ঢাকা ০৬:৫৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩
সংবাদ শিরোনাম ::
ভারতবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে শহীদ পরিবারের পাশে থাকার আহবান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী হোমনায় ইয়াবা ব্যবসায়ী,সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজিদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন লামা বনবিভাগের সাড়াশি ৯ টি ব্রীকফিল্ডের প্রায় ৯ হাজার ঘনফুট গাছ জব্দ বর্তমান সরকার উন্নয়ন বান্ধব সরকার এই সরকারের সময় গ্রামীণ অবকাঠামোয় ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে বাশিস পীরগঞ্জ শাখার নবনির্বাচিতদের শপথ পাঠ করা হয়েছে খুলনা নগরের-খাঁন এ সবুর রোড-(আপার যশোর রোড)-এ-চলছে-রাস্তা সম্পসারনের কাজ রাঙামাটিতে উপজাতীয় সন্ত্রাসীদের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে নিহত-১ সন্দ্বীপের বানীরহাটে একরাতে ১৮দোকান চুরি মেট্রোপলিটন পুলিশ (ট্রাফিক) বন্দর বিভাগের আয়োজনে সচেতনতামূলক সভা তারাকান্দায় গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী জন্মদিন উদযাপন

আশুলিয়ায় পল্লীমঙ্গল সমবায় সমিতি র অফিস ভাংচুর থানায় অভিযোগ

আশুলিয়া থানার,আশুলিয়া ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড রুস্তুম পুর এলাকায় পল্লীমঙ্গল সমবায় সমিতির অফিস ভাংচুর।

গত ২১ ই জানুয়ারী রাত ১১ টায় ১০ থেকে ১৫ জন সন্ত্রাসী অফিসে থাকা আসবাবপত্র গুড়িয়ে দিয়েছেন।(১)মফিজ উদ্দিন দেওয়ান(৫০) পিতা মৃত নুরমোহাম্মাদ দেওয়ান (২)সালাউদ্দিন দোওয়ান(৫২)পিতা মৃত মস্তান আলী দেওয়ান(৩)রফিক মিয়া(৬৫)পিতা মৃত সফুর উদ্দিন(৪)সবুর উদ্দিন দেওয়ান(৪৮)পিতা মৃত মালেক দেওয়ান(৫)নিধন রাজবংশী (৪৭) পিতা লাল চান মন্ডল(৬) জালাল দেওয়ান(৬২)পিতা মৃত রমজান দেওয়ান(৭) নওয়াব হোসেন(৫১) পিতা মৃত আবেদ আলী দেওয়ান(৮)পবিত্র মন্ডল (৪৭) পিতা লালচান মন্ডল ও অজ্ঞাতনামা ৭ থেকে ৮ জন।

পরিকল্পিত ভাবে,রাম দা,বাঁশের লাঠি,লোহার রড,ও দেশীয় অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জীত হয়ে,পল্লীমঙ্গল সমবায় সমিতির অফিস ভাংচুর করছেন।উক্ত অফিস ভাংচুর এর বিষয়ে ২২ শে জানুয়ারী পল্লীমঙ্গল সমবায় সমিতির সম্পাদক,বিজয় গোপাল শাহা বাদী হয়ে,আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

তিনি তার অভিযোগে উল্লেখ করেন অফিসে থাকা আসবাবপত্র ভাংচুর,ছবি ভাংচুর,সাইনবোর্ড,ব্যানার ভাংচুর সহ ক্ষতি সাধন হয়েছে প্রায় অর্ধ লক্ষ টাকার।অফিস কতৃপক্ষরা চায় ক্ষতিপুরন সহ সন্ত্রাসীদের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির।

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার এস আই নুর খাঁন এর সাথে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন,অফিস ভাংচুর এর বিষয়ে একটি অভিযোগ হাতে পেয়েছি,তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।এলাকবাসী বলেন এক সমিতি আর এক সমতি কে বিনিষ্ট করতে এমন জঘন্যতম মর্মান্তিক ঘটনা ঘটিয়েছে।পপর্যবেক্ষণে আরো জানাযায় অভিযুক্তরা বিগতদিনে বিরোধী দল জামাত বি এন পির প্রেতাত্মা হয়ে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করেছে।তারা একাধিক মামলার আসামী ।বিষয়টি তদন্ত পূর্বক আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করতে প্রশাসনের আশুহস্থক্ষেপ কামনা করেন এলাকবাসী ও সুধীসমাজ।

আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ভারতবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে শহীদ পরিবারের পাশে থাকার আহবান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

আশুলিয়ায় পল্লীমঙ্গল সমবায় সমিতি র অফিস ভাংচুর থানায় অভিযোগ

আপডেট টাইম : ১২:১৪:৫৫ অপরাহ্ণ, মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২৩

আশুলিয়া থানার,আশুলিয়া ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড রুস্তুম পুর এলাকায় পল্লীমঙ্গল সমবায় সমিতির অফিস ভাংচুর।

গত ২১ ই জানুয়ারী রাত ১১ টায় ১০ থেকে ১৫ জন সন্ত্রাসী অফিসে থাকা আসবাবপত্র গুড়িয়ে দিয়েছেন।(১)মফিজ উদ্দিন দেওয়ান(৫০) পিতা মৃত নুরমোহাম্মাদ দেওয়ান (২)সালাউদ্দিন দোওয়ান(৫২)পিতা মৃত মস্তান আলী দেওয়ান(৩)রফিক মিয়া(৬৫)পিতা মৃত সফুর উদ্দিন(৪)সবুর উদ্দিন দেওয়ান(৪৮)পিতা মৃত মালেক দেওয়ান(৫)নিধন রাজবংশী (৪৭) পিতা লাল চান মন্ডল(৬) জালাল দেওয়ান(৬২)পিতা মৃত রমজান দেওয়ান(৭) নওয়াব হোসেন(৫১) পিতা মৃত আবেদ আলী দেওয়ান(৮)পবিত্র মন্ডল (৪৭) পিতা লালচান মন্ডল ও অজ্ঞাতনামা ৭ থেকে ৮ জন।

পরিকল্পিত ভাবে,রাম দা,বাঁশের লাঠি,লোহার রড,ও দেশীয় অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জীত হয়ে,পল্লীমঙ্গল সমবায় সমিতির অফিস ভাংচুর করছেন।উক্ত অফিস ভাংচুর এর বিষয়ে ২২ শে জানুয়ারী পল্লীমঙ্গল সমবায় সমিতির সম্পাদক,বিজয় গোপাল শাহা বাদী হয়ে,আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

তিনি তার অভিযোগে উল্লেখ করেন অফিসে থাকা আসবাবপত্র ভাংচুর,ছবি ভাংচুর,সাইনবোর্ড,ব্যানার ভাংচুর সহ ক্ষতি সাধন হয়েছে প্রায় অর্ধ লক্ষ টাকার।অফিস কতৃপক্ষরা চায় ক্ষতিপুরন সহ সন্ত্রাসীদের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির।

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার এস আই নুর খাঁন এর সাথে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন,অফিস ভাংচুর এর বিষয়ে একটি অভিযোগ হাতে পেয়েছি,তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।এলাকবাসী বলেন এক সমিতি আর এক সমতি কে বিনিষ্ট করতে এমন জঘন্যতম মর্মান্তিক ঘটনা ঘটিয়েছে।পপর্যবেক্ষণে আরো জানাযায় অভিযুক্তরা বিগতদিনে বিরোধী দল জামাত বি এন পির প্রেতাত্মা হয়ে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করেছে।তারা একাধিক মামলার আসামী ।বিষয়টি তদন্ত পূর্বক আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করতে প্রশাসনের আশুহস্থক্ষেপ কামনা করেন এলাকবাসী ও সুধীসমাজ।