ঢাকা ০৭:০৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
মোংলায় দারুল আমীন নূরানী মাদ্রাসার আয়োজনে ১ম বার্ষিক ক্রীড়া সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত ময়মনসিংহ ডিবি পুলিশের অভিযানে ২৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার-০১ ফুলপুরে ৮ বোতল বিদেশি মদ সহ এক মাদক কারবারী আটক নওগাঁর মহাদেবপুর এ ২০০ বছরের পুরাতন মসজিদের সন্ধান মিলেছে জামালপুরের রানীগঞ্জ বাজার ঐতিহ্য হারিয়ে ফেলেছে পানি নিস্কাশনের রাস্তা বন্ধ করে পুকুর নির্মানের কারনে প্রায় শত বিঘা ফসলী জমি পানির নীচে ইবি শিক্ষার্থীকে গলাটিপে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে তদন্ত কমিটি গঠন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় বেগম জাহানারা হান্নান উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩য় বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্টিত জামালপুরে ভেজাল কীটনাশকে বাজার সয়লাব, কৃষি শিল্প ধ্বংসের পাঁয়তারা মোংলায় সিবিএ নির্বাচন নিয়ে শ্রমিক-কর্মচারীদের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে

মমতা মুখ্যমন্ত্রী না হলে নুসরাত কি এত সুবিধা পেতেন?

  • সময়ের কন্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : ১০:২৪:১২ পূর্বাহ্ণ, মঙ্গলবার, ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • ২০৬ ০.০০০ বার পাঠক

আন্তর্জাতিক রিপোর্ট।।

হিন্দি ধারাবাহিক ‘রিস্তো কা মাঞ্ঝা’তে অভিনয় করছেন ভরত কল। সেখানে তিনি নায়ক চরিত্রে থাকা ক্রুশল আহুজার বাবা। বলিউডের প্রজেক্ট হলেও কলকাতায় বসেই এটির কাজ চলছে। ধুতি, পাঞ্জাবি, উত্তরীয়তে পাক্কা বাঙালিবাবু সেজে অভিনয় করছেন তিনি।

সম্প্রতি আনন্দবাজার পত্রিকাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে কথা বলেছেন বর্ষীয়ান এ অভিনেতা। এমনকি বিতর্কিত অভিনেত্রী তৃণমূলের সংসদ সদস্য নুসরাত জাহানের হয়েও মুখ খুললেন তিনি।

সক্রিয়ভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেওয়া নিয়ে ভরত কলে সমালোচনা রয়েছে। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন— নির্বাচনে মনোনয়ন পেতে ক্ষমতার আশাতেই কি এভাবে রাজনীতিতে যোগদান।

সে প্রসঙ্গে নিজের দেওয়া সাক্ষাৎকারে ভরত জানান, ‘আমার দাদু-বাবা আজীবন কংগ্রেস করতেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কংগ্রেস থেকে সরে আসার পর ওই দলের আর কোনো ভবিষ্যৎ নেই। দিদির জন্যই আমি সক্রিয়ভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে।’

তৃণমূল কংগ্রেসকে সমর্থন করা নিয়ে সমালোচনাকারীদের উদ্দেশে প্রশ্ন তুলেছেন এ অভিনেতা। তিনি বলেন, বাম-কংগ্রেস ও ইন্ডিয়ান স্যাকুলার ফ্রন্টের জোটে তৈরি ‘সমুক্ত মোর্চা’ কি মুখ্যমন্ত্রীর মতো উদার হতো কখনও?

নুসরাত জাহানকে নিয়ে আব্বাস সিদ্দিকীকে বলতে শোনা গিয়েছিল, ‘মুসলিম হয়ে ছবিতে অভিনয় করছেন। তাকে বেঁধে মারা উচিত!’

এ প্রসঙ্গ টেনে এনে ভরত বলেন, ‘২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রী বদল হলে নুসরাত এবং তার মতো বাকিরা এই স্বাধীনতা পেতেন?’

যদিও নুসরাতের বলা ‘নিখিলের সঙ্গে বিয়ে অবৈধ’ নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি ভরত। জানিয়েছেন বিষয়টি আদালতে বিচারাধীন। তাই সে নিয়ে তিনি কোনো কথা বলতে চান না।

তবে নুসরাতের সন্তানের বাবা কে বা নুসরাত কার সঙ্গে থাকছেন, সেটি নিয়ে সবার এত মাথাব্যথার সমালোচনা করতে দেখা যায় তাকে।

ভরত বলেন, ‘নুসরাত কার সঙ্গে মিশবেন, থাকবেন, কার সন্তান ধারণ করবেন, সন্তানের পিতৃপরিচয় দেবেন কি দেবেন না- সম্পূর্ণ তার ব্যাপার। কেন আমি তার ব্যক্তিগত বিষয়ে নাক গলাতে যাব?’

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

মোংলায় দারুল আমীন নূরানী মাদ্রাসার আয়োজনে ১ম বার্ষিক ক্রীড়া সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

মমতা মুখ্যমন্ত্রী না হলে নুসরাত কি এত সুবিধা পেতেন?

আপডেট টাইম : ১০:২৪:১২ পূর্বাহ্ণ, মঙ্গলবার, ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

আন্তর্জাতিক রিপোর্ট।।

হিন্দি ধারাবাহিক ‘রিস্তো কা মাঞ্ঝা’তে অভিনয় করছেন ভরত কল। সেখানে তিনি নায়ক চরিত্রে থাকা ক্রুশল আহুজার বাবা। বলিউডের প্রজেক্ট হলেও কলকাতায় বসেই এটির কাজ চলছে। ধুতি, পাঞ্জাবি, উত্তরীয়তে পাক্কা বাঙালিবাবু সেজে অভিনয় করছেন তিনি।

সম্প্রতি আনন্দবাজার পত্রিকাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে কথা বলেছেন বর্ষীয়ান এ অভিনেতা। এমনকি বিতর্কিত অভিনেত্রী তৃণমূলের সংসদ সদস্য নুসরাত জাহানের হয়েও মুখ খুললেন তিনি।

সক্রিয়ভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেওয়া নিয়ে ভরত কলে সমালোচনা রয়েছে। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন— নির্বাচনে মনোনয়ন পেতে ক্ষমতার আশাতেই কি এভাবে রাজনীতিতে যোগদান।

সে প্রসঙ্গে নিজের দেওয়া সাক্ষাৎকারে ভরত জানান, ‘আমার দাদু-বাবা আজীবন কংগ্রেস করতেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কংগ্রেস থেকে সরে আসার পর ওই দলের আর কোনো ভবিষ্যৎ নেই। দিদির জন্যই আমি সক্রিয়ভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে।’

তৃণমূল কংগ্রেসকে সমর্থন করা নিয়ে সমালোচনাকারীদের উদ্দেশে প্রশ্ন তুলেছেন এ অভিনেতা। তিনি বলেন, বাম-কংগ্রেস ও ইন্ডিয়ান স্যাকুলার ফ্রন্টের জোটে তৈরি ‘সমুক্ত মোর্চা’ কি মুখ্যমন্ত্রীর মতো উদার হতো কখনও?

নুসরাত জাহানকে নিয়ে আব্বাস সিদ্দিকীকে বলতে শোনা গিয়েছিল, ‘মুসলিম হয়ে ছবিতে অভিনয় করছেন। তাকে বেঁধে মারা উচিত!’

এ প্রসঙ্গ টেনে এনে ভরত বলেন, ‘২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রী বদল হলে নুসরাত এবং তার মতো বাকিরা এই স্বাধীনতা পেতেন?’

যদিও নুসরাতের বলা ‘নিখিলের সঙ্গে বিয়ে অবৈধ’ নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি ভরত। জানিয়েছেন বিষয়টি আদালতে বিচারাধীন। তাই সে নিয়ে তিনি কোনো কথা বলতে চান না।

তবে নুসরাতের সন্তানের বাবা কে বা নুসরাত কার সঙ্গে থাকছেন, সেটি নিয়ে সবার এত মাথাব্যথার সমালোচনা করতে দেখা যায় তাকে।

ভরত বলেন, ‘নুসরাত কার সঙ্গে মিশবেন, থাকবেন, কার সন্তান ধারণ করবেন, সন্তানের পিতৃপরিচয় দেবেন কি দেবেন না- সম্পূর্ণ তার ব্যাপার। কেন আমি তার ব্যক্তিগত বিষয়ে নাক গলাতে যাব?’