ঢাকা ০৫:১৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
কোটা সংস্কারের পক্ষে সরকার নীতিগতভাবে একমত: আইনমন্ত্রী ঘোষণার পর মানছেন না কোটা আন্দোলনকারীরা আমার ভাইদের ফেরত দেওয়া হোক আগে রায়পুরে বালু উত্তোলনে ভাঙন আতঙ্ক সরকারের কাছ থেকে দৃশ্যমান পদক্ষেপ ও সমাধানের পথ তৈরির প্রত্যাশা করে বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন শনির আখড়া-যাত্রাবাড়ী সড়কে চলছে সংঘর্ষ, যান চলালাচল অচল করে দিচ্ছেন ফেসবুক লাইভে এসে পদত্যাগের ঘোষণা ছাত্রলীগ নেতার উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত কমপ্লিট শাটডাউন ঢাকার সঙ্গে সব জেলার যোগাযোগ বন্ধ, টার্মিনাল থেকে ছাড়ছে না কোনো বাস ফুলবাড়ীর দৌলতপুর ইউনিয়নে গরু চুরির হিড়িক দেশবাসীর প্রতি মির্জা ফখরুলের আহ্বান, শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঢাবি, ৬টার মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশ

কমলনগরে চর ফলকন ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসারের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

কমলনগর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : ১২:১৮:১০ অপরাহ্ণ, বৃহস্পতিবার, ২৭ জুলাই ২০২৩
  • / ১৮৮ ৫০০.০০০ বার পাঠক

লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার ৫নং চর ফলকন ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসার জাফরিন রহমান(মুক্তা)র বিরুদ্ধে নানা অব্যবস্থাপনা, অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিনি স্বাস্থ্যকেন্দ্রটিতে যোগদানের পর থেকে কেন্দ্রটির স্বাস্থ্যব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। অভিযোগে প্রকাশ এই উপ-সহকারি অফিসার অফিস চলাকালীন সময়ে নিজ কক্ষে তার নামে ছাপানো বিসমিল্লাহ মেডিকেল সেন্টার এর পেইড ব্যবহার করে রোগী দেখে ১০০(একশত) টাকা ফি নেওয়ার বিস্তর অভিযোগ রয়েছে। চিকিৎসা সেবা নিতে আসা সাধারন রোগীরা ফি দিতে অসম্মতি জানালে তিনি প্রায়ই রোগীদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরন করেন । এতে স্বাস্থ্যসেবা নিতে আসা রোগীদের মধ্যে বিরুপ ধারনা সৃষ্টি হয়েছে। অপরদিকে ইতপূর্বে ওই সাস্থ্যকেন্দ্রটির স্বাস্থ্যসেবার মান উন্নত থাকলেও বর্তমানে সেবার মান সর্বনিম্ম পর্যায়ে পৌঁছেছে বলে অভিযোগে প্রকাশ। এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউ,পি সদস্য আনোয়ার হোসেন জানান, এই স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি উন্নত প্রসুতি সেবা দিয়ে উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে অনেক সুনাম অর্জন করলেও বর্তমানে এর সেবার মান বেশ হতাশাজনক। তিনি এখানে চিকিৎসা নিতে আসা গর্ভবতী মহিলাদের চিকিৎসাসেবা না দিয়ে বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকগুলোতে পাঠিয়ে দেন এবং টেষ্টের রিপোর্ট দিতে টাকা নেওয়ার অভিযোগ পেলে আমি এখানের দায়িত্তপ্রাপ্ত অফিসারকে জানিয়েছি ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন প্রসুতি সেবী বলেন, আমি যতক্ষন ছিলাম তাকে কোনো অর্থ ছাড়া চিকিৎসাসেবা দিতে দেখিনি। তাই অনেক রোগী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটিতে না গিয়ে অন্যত্র চিকিৎসাসেবা নিচ্ছেন।

তথ্য সংগ্রহকারী সংবাদ কর্মী গিয়ে ১টার সময় উপ-সহকারিকে না পেয়ে তার মুঠো ফোনে কল দিলে তার স্বামী উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা আবদুর রহমান রেজবিকে নিয়ে পুনরায় কমিউনিটি মেডিক্যালে যায় এবং স্বামীকে দিয়ে সাংবাদ কর্মীর সাথে প্রমান দেখাতে বিতর্ক করে।
এলাকাবাসী বলেন, উপ-সহকারি জাফরিন রহমান পুর্বে যে অনিয়ম করতো তার স্বামী উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা আবদুর রহমান রেজবি ২নং সাহেবেরহাট ইউনিয়ন থেকে চর ফলকন ইউনিয়নে বদলী হয়ে আসার পর স্বামীর প্রভাব দেখিয়ে অনিয়ম করে যাচ্ছে । এলাকাবাসী আরো বলেন,উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা আবদুর রহমান রেজবিকে প্রায়ই তার কাজ রেখে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে বসে থাকতে দেখা যায় ।

উপ-সহকারি মেডিকেল অফিসার জাফরিন রহমান বলেন, স্বাস্থ্য কেন্দ্রটিতে কোন প্রেসক্রিপশন পেইড না থাকায় তিনি দীর্ঘ দিন থেকে এই পেইড ব্যবহার করেন ।

এ ব্যাপারে কমলনগর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার সাথে মুঠো ফোনে কথা হলে তিনি বলেন, অভিযুক্ত চিকিৎসকের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে জানানো হবে।

আরো খবর.......

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

কমলনগরে চর ফলকন ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসারের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

আপডেট টাইম : ১২:১৮:১০ অপরাহ্ণ, বৃহস্পতিবার, ২৭ জুলাই ২০২৩

লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার ৫নং চর ফলকন ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসার জাফরিন রহমান(মুক্তা)র বিরুদ্ধে নানা অব্যবস্থাপনা, অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিনি স্বাস্থ্যকেন্দ্রটিতে যোগদানের পর থেকে কেন্দ্রটির স্বাস্থ্যব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। অভিযোগে প্রকাশ এই উপ-সহকারি অফিসার অফিস চলাকালীন সময়ে নিজ কক্ষে তার নামে ছাপানো বিসমিল্লাহ মেডিকেল সেন্টার এর পেইড ব্যবহার করে রোগী দেখে ১০০(একশত) টাকা ফি নেওয়ার বিস্তর অভিযোগ রয়েছে। চিকিৎসা সেবা নিতে আসা সাধারন রোগীরা ফি দিতে অসম্মতি জানালে তিনি প্রায়ই রোগীদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরন করেন । এতে স্বাস্থ্যসেবা নিতে আসা রোগীদের মধ্যে বিরুপ ধারনা সৃষ্টি হয়েছে। অপরদিকে ইতপূর্বে ওই সাস্থ্যকেন্দ্রটির স্বাস্থ্যসেবার মান উন্নত থাকলেও বর্তমানে সেবার মান সর্বনিম্ম পর্যায়ে পৌঁছেছে বলে অভিযোগে প্রকাশ। এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউ,পি সদস্য আনোয়ার হোসেন জানান, এই স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি উন্নত প্রসুতি সেবা দিয়ে উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে অনেক সুনাম অর্জন করলেও বর্তমানে এর সেবার মান বেশ হতাশাজনক। তিনি এখানে চিকিৎসা নিতে আসা গর্ভবতী মহিলাদের চিকিৎসাসেবা না দিয়ে বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকগুলোতে পাঠিয়ে দেন এবং টেষ্টের রিপোর্ট দিতে টাকা নেওয়ার অভিযোগ পেলে আমি এখানের দায়িত্তপ্রাপ্ত অফিসারকে জানিয়েছি ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন প্রসুতি সেবী বলেন, আমি যতক্ষন ছিলাম তাকে কোনো অর্থ ছাড়া চিকিৎসাসেবা দিতে দেখিনি। তাই অনেক রোগী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটিতে না গিয়ে অন্যত্র চিকিৎসাসেবা নিচ্ছেন।

তথ্য সংগ্রহকারী সংবাদ কর্মী গিয়ে ১টার সময় উপ-সহকারিকে না পেয়ে তার মুঠো ফোনে কল দিলে তার স্বামী উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা আবদুর রহমান রেজবিকে নিয়ে পুনরায় কমিউনিটি মেডিক্যালে যায় এবং স্বামীকে দিয়ে সাংবাদ কর্মীর সাথে প্রমান দেখাতে বিতর্ক করে।
এলাকাবাসী বলেন, উপ-সহকারি জাফরিন রহমান পুর্বে যে অনিয়ম করতো তার স্বামী উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা আবদুর রহমান রেজবি ২নং সাহেবেরহাট ইউনিয়ন থেকে চর ফলকন ইউনিয়নে বদলী হয়ে আসার পর স্বামীর প্রভাব দেখিয়ে অনিয়ম করে যাচ্ছে । এলাকাবাসী আরো বলেন,উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা আবদুর রহমান রেজবিকে প্রায়ই তার কাজ রেখে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে বসে থাকতে দেখা যায় ।

উপ-সহকারি মেডিকেল অফিসার জাফরিন রহমান বলেন, স্বাস্থ্য কেন্দ্রটিতে কোন প্রেসক্রিপশন পেইড না থাকায় তিনি দীর্ঘ দিন থেকে এই পেইড ব্যবহার করেন ।

এ ব্যাপারে কমলনগর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার সাথে মুঠো ফোনে কথা হলে তিনি বলেন, অভিযুক্ত চিকিৎসকের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে জানানো হবে।