ঢাকা ১২:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
জাতীয় ঈদগাহে ঈদের প্রধান জামাতে অংশ নেন হাজারো তাসলিমা স্ত্রীর বিরুদ্ধে লিঙ্গ কাটার অভিযোগে সাংবাদিক সম্মেলন ঈদ উপলক্ষ্যে ঘরমুখী মানুষ ঝুঁকি নিয়ে পিকআপ ট্রাক ও বাসের ছাদে ঢাকা মহানগর পুলিশের দুই কর্মকর্তা বদলি গতকাল শুক্রবার বিকেল চারটায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন আহমেদের গাড়ি্ বহরে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে বিএমপি কাউনিয়া থানার অভিযানে ০৫ কেজি গাঁজাসহ আটক ০১ জন লাব্বাঈক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক’এই ধনীতে প্রকম্পিত আরাফাতের ময়দান ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ১৪ কিলোমিটার যানজট, ধীরগতি সেন্টমার্টিনে যাতায়াত বন্ধের ৮ দিন পর পৌঁছালো খাদ্যপণ্য আরাফার দিনে রোজা রাখার ফজিলত। দুধরচকী

রায়পুরে সেপটিক ট্যাংকে নেমে আবারও দুই যুবকে মৃত্যু

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে সেপটিক ট্যাংকে নেমে দুজন নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। রোববার (২৬ মে) বিকেলে রায়পুর পৌর শহরের ফারুকীয়া মাদ্রাসার সামনে নির্মাণাধীন একটি ভবনের সেপটিক ট্যাংকে নেমে নিহত হয় তারা। নিহত দুজন ছাড়াও ঘটনাস্থল থেকে সাকিব হোসেন (২৩) নামে একজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

নিহত দুই যুবকের নাম কাদের হোসেন (২১), রবিন হোসেন (২৮)। ট্যাংকে নামার পর মৃত সন্দেহে উদ্ধার কাজে নামে রায়পুর ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট লাশগুলো উদ্ধার করে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করে।

নিহত কাদেরের ছোটো ভাই টুটুল (১৬) বলেন, কাদের আমার বড় ভাই তিনি নিহত হয়েছেন। সোহেল কন্ট্রাক্টর আমার ভাইকে নামিয়েছে। ঝুঁকি জেনেও তাদেরকে নামানো হয়েছে। জানা যায়, নিহত কাদেরের বাবার নাম খোরশেদ আলম। রবিনের বাবা জাকির হোসেন পেশায় রিকশা চালক। বাড়িতে থাকাকালীন সময়ে তাদের বিষয়ে জানতে পারেন পরিবারের সদস্যরা।

ফায়ার সার্ভিস জানায়, ঘটনার পর তারা খবর পেয়ে দুজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের মৃত ঘোষণা করে।

নিহত রবিনের বাবা বলেন, আমার ছেলে মারা গেছে। আমার বলার ভাষা নেই। আমি মামলায় যাবো না। অভিযুক্ত সোহেল কন্ট্রাক্টরের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

আরো খবর.......

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

জাতীয় ঈদগাহে ঈদের প্রধান জামাতে অংশ নেন হাজারো

রায়পুরে সেপটিক ট্যাংকে নেমে আবারও দুই যুবকে মৃত্যু

আপডেট টাইম : ০৬:০৪:৫৮ অপরাহ্ণ, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে সেপটিক ট্যাংকে নেমে দুজন নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। রোববার (২৬ মে) বিকেলে রায়পুর পৌর শহরের ফারুকীয়া মাদ্রাসার সামনে নির্মাণাধীন একটি ভবনের সেপটিক ট্যাংকে নেমে নিহত হয় তারা। নিহত দুজন ছাড়াও ঘটনাস্থল থেকে সাকিব হোসেন (২৩) নামে একজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

নিহত দুই যুবকের নাম কাদের হোসেন (২১), রবিন হোসেন (২৮)। ট্যাংকে নামার পর মৃত সন্দেহে উদ্ধার কাজে নামে রায়পুর ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট লাশগুলো উদ্ধার করে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করে।

নিহত কাদেরের ছোটো ভাই টুটুল (১৬) বলেন, কাদের আমার বড় ভাই তিনি নিহত হয়েছেন। সোহেল কন্ট্রাক্টর আমার ভাইকে নামিয়েছে। ঝুঁকি জেনেও তাদেরকে নামানো হয়েছে। জানা যায়, নিহত কাদেরের বাবার নাম খোরশেদ আলম। রবিনের বাবা জাকির হোসেন পেশায় রিকশা চালক। বাড়িতে থাকাকালীন সময়ে তাদের বিষয়ে জানতে পারেন পরিবারের সদস্যরা।

ফায়ার সার্ভিস জানায়, ঘটনার পর তারা খবর পেয়ে দুজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের মৃত ঘোষণা করে।

নিহত রবিনের বাবা বলেন, আমার ছেলে মারা গেছে। আমার বলার ভাষা নেই। আমি মামলায় যাবো না। অভিযুক্ত সোহেল কন্ট্রাক্টরের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।