফিলিস্তিনের টিকাদান কার্যক্রমের গতি বাড়াতে তাই তারা ওই টিকা তাদের দেবে।

বিনিময়ে চুক্তির শর্ত অনুযায়ী ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষও ফাইজারের কাছ থেকে তাদের টিকার যে চালান পাওয়ার কথা রয়েছে তা থেকে একই পরিমাণ টিকার ডোজ ইসরায়েলকে দিতে হবে।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাই আলকাইলা বলেন, ওই টিকাগুলোর মেয়াদ আগামী জুলাই অথবা অগাস্ট মাসে শেষ হয়ে যাবে বলে তারা জানিয়েছেন। টিকাগুলো কবে নাগাদ পৌঁছানো সম্ভব বললে তারা জুন মাসের কথা বলেন। সেক্ষেত্রে ওই টিকাগুলো ব্যবহারের জন্য আমরা পর্যাপ্ত সময় পাব না। তাই আমরা সেগুলো গ্রহণ না কার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

ইসরায়েল কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি।

এ বিষয়ে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র ইব্রাহিম মেলহেম এক বিবৃতিতে বলেন, টিকার মেয়াদোত্তীর্ণর তারিখ ঘনিয়ে আসায় ফিলিস্তিন সরকার সেগুলো গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। আমরা বরং তার বদলে সরাসরি ফাইজারের কাছে টিকার যে অর্ডার দিয়েছি সেগুলো আসার অপেক্ষা করবো।

কোভিড-১৯ টিকার একটি মেয়াদ আছে। মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পর সেগুলো আর ব্যবহার করা যায় না। যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখনই মেয়াদোত্তীর্ণ টিকা নষ্ট করে না ফেলার পরামর্শ দিয়েছে। বলেছে, মেয়াদ পার হয়ে যাওয়ার পরও টিকার কার্যকারিতা থাকে কিনা তা নিয়ে বেশ কয়েকটি গবেষণা চলছে।

ফাইজারের কয়েকলাখ ডোজ টিকা পাওয়ার পরই ইসরায়েল দেশটির প্রায় ৫৫ শতাংশ মানুষকে দুই ডোজ টিকা দেওয়ার কাজ শেষ করেছে। অন্যদিকে, পশ্চিম তীর ও গাজায় মাত্র এক ডোজ টিকা পেয়েছেন ৩৩ শতাংশ ফিলিস্তিনি, বলছেন ফিলিস্তিনি কর্মকর্তারা।