ঢাকা ০৪:২৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২
সংবাদ শিরোনাম ::
জমির লোভে বাবা ও পরিবারের উপর হামলা বিএনপি-জামাত জোট সরকারের শাসনামলে দেশব্যপী সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে কিশোরগঞ্জের ভৈরবে বিক্ষোভ সমাবেশ করা হয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর থেকে ১২৬ বোতল ফেন্সিডিল‘সহ ০১ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক জাতীয় শোক দিবসে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচি পালন আজ সরকারি দলীয় বিক্ষোভ সমাবেস আর একে কেন্দ্র করে চলছে বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের চাঁদাবাজির অভিযোগ যাত্রীদের ১৭ই আগাস্ট বিএনপি জামায়াতের বোমা হামলার প্রতিবাদে আ.লীগের বিক্ষোভ সমাবেশ কালিয়াকৈরে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেবার কারনে স্কুলে যেতে পারছেনা ৫ শিক্ষার্থী বাসন থানার অভিযান চালিয়ে  ০৫ জন ডাকাত ধারালো অস্ত্রসহ গ্রেফতার গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের বিশেষ অভিযানে অস্ত্রগুলি, মাদকসহ কুখ্যাত মাদক সম্রাজ্ঞী পারুলী বেগম গ্রেফতার সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে তেল চুরির সময় দৌলতখানে আটক ৫ জন

রাজধানীর গুলশানে এসি বিস্ফোরণ॥ দগ্ধ মটরস কর্মকর্তার মৃত্যু

সময়ের কন্ঠ রিপোর্টার।।

রাজধানীর গুলশানে এসি বিস্ফোরণে দগ্ধ উত্তরা মটরসের কর্মকর্তা মেহদাদুর রহমান ডুরান্ড (৫০) মারা গেছেন। গতকাল শুক্রবার (২৫ জুন) দিনগত রাত পৌনে ১টার দিকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

গত ১৯ জুন গুলশানের নিজ বাড়িতে দগ্ধ হন ডুরান্ড। তাঁকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়।

ইনস্টিটিউটের চিকিৎসক ডা. ইমু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ডুরান্ড রহমান উত্তরা মটরসের ডিএমডি ছিলেন। তাঁর বাসায় এসির গোলযোগ থেকে কোনো কারণে আগুনে দগ্ধ হন তিনি। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইনস্টিটিউটে গতকাল শুক্রবার দিনগত রাত পৌনে ১টার দিকে মারা যান তিনি। তাঁর শরীর ৫০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। এছাড়া ইনহেলেশন বার্ন ছিল।

আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

জমির লোভে বাবা ও পরিবারের উপর হামলা

রাজধানীর গুলশানে এসি বিস্ফোরণ॥ দগ্ধ মটরস কর্মকর্তার মৃত্যু

আপডেট টাইম : ০৭:০১:৪৩ পূর্বাহ্ণ, শনিবার, ২৬ জুন ২০২১

সময়ের কন্ঠ রিপোর্টার।।

রাজধানীর গুলশানে এসি বিস্ফোরণে দগ্ধ উত্তরা মটরসের কর্মকর্তা মেহদাদুর রহমান ডুরান্ড (৫০) মারা গেছেন। গতকাল শুক্রবার (২৫ জুন) দিনগত রাত পৌনে ১টার দিকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

গত ১৯ জুন গুলশানের নিজ বাড়িতে দগ্ধ হন ডুরান্ড। তাঁকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়।

ইনস্টিটিউটের চিকিৎসক ডা. ইমু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ডুরান্ড রহমান উত্তরা মটরসের ডিএমডি ছিলেন। তাঁর বাসায় এসির গোলযোগ থেকে কোনো কারণে আগুনে দগ্ধ হন তিনি। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইনস্টিটিউটে গতকাল শুক্রবার দিনগত রাত পৌনে ১টার দিকে মারা যান তিনি। তাঁর শরীর ৫০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। এছাড়া ইনহেলেশন বার্ন ছিল।