ঢাকা ১২:৩০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২
সংবাদ শিরোনাম ::
নান্দাইলে বিদ্যুৎপৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু বাংলাদেশী তৈরি টুটু পিস্তল,চাইনিজ কুড়াল ৫০০ গ্রাম গাঁজা সহ ০৪ জন কিশোর গ্যাং এর সদস্য গ্রেফতার বাগেরহাট জেলার মোরেলগঞ্জে মটরসাইকেল চালককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা, ছেলের অবস্থা আশঙ্কাজনক নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ এর মিজমিজি এলাকায় বৈধ গ্যাস লাইন পুনঃ সংযোগ এর দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন মোংলায় ২৮৪ জন বনদস্যুকে ঈদ উপহার দিলো র‌্যাব-৮ লক্ষ্মীপুরে টাকা আত্মসাতের মামলায় চেয়ারম্যান কারাগারে লক্ষ্মীপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বীজ ব্যবসায়ীর জরিমানা কুয়াকাটা সৈকতে পদ্মার ঢেউ, পর্যটকরা এখন দক্ষিণমুখী নিজ প্রতিভার বিকাশ ঘটিয়ে দর্শকদের দৃষ্টি কেড়েছে ৩য় শ্রেণির ছাত্রী লাবিবা ৮৫কেজি গাঁজা সহ আটক ০২ মাদক ব্যবসায়ী আটক

শীতে পায়ের যত্ন নিবেন যেভাবে

লাইফ স্টাইল।।।

শীতে পা-দুটিকে সুন্দর রাখতে চাই একটু বাড়তি যত্ন। এ সময় বাইরে অনেক ধুলাবালি থাকে তাই বাইরে থেকে ফেরার পর কুসুম গরম পানিতে লেবুর রস ও এক চিমটি লবণ মিশিয়ে ১০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন।

এরপর হালকা ভেজা অবস্থায় ময়েশ্চারাইজার মাখুন। গোসলের সময় তেল ও পানি ব্যবহার করে ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখা সম্ভব। গোসলের আগে পায়ে তেল মাখুন। ত্বক নরম থাকবে। তিলের তেল বা যে কোনো ভেজিটেবল অয়েল ব্যবহার করতে পারেন। শীতের সময় সরষের তেল ত্বকের পক্ষে ভালো। সারা বছর পায়ের যত্নে তিলের তেল বেশ উপকারী। ম্যাসাজের আগে অল্প তেল গরম করে ব্যবহার করুন। গোসলের আগে টার্মারিক ক্রিম ম্যাসাজ করুন।

ত্বক নরম হবে। ত্বকের কালো ভাব দূর হবে। গোসলের সময় সাবান ব্যবহার করলে বা গোসলের পানিতে ক্লোরিন থাকলে এই ক্রিম ত্বক নরম রাখতে সাহায্য করে। হলুদের মধ্যে অ্যান্টিসেপটিক উপাদান আছে তাই ত্বকে ইনফেকশন হওয়ার আশঙ্কা কম থাকে। ঘরোয়া উপায়ে বেসনের সাথে অল্প দুধ বা দই, হলুদ পেস্ট লাগিয়ে রাখুন। তারপর ভেজা হাতে আস্তে আস্তে মিশ্রণটি পায়ে ঘষুন। আলাদা করে সাবান ব্যবহার করার দরকার নেই। বেসনের এই মিশ্রণ ভালো ক্লিনজারের কাজ করে। পায়ে রুক্ষভাব কমানোর জন্য অল্প গোলাপজলের মধ্যে এক চামচ গ্লিসারিন দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। গোসলের পর ভেজা পায়ে বডি লোশন বা ক্রিম লাগান, ত্বকের ময়েশ্চার বজায় থাকবে। ভিটামিন ই-সমৃদ্ধ লোশনও মাখতে পারেন। আমন্ড তেল ও অলিভ তেল মিশিয়ে পায়ের পাতায় মাখুন। ভালো ক্রিম দিয়ে ম্যাসাজ করুন। গোঁড়ালিতে ক্রিম লাগান। তুলা বা পরিষ্কার কাপড় গোঁড়ালিতে ব্যান্ডেজ করুন। শুতে যাওয়ার আগে সুতির মোজা পরুন। ক্রিমের বদলে তেলও ব্যবহার করতে পারেন। পেট্রোলিয়াম জেলির সাথে লেবুর রস মিশিয়ে পা ফাটার ওপর লাগান। পায়ের জন্য আরামদায়ক জুতা পরুন।

প্রতি সপ্তাহে অন্তত একদিন ঘরে বসেই পেডিকিওর করুন। রাতে শোওয়ার আগে উষ্ণ গরম পানিতে শ্যাম্পু ও লবণ মিশিয়ে ২০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন। রোদে পোড়া পায়ের কালো দাগ দূর করতে পেডিকিওরের পর কচি শসার রস মাখুন। পায়ের ছোপ ছোপ দাগ দূর করতে মুলার রস মালিস করতে পারেন। তার আগে পা গরম পানিতে কিছুক্ষণ ঘষতে পারেন।

জাতীয় আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

নান্দাইলে বিদ্যুৎপৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু

শীতে পায়ের যত্ন নিবেন যেভাবে

আপডেট টাইম : ০৬:১৪:৫৮ অপরাহ্ণ, মঙ্গলবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২০

লাইফ স্টাইল।।।

শীতে পা-দুটিকে সুন্দর রাখতে চাই একটু বাড়তি যত্ন। এ সময় বাইরে অনেক ধুলাবালি থাকে তাই বাইরে থেকে ফেরার পর কুসুম গরম পানিতে লেবুর রস ও এক চিমটি লবণ মিশিয়ে ১০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন।

এরপর হালকা ভেজা অবস্থায় ময়েশ্চারাইজার মাখুন। গোসলের সময় তেল ও পানি ব্যবহার করে ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখা সম্ভব। গোসলের আগে পায়ে তেল মাখুন। ত্বক নরম থাকবে। তিলের তেল বা যে কোনো ভেজিটেবল অয়েল ব্যবহার করতে পারেন। শীতের সময় সরষের তেল ত্বকের পক্ষে ভালো। সারা বছর পায়ের যত্নে তিলের তেল বেশ উপকারী। ম্যাসাজের আগে অল্প তেল গরম করে ব্যবহার করুন। গোসলের আগে টার্মারিক ক্রিম ম্যাসাজ করুন।

ত্বক নরম হবে। ত্বকের কালো ভাব দূর হবে। গোসলের সময় সাবান ব্যবহার করলে বা গোসলের পানিতে ক্লোরিন থাকলে এই ক্রিম ত্বক নরম রাখতে সাহায্য করে। হলুদের মধ্যে অ্যান্টিসেপটিক উপাদান আছে তাই ত্বকে ইনফেকশন হওয়ার আশঙ্কা কম থাকে। ঘরোয়া উপায়ে বেসনের সাথে অল্প দুধ বা দই, হলুদ পেস্ট লাগিয়ে রাখুন। তারপর ভেজা হাতে আস্তে আস্তে মিশ্রণটি পায়ে ঘষুন। আলাদা করে সাবান ব্যবহার করার দরকার নেই। বেসনের এই মিশ্রণ ভালো ক্লিনজারের কাজ করে। পায়ে রুক্ষভাব কমানোর জন্য অল্প গোলাপজলের মধ্যে এক চামচ গ্লিসারিন দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। গোসলের পর ভেজা পায়ে বডি লোশন বা ক্রিম লাগান, ত্বকের ময়েশ্চার বজায় থাকবে। ভিটামিন ই-সমৃদ্ধ লোশনও মাখতে পারেন। আমন্ড তেল ও অলিভ তেল মিশিয়ে পায়ের পাতায় মাখুন। ভালো ক্রিম দিয়ে ম্যাসাজ করুন। গোঁড়ালিতে ক্রিম লাগান। তুলা বা পরিষ্কার কাপড় গোঁড়ালিতে ব্যান্ডেজ করুন। শুতে যাওয়ার আগে সুতির মোজা পরুন। ক্রিমের বদলে তেলও ব্যবহার করতে পারেন। পেট্রোলিয়াম জেলির সাথে লেবুর রস মিশিয়ে পা ফাটার ওপর লাগান। পায়ের জন্য আরামদায়ক জুতা পরুন।

প্রতি সপ্তাহে অন্তত একদিন ঘরে বসেই পেডিকিওর করুন। রাতে শোওয়ার আগে উষ্ণ গরম পানিতে শ্যাম্পু ও লবণ মিশিয়ে ২০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন। রোদে পোড়া পায়ের কালো দাগ দূর করতে পেডিকিওরের পর কচি শসার রস মাখুন। পায়ের ছোপ ছোপ দাগ দূর করতে মুলার রস মালিস করতে পারেন। তার আগে পা গরম পানিতে কিছুক্ষণ ঘষতে পারেন।