1. [email protected] : admi2017 :
শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১২:৫১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
নাসিরনগর উপজেলায় বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ছাত্র ঐক্য পরিষদ এর ৮১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি গঠন রায়পুরে সমাজ সেবা’র উদ্যোগে প্রতিবন্ধী ব্যাক্তির অধিকার ও সূরক্ষা নিশ্চিতকরনে সেমিনার অনুষ্ঠিত আত্রাইয়ে বিকাশের দোকান চুরির ঘটনায় আটক ১ আত্রাই স্টেশনে ট্রেনের ধাক্কায় এক বৃদ্ধর মৃত্যু মাধবপুরে সংবাদ কর্মী মাসুদ লস্করের উপর সোর্স কুদরতের সন্ত্রাসী হামলা পটুয়াখালী জেলায় সিসি ক্যামেরা কেনার নামে আ.লীগ নেতার গণচাঁদাবাজির অভিযোগ কর বাড়ছে হাঁস-মুরগির খামারিদের করমুক্ত আয়ের সীমা বাড়ছে না বাজেট সাকিবে লড়াই বাংলাদেশের ৩৫বছরের পুরনো বসতভিটায় অবস্থানকারীদের নোটিশবিহীন উচ্ছেদেসময় বাড়ানোসহ পুর্নবাসনে মানববন্ধন বলেছিলেন ঘরে ঘরে চাকরি দেবেন দিয়েছেন মামলা- ঠাকুরগাঁওয়ে শামসুজ্জামান দুদু

মহিপুরে ভূমি অফিসের পাশের খাপড়াভাঙ্গা নদী দখল চলছে ফ্রি-স্টাইলে

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১২ এপ্রিল, ২০২১, ১১.১৩ পূর্বাহ্ণ
  • ৯৭ বার পঠিত

কলাপাড়া, পটুয়াখালী ॥

ফ্রি-স্টাইলে দখল দৌরাত্ম্যের কারণে খাপড়াভাঙ্গা নদীটি এখন অস্তিত্ব সঙ্কটে পড়েছে। কোন ধরনের রাখ-ঢাক নেই। সবকিছু লঙ্ঘন করে নদীর মধ্য্যে গাইড ওয়াল করে দখল করা হয়েছে। মহিপুর ভূমি অফিসের দুই শ’ গজ দূরত্বে এই দখল তান্ডব চললেও তারা রয়েছেন নির্বিকার। তাঁদের কোন ভূমিকা নেই এ নদী রক্ষায়। গভীর সমুদ্রগামী দূর্যোগকালীন জেলেদের একমাত্র আশ্রয়স্থল ১৭কিলোমিটার দীর্ঘ এই নদীকে কেউ কেউ শিববাড়িয়ার চ্যানেলও বলে আসছেন।

এ নদীর আলীপুর-মহিপুর এবং চাপলী, লক্ষ্মীরবাজার এলাকায় তীর দখল করে বহু স্থাপনা তোলা হয়েছে। এখন মহিপুরে নদীতে গাইড ওয়াল করা হয়েছে। চলমান রয়েছে এই দখল প্রক্রিয়া। সরকার এই নদী পুণর্খননের জন্য পরিকল্পনা করেছে। কয়েকদফা সমীক্ষা চালানো হয়েছে। অথচ দখল দৌরাত্ম্য কোন কিছুতেই থামছেনা। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে মহিপুর ভূমি প্রশাসনের এসব দেখভালের কোন দায়িত্ব নেই। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিভিন্ন সময় নদী দখলদারদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান অভিযানে বিভিন্ন দন্ড দিয়ে আসছেন। কিন্তু ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (তহশীলদারগণ) এসব মনিটরিং কিংবা উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করছেন না। করছেন না দখলদারদের আপডেট তালিকা। এমনকি এদের বিরুদ্ধে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়ার নির্দেশনা থাকলেও তারা চুপচাপ থাকছেন। আবার মহিপুর ভূমি অফিসের তহশিলদারের এসব দখল-দৌরাত্ম্যের সঙ্গে যোগসাজশের অভিযোগও উঠেছে। কারন মহিপুর বন্দরের পুকুরসহ খাপড়াভাঙ্গা নদী দখলতান্ডব চললেও তিনি নীরব থাকছেন। দর্শক হয়ে আছেন। পরিবেশ কর্মীরা এসব দখলদার উচ্ছেদ করে নদী রক্ষার আবেদন করেছেন। উপজেলা নদী রক্ষা কমিটির সভাপতি ও কলাপাড়ার ইউএনও আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহিদুল হক জানান, প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশনা দেয়া আছে। শীঘ্রই এসব দখলদার উচ্ছেদ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazarsomoyer14
M/s,National,Somoyerkontha website:-DailySomoyerkontha.com