ঢাকা ০৪:৪৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
কোটা সংস্কারের পক্ষে সরকার নীতিগতভাবে একমত: আইনমন্ত্রী ঘোষণার পর মানছেন না কোটা আন্দোলনকারীরা আমার ভাইদের ফেরত দেওয়া হোক আগে রায়পুরে বালু উত্তোলনে ভাঙন আতঙ্ক সরকারের কাছ থেকে দৃশ্যমান পদক্ষেপ ও সমাধানের পথ তৈরির প্রত্যাশা করে বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন শনির আখড়া-যাত্রাবাড়ী সড়কে চলছে সংঘর্ষ, যান চলালাচল অচল করে দিচ্ছেন ফেসবুক লাইভে এসে পদত্যাগের ঘোষণা ছাত্রলীগ নেতার উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত কমপ্লিট শাটডাউন ঢাকার সঙ্গে সব জেলার যোগাযোগ বন্ধ, টার্মিনাল থেকে ছাড়ছে না কোনো বাস ফুলবাড়ীর দৌলতপুর ইউনিয়নে গরু চুরির হিড়িক দেশবাসীর প্রতি মির্জা ফখরুলের আহ্বান, শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঢাবি, ৬টার মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশ

বেকারত্বকে ঘৃণা করি- আসুন আমরা কর্ম করি

সময়ের কন্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : ০৪:২০:০৮ অপরাহ্ণ, বৃহস্পতিবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২
  • / ৩৮৮ ৫০০.০০০ বার পাঠক

শরীফ উদ্দিন আহমেদ রানা।।
দেশের মানুষ আর অবহেলিত থাকবে না- যদি কর্ম করে- বেকারত্বকে দূর করে। চাকুরীর পেছনে না ছুটে- কাজের ক্ষেত্র তৈরি করে। নিজেই একটি পরিকল্পনা করে- উদ্যোক্তা হয়। উদ্যোগ নেন-নতুন ফলদায়ক কিছু করার। এতে আপনি স্বাবলম্বী হবেন- স্বাবলম্বী হবে আপনার পরিবার ও দেশ। এই দেশ আমার আপনার সকলের-আসুন দেশকে ভালবাসি। প্রয়োজনে- আর্থিক অস্বচ্ছলতা থাকলে- গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের- যুব উন্নয়ন, সমাজসেবা, বিসিক, কারিগরি ও অন্যান্য সেক্টর হতে ট্রেনিং নিয়ে সার্টিফিকেট ও ঋণ নেন। উক্ত সংস্থাগুলো সহজ শর্তে ঋণ দিচ্ছে-উদ্যোক্তাদের মাঝে। এতে অংশ নিতে পারেন অনেকেই। নিজের বাড়ীতে-নার্সারী বানাতে পারেন-যা উপকৃত করবে অনেককে। মৎস্য চাষেও অনেক অর্থ উপার্জন করা যায়। যারা গ্রামে থাকেন-তারা স্থানীয় ইউনিয়ন কার্যালয় ও যারা পৌরসভা, সিটিতে থাকেন তারা-স্থানীয় পৌরসভা কার্যালয় ও সিটি কার্যালয় হতে সরকারি সেবা-সমূহ নিজ উদ্যোগে-আদায় করে নিবেন। এতে আপনার দেশপ্রেম বৃদ্ধি পাবে ও দেশের অর্থনৈতিক চাকা আরো বেশি সচল হবে।
আরো খবর.......

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বেকারত্বকে ঘৃণা করি- আসুন আমরা কর্ম করি

আপডেট টাইম : ০৪:২০:০৮ অপরাহ্ণ, বৃহস্পতিবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২
শরীফ উদ্দিন আহমেদ রানা।।
দেশের মানুষ আর অবহেলিত থাকবে না- যদি কর্ম করে- বেকারত্বকে দূর করে। চাকুরীর পেছনে না ছুটে- কাজের ক্ষেত্র তৈরি করে। নিজেই একটি পরিকল্পনা করে- উদ্যোক্তা হয়। উদ্যোগ নেন-নতুন ফলদায়ক কিছু করার। এতে আপনি স্বাবলম্বী হবেন- স্বাবলম্বী হবে আপনার পরিবার ও দেশ। এই দেশ আমার আপনার সকলের-আসুন দেশকে ভালবাসি। প্রয়োজনে- আর্থিক অস্বচ্ছলতা থাকলে- গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের- যুব উন্নয়ন, সমাজসেবা, বিসিক, কারিগরি ও অন্যান্য সেক্টর হতে ট্রেনিং নিয়ে সার্টিফিকেট ও ঋণ নেন। উক্ত সংস্থাগুলো সহজ শর্তে ঋণ দিচ্ছে-উদ্যোক্তাদের মাঝে। এতে অংশ নিতে পারেন অনেকেই। নিজের বাড়ীতে-নার্সারী বানাতে পারেন-যা উপকৃত করবে অনেককে। মৎস্য চাষেও অনেক অর্থ উপার্জন করা যায়। যারা গ্রামে থাকেন-তারা স্থানীয় ইউনিয়ন কার্যালয় ও যারা পৌরসভা, সিটিতে থাকেন তারা-স্থানীয় পৌরসভা কার্যালয় ও সিটি কার্যালয় হতে সরকারি সেবা-সমূহ নিজ উদ্যোগে-আদায় করে নিবেন। এতে আপনার দেশপ্রেম বৃদ্ধি পাবে ও দেশের অর্থনৈতিক চাকা আরো বেশি সচল হবে।