1. [email protected] : admi2017 :
রবিবার, ২২ মে ২০২২, ১১:১৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
নোয়াখালীতে প্রকাশ্যে ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা মানব পাচারকারী জহিরুল ইসলামের প্রতারণার শিকার হয়েছে নিরীহ সজল রানা। ৯ মাস যাবত সৌদি আরব কারাগারে আত্রাইয়ে ট্রাক ও মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ নাসিরনগরে ছাগল চুরি করতে গিয়ে জনতার হাতে আটক দুই চোর মান্দায় ১৪নং বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন এ খোর্দ্দ বান্দাই খাড়া দক্ষিণ পাড়া গ্রামের রাস্তা বেহাল দশা অসহায় টাইগার রাকিবের পরিবারের দায়িত্ব নিলেন বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফারজানা সবুর রুমকি ঠাকুরগাঁওয়ে হাইব্রিড মিষ্টি কুমড়ার কৃষক মাঠ দিবস পদ্মা সেতু নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য সরাসরি বেগম জিয়াকে হত্যার হুমকির সামিল- মির্জা ফখরুল বরগুনার অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের সহায়তা দুস্থ্য রোগীকে আর্থিক সহায়তা দিলেন সামাজিক ফান্ড ফুলবাড়ী

থালা বাটি নিয়ে রাস্তায় মোটরসাইকেল চালকরা

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২১, ১১.৫৬ পূর্বাহ্ণ
  • ৯৫ বার পঠিত

সময়ের কন্ঠ রিপোর্টার।।

অ্যাপভিত্তিক রাইড শেয়ারিং সেবা চালুর দাবিতে খালি থালা নিয়ে মোটরসাইকেল চালকরা মানববন্ধন করছেন। তাদের নানা দুর্ভোগ ও কষ্টের কথা তুলে বক্তব্য রাখছেন। ‘হয় অন্নের ব্যবস্থা নয় রাইড শেয়ারিং চালু করতে হবে’- বলে দাবি জানান দেশের তরুণ রাইডারেরা।

আজ রবিবার (৪ এপ্রিল) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে রাস্তায় সকাল থেকে এ মানববন্ধন করছেন তারা। রাইডারদের দাবি বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন। করোনা সংক্রমণরোধে গত বুধবার (৩১ মার্চ) রাইড শেয়ারিং সেবায় মোটরসাইকেলের মাধ্যমে যাত্রী পরিবহনে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।

মানববন্ধনে খালি থালা নিয়ে বসে এ কর্মসূচি পালন করেন মোটরসাইকেল চালকেরা। তারা বলেন, দেশে যখন কর্মসংস্থানের চরম সমস্যার সময়ে দেশের তরুণেরা রাইড শেয়ারিং করে একটা আশার আলো দেখতে পেয়েছিলেন। কোনোরকম খেয়ে পরে বেঁচে ছিলেন। কিন্তু সরকারের হঠকারি সিদ্ধান্ত আবার তাদের পথে বসিয়েছে।

বক্তারা বলেন, বাড়িতে গেলে বাচ্চা কান্না করে জিজ্ঞাসা করে- বাবা চকলেট এনেছো। মা জিজ্ঞাসা করেন ওষুধ এনেছি কি না। কোথায় পাবো ওষুধ, চকলেট আর খাবার কেনার অর্থ।

আমরা তো অন্যায় কিছু করছি না। আমাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে তারপর আমাদের কর্ম কেড়ে নেন। নইলে এমন সিদ্ধান্তে আমাদের নিঃস্ব করে দেবেন না।

সরকারের উদ্দেশ্যে বক্তারা বলেন, করোনার ভয় আমাদেরও আছে। আমরাও নিরাপদে থাকতে চাই। কিন্তু না খেয়ে কি নিরাপদে থাকা যায়? উপার্জন করে জীবিকা নির্বাহ করতে চাই সেটা যদি না করতে দেন তাহলে আমাদের জীবিকা নির্বাহের ব্যবস্থা করে দেন। বন্ধ করার দায়িত্ব নেবেন আর বেঁচে থাকার দায়িত্ব নেবেন না তা হয় না।

বক্তারা বলেন, আমাদের এখন কাজে ব্যস্ত থাকার কথা। কিন্তু পথে বসে নিজেদের দাবি বাস্তবায়নের জন্যে চিৎকার করতে হচ্ছে। পরিবার কীভাবে চালাব, সেই চিন্তায় সময় পার করতে হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazarsomoyer14
M/s,National,Somoyerkontha website:-DailySomoyerkontha.com