ঢাকা ০৪:৪৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
কোটা সংস্কারের পক্ষে সরকার নীতিগতভাবে একমত: আইনমন্ত্রী ঘোষণার পর মানছেন না কোটা আন্দোলনকারীরা আমার ভাইদের ফেরত দেওয়া হোক আগে রায়পুরে বালু উত্তোলনে ভাঙন আতঙ্ক সরকারের কাছ থেকে দৃশ্যমান পদক্ষেপ ও সমাধানের পথ তৈরির প্রত্যাশা করে বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন শনির আখড়া-যাত্রাবাড়ী সড়কে চলছে সংঘর্ষ, যান চলালাচল অচল করে দিচ্ছেন ফেসবুক লাইভে এসে পদত্যাগের ঘোষণা ছাত্রলীগ নেতার উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত কমপ্লিট শাটডাউন ঢাকার সঙ্গে সব জেলার যোগাযোগ বন্ধ, টার্মিনাল থেকে ছাড়ছে না কোনো বাস ফুলবাড়ীর দৌলতপুর ইউনিয়নে গরু চুরির হিড়িক দেশবাসীর প্রতি মির্জা ফখরুলের আহ্বান, শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঢাবি, ৬টার মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশ

রিয়াজকে হারিয়ে ডিপজলের জয়

সময়ের কন্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : ০৮:৩০:১৩ পূর্বাহ্ণ, শনিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২২
  • / ১৮৭ ৫০০.০০০ বার পাঠক

সময়ের কন্ঠ রিপোর্ট।।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের ফলাফল যুগান্তরের কাছে পৌঁছেছে৷

এবারের নির্বাচনে ২০২২-২৪ মেয়াদের জন্য সভাপতি পদে জয়ী হয়েছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন।

এদিকে সহসভাপতি পদে সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়েছেন জনপ্রিয় খল অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল।

রিয়াজ ও ডিএ তায়েবকে হারিয়েছেন সহসভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

এ পদে ডিপজল পেয়েছেন ২১৯ ভোট যেখানে রিয়াজ তায়েবের ভোটসংখ্যা যথাক্রমে ১৫৬ ও ১১২।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১১৯ ভোট পেয়ে ডিপজলের সঙ্গে সহসভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন অভিনেতা মাসুম পারভেজ রুবেল।

ডিএ তায়েব অবশ্য ভোটগণনা চলাকালীন অবস্থায় নির্বাচন বর্জন করেন।

মাত্র ৩৬৫টি ভোট গুণতে নির্বাচন কমিশনারের সারারাত লেগে যাওয়াকে মেনে নিতে পারেননি তিনি।

ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টে বর্জনের ঘোষণা দিয়ে এ অভিনেতা লেখেন, ভোর পৌনে পাঁচটা বাজে এখনো পর্যন্ত নির্বাচন কমিশনার ভোটের হিসাব মেলাতে পারছে না। এই নির্বাচন আমি বর্জন করলাম।

সভাপতি পদে ইলিয়াস কাঞ্চন পেয়েছেন ১৯১ ভোট৷ তার প্রতিদ্বন্দ্বী মিশা সওদাগর পেলেন ১৪৮ ভোট।

তুমুল বির্তকের মাঝেও নিপুণকে হারিয়ে সাধারণ সম্পাদক পদে জয়ী হয়েছেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান।

জায়েদ পেয়েছেন ১৭৬ ভোট যেখানে নিপুণের ভোটসংখ্যা ১৬৩। অর্থাৎ ১৩ ভোটে জয় পেয়ে সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান।

ভোট গণনার পর দেখা গেল সবার চেয়ে বেশি ভোট পেয়েছেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস।

২৪০টি ভোট পেয়েছেন ‘হঠাৎ বৃষ্টি’ খ্যাত এ নায়ক।

ভোটসংখ্যায় ফেরদৌসের পরই আছেন দফতর সম্পাদক পদে আরমান, ২৩২ ভোট।

আর কার্যকরী পরিষদে ফেরদৌসের কাছাকাছি যেতে পেরেছেন অমিত হাসান (২২৭), অঞ্জনা সুলতানা (২২৫ ), মৌসুমী (২২৫)।

এবারের নির্বাচনে ভোটার ছিলেন ৪২৮। ভোট দিয়েছেন ৩৬৫ জন। এরমধ্যে কার্যকরী পরিষদের সদস্যপদে বাতিল হয়েছে ১০টি ভোট৷ আর সম্পাদকীয়তে বাতিল হয়েছে ২৬টি ভোট৷

 

আরো খবর.......

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

রিয়াজকে হারিয়ে ডিপজলের জয়

আপডেট টাইম : ০৮:৩০:১৩ পূর্বাহ্ণ, শনিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২২

সময়ের কন্ঠ রিপোর্ট।।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের ফলাফল যুগান্তরের কাছে পৌঁছেছে৷

এবারের নির্বাচনে ২০২২-২৪ মেয়াদের জন্য সভাপতি পদে জয়ী হয়েছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন।

এদিকে সহসভাপতি পদে সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়েছেন জনপ্রিয় খল অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল।

রিয়াজ ও ডিএ তায়েবকে হারিয়েছেন সহসভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

এ পদে ডিপজল পেয়েছেন ২১৯ ভোট যেখানে রিয়াজ তায়েবের ভোটসংখ্যা যথাক্রমে ১৫৬ ও ১১২।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১১৯ ভোট পেয়ে ডিপজলের সঙ্গে সহসভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন অভিনেতা মাসুম পারভেজ রুবেল।

ডিএ তায়েব অবশ্য ভোটগণনা চলাকালীন অবস্থায় নির্বাচন বর্জন করেন।

মাত্র ৩৬৫টি ভোট গুণতে নির্বাচন কমিশনারের সারারাত লেগে যাওয়াকে মেনে নিতে পারেননি তিনি।

ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টে বর্জনের ঘোষণা দিয়ে এ অভিনেতা লেখেন, ভোর পৌনে পাঁচটা বাজে এখনো পর্যন্ত নির্বাচন কমিশনার ভোটের হিসাব মেলাতে পারছে না। এই নির্বাচন আমি বর্জন করলাম।

সভাপতি পদে ইলিয়াস কাঞ্চন পেয়েছেন ১৯১ ভোট৷ তার প্রতিদ্বন্দ্বী মিশা সওদাগর পেলেন ১৪৮ ভোট।

তুমুল বির্তকের মাঝেও নিপুণকে হারিয়ে সাধারণ সম্পাদক পদে জয়ী হয়েছেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান।

জায়েদ পেয়েছেন ১৭৬ ভোট যেখানে নিপুণের ভোটসংখ্যা ১৬৩। অর্থাৎ ১৩ ভোটে জয় পেয়ে সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান।

ভোট গণনার পর দেখা গেল সবার চেয়ে বেশি ভোট পেয়েছেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস।

২৪০টি ভোট পেয়েছেন ‘হঠাৎ বৃষ্টি’ খ্যাত এ নায়ক।

ভোটসংখ্যায় ফেরদৌসের পরই আছেন দফতর সম্পাদক পদে আরমান, ২৩২ ভোট।

আর কার্যকরী পরিষদে ফেরদৌসের কাছাকাছি যেতে পেরেছেন অমিত হাসান (২২৭), অঞ্জনা সুলতানা (২২৫ ), মৌসুমী (২২৫)।

এবারের নির্বাচনে ভোটার ছিলেন ৪২৮। ভোট দিয়েছেন ৩৬৫ জন। এরমধ্যে কার্যকরী পরিষদের সদস্যপদে বাতিল হয়েছে ১০টি ভোট৷ আর সম্পাদকীয়তে বাতিল হয়েছে ২৬টি ভোট৷