ঢাকা ০২:১৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
ইসরাইলের বাধা, কুরবানি দিতে পারেননি গাজাবাসীর অনেকেই দলীয় নেতাদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করলেন প্রধানমন্ত্রী কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসে মালগাড়ির ধাক্কা, নিহত ৫ জাতীয় ঈদগাহে ঈদের প্রধান জামাতে অংশ নেন হাজারো তাসলিমা স্ত্রীর বিরুদ্ধে লিঙ্গ কাটার অভিযোগে সাংবাদিক সম্মেলন ঈদ উপলক্ষ্যে ঘরমুখী মানুষ ঝুঁকি নিয়ে পিকআপ ট্রাক ও বাসের ছাদে ঢাকা মহানগর পুলিশের দুই কর্মকর্তা বদলি গতকাল শুক্রবার বিকেল চারটায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন আহমেদের গাড়ি্ বহরে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে বিএমপি কাউনিয়া থানার অভিযানে ০৫ কেজি গাঁজাসহ আটক ০১ জন লাব্বাঈক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক’এই ধনীতে প্রকম্পিত আরাফাতের ময়দান

মহান স্বাধীনতা দিবসের রক্তিম শুভেচ্ছা ও সকল শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন,সোহেল সরকার

মোঃ আকরাম হোসেন।।

বাংলার স্বাধীনতা আনতে যারা জীবন দিয়েছেন,সকল শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন,আশুলিয়া থানা ইয়ারপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগ নেতা সোহেল সরকার।তিনি বলেন,জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সেই ঐতিহাসিক ভাষন আজও হৃদয়ে বাজে।তিনি বলেছিলেন পরাধীনতার হাত থেকে বাংলার স্বাধীনতা আনতে, আপনাদের হাতে যা কিছু আছে তাই নিয়ে ঝাপিয়ে পড়ো।সেদিনের সেই ভাষণে বাঙালিরা নিজের জীবন বাজি রেখে,দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধ করে 30 লক্ষ শহীদের বুকের তাজা রক্ত দিয়ে 2 লক্ষ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে  পরাধীনতার হাত থেকে লাল সবুজের পতাকা ছিনিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছেন।তাইতো মোরা পেয়েছি স্বাধীন সার্বভৌমত্ব সোনার বাংলা।আজ 26 শে মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসে,সকল শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করি।আসুন বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন পূরণে।মন থেকে সকল হিংসা-বিদ্বেষ অহংকার ভুলে,দল-মত-নির্বিশেষে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করি,সুখী সুন্দর জীবন গড়ি।

আরো খবর.......

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ইসরাইলের বাধা, কুরবানি দিতে পারেননি গাজাবাসীর অনেকেই

মহান স্বাধীনতা দিবসের রক্তিম শুভেচ্ছা ও সকল শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন,সোহেল সরকার

আপডেট টাইম : ০৮:১১:১৩ পূর্বাহ্ণ, শনিবার, ২০ মার্চ ২০২১

মোঃ আকরাম হোসেন।।

বাংলার স্বাধীনতা আনতে যারা জীবন দিয়েছেন,সকল শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন,আশুলিয়া থানা ইয়ারপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগ নেতা সোহেল সরকার।তিনি বলেন,জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সেই ঐতিহাসিক ভাষন আজও হৃদয়ে বাজে।তিনি বলেছিলেন পরাধীনতার হাত থেকে বাংলার স্বাধীনতা আনতে, আপনাদের হাতে যা কিছু আছে তাই নিয়ে ঝাপিয়ে পড়ো।সেদিনের সেই ভাষণে বাঙালিরা নিজের জীবন বাজি রেখে,দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধ করে 30 লক্ষ শহীদের বুকের তাজা রক্ত দিয়ে 2 লক্ষ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে  পরাধীনতার হাত থেকে লাল সবুজের পতাকা ছিনিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছেন।তাইতো মোরা পেয়েছি স্বাধীন সার্বভৌমত্ব সোনার বাংলা।আজ 26 শে মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসে,সকল শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করি।আসুন বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন পূরণে।মন থেকে সকল হিংসা-বিদ্বেষ অহংকার ভুলে,দল-মত-নির্বিশেষে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করি,সুখী সুন্দর জীবন গড়ি।