ঢাকা ০৮:১৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে বেহাল সড়ক পাকাকরণের দাবিতে মানববন্ধন  

কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধি।।

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে দীর্ঘদিন ধরে চলাচলের অনুপযুক্ত সড়ক পাকাকরণের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে দুর্ভোগ কবলিত এলাকাবাসী।
বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলার রায়গঞ্জ ইউনিয়নের সাপখাওয়া চৌরাস্তায় ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করা হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন মো. আবুল হোসেন, আবু সায়েম, ডা. শেখ মো. নুর ইসলাম, হাফিজুর রহমান হ্নদয়, মিজানুর রহমান মিজান প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, নাগেশ্বরী পৌরসভার মধুরহাইল্যা থেকে রায়গঞ্জ ইউনিয়নের সাপখাওয়া-রতনপুর পর্যন্ত পাকা সড়কটি এখন চেনার উপায় নেই। খানাখন্দে ভরে যাওয়ায় গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটি দিয়ে কৃষিপণ্য পরিবহণ, মূমুর্ষ ও প্রসূতি রোগীদের চলাচল করা ঝুকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। প্রায়ই যাত্রীসহ ঘটছে দুর্ঘটনা। বেহাল এই সড়ক মেরামতে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে একাধিকবার আবেদন-নিবেদন করেও কোন সুরাহা হচ্ছে না। এতে প্রতিদিন হাজার-হাজার মানুষ দুর্ভোগের মধ্যে এই সড়কে যাতায়াত করছে। দ্রুত এই সড়কটি পাকাকরণ না করা হলে এলাকাবাসী পরবর্তীতে কঠোর আন্দোলন করবেন বলে ঘোষণা দেন।

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে বেহাল সড়ক পাকাকরণের দাবিতে মানববন্ধন  

আপডেট টাইম : ০২:২৮:৫৯ অপরাহ্ণ, বুধবার, ১১ আগস্ট ২০২১

কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধি।।

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে দীর্ঘদিন ধরে চলাচলের অনুপযুক্ত সড়ক পাকাকরণের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে দুর্ভোগ কবলিত এলাকাবাসী।
বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলার রায়গঞ্জ ইউনিয়নের সাপখাওয়া চৌরাস্তায় ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করা হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন মো. আবুল হোসেন, আবু সায়েম, ডা. শেখ মো. নুর ইসলাম, হাফিজুর রহমান হ্নদয়, মিজানুর রহমান মিজান প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, নাগেশ্বরী পৌরসভার মধুরহাইল্যা থেকে রায়গঞ্জ ইউনিয়নের সাপখাওয়া-রতনপুর পর্যন্ত পাকা সড়কটি এখন চেনার উপায় নেই। খানাখন্দে ভরে যাওয়ায় গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটি দিয়ে কৃষিপণ্য পরিবহণ, মূমুর্ষ ও প্রসূতি রোগীদের চলাচল করা ঝুকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। প্রায়ই যাত্রীসহ ঘটছে দুর্ঘটনা। বেহাল এই সড়ক মেরামতে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে একাধিকবার আবেদন-নিবেদন করেও কোন সুরাহা হচ্ছে না। এতে প্রতিদিন হাজার-হাজার মানুষ দুর্ভোগের মধ্যে এই সড়কে যাতায়াত করছে। দ্রুত এই সড়কটি পাকাকরণ না করা হলে এলাকাবাসী পরবর্তীতে কঠোর আন্দোলন করবেন বলে ঘোষণা দেন।