ঢাকা ০৫:৫৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
পানি নিস্কাশনের রাস্তা বন্ধ করে পুকুর নির্মানের কারনে প্রায় শত বিঘা ফসলী জমি পানির নীচে ইবি শিক্ষার্থীকে গলাটিপে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে তদন্ত কমিটি গঠন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় বেগম জাহানারা হান্নান উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩য় বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্টিত জামালপুরে ভেজাল কীটনাশকে বাজার সয়লাব, কৃষি শিল্প ধ্বংসের পাঁয়তারা মোংলায় সিবিএ নির্বাচন নিয়ে শ্রমিক-কর্মচারীদের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে নওগাঁ প্রাইভেট কার থেকে ৭২ কেজি গাঁজাসহ এক জন গ্রেপ্তার ভাষা সৈনিক মোস্তফা এম এ মতিন সাহিত্য পুরস্কার পেলেন হোসেনপুরের কবি শাহ আলম বিল্লাল গুজরাটের পোরবন্দরের জলসীমায় ২২০০০হাজার, কোটি টাকার মাদকদ্রব্য আটক করেছে নৌবাহিনী ও এনসিবি, গ্রেপ্তার পাঁচ পাক নাগরিক রায়পুরে অসামাজিক কার্যকলাপে আটক ৫ রাজধানীর ৪ হাসপাতালে র‍্যাবের অভিযান

দুই হাতে টাকা দিচ্ছি , তাহলে গবেষণা পাচ্ছি না কেন? ক্ষোভ প্রধানমন্ত্রীর

  • সময়ের কন্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : ০৯:৫২:৩০ পূর্বাহ্ণ, বৃহস্পতিবার, ১১ নভেম্বর ২০২১
  • ১৫০ ০.০০০ বার পাঠক

  • জানালেন পরিকল্পনামন্ত্রী

অনলাইন রিপোর্টার ॥ প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের উদ্ধৃতি দিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী প্রায়ই বলেন, আমরা তো এতো ধনী দেশ নই। তবুও দুই হাত ভরে টাকা দিচ্ছি, কিন্তু আমাদের গবেষকদের কাছ থেকে গবেষণা পাচ্ছি না। মৌলিক গবেষণায় আমাদের অবদান এতো কম কেন।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে সেভ আওয়ার সি, বাংলাদেশ আয়োজিত ‘নীল অর্থনীতি’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে মন্ত্রী এ কথা বলেন। এ সময় তিনি মৌলিক গবেষণা বেশি করে হওয়া দরকার বলে মন্তব্য করেন।

প্রয়োজনেই সুন্দরবন উজাড় হয়েছে মন্তব্য করে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘আমার মনে প্রশ্ন জাগতো সুন্দরবন কেন নোয়াখালী পর্যন্ত গিয়েই শেষ হয়ে গেলো? কেন কক্সবাজার পর্যন্ত গেলো না? অতীতে ছিল, খেয়ে খেয়ে এটাকে শেষ করা হয়েছে। সেটার জন্য দোষ দিয়ে লাভ নেই, প্রয়োজনেই খেয়েছে। এখনও খাচ্ছে।’

অন্য যেকোনও সময়ের তুলনায় বর্তমান সরকার ভালো করছে বলে তিনি মনে করেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের সরকারপ্রধানের আগ্রহ সর্বব্যাপী। এমন কোনও বিষয় নেই যেটা তিনি অ্যাভয়েড করে যান। অতীতের যেকোনও সময়ের তুলনায় এই সরকার ভালো করছে।’

এ সময় তিনি আয়োজকদের নীল অর্থনীতি নিয়ে গবেষণা চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান। এ ক্ষেত্রে সরকারের সব ধরনের সহয়তা থাকবে বলেও আশ্বাস দেন তিনি।গোলটেবিল বৈঠকে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. জসীম উদ্দিন, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সন্তুস কুমার দেব, ওশেনোগ্রাফি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. কেএম আজয়ে চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেরিটাইম বিশ্ববিদ্যালয়ের মেরিটাইম ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড স্ট্যাটিজিক স্টাডিস ডিপার্টমেন্টের প্রধান কমোডর ওয়াহিদ হাসান কুতুবুদ্দিন (এনডিসি)-সহ অনেকে।

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

পানি নিস্কাশনের রাস্তা বন্ধ করে পুকুর নির্মানের কারনে প্রায় শত বিঘা ফসলী জমি পানির নীচে

দুই হাতে টাকা দিচ্ছি , তাহলে গবেষণা পাচ্ছি না কেন? ক্ষোভ প্রধানমন্ত্রীর

আপডেট টাইম : ০৯:৫২:৩০ পূর্বাহ্ণ, বৃহস্পতিবার, ১১ নভেম্বর ২০২১
  • জানালেন পরিকল্পনামন্ত্রী

অনলাইন রিপোর্টার ॥ প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের উদ্ধৃতি দিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী প্রায়ই বলেন, আমরা তো এতো ধনী দেশ নই। তবুও দুই হাত ভরে টাকা দিচ্ছি, কিন্তু আমাদের গবেষকদের কাছ থেকে গবেষণা পাচ্ছি না। মৌলিক গবেষণায় আমাদের অবদান এতো কম কেন।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে সেভ আওয়ার সি, বাংলাদেশ আয়োজিত ‘নীল অর্থনীতি’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে মন্ত্রী এ কথা বলেন। এ সময় তিনি মৌলিক গবেষণা বেশি করে হওয়া দরকার বলে মন্তব্য করেন।

প্রয়োজনেই সুন্দরবন উজাড় হয়েছে মন্তব্য করে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘আমার মনে প্রশ্ন জাগতো সুন্দরবন কেন নোয়াখালী পর্যন্ত গিয়েই শেষ হয়ে গেলো? কেন কক্সবাজার পর্যন্ত গেলো না? অতীতে ছিল, খেয়ে খেয়ে এটাকে শেষ করা হয়েছে। সেটার জন্য দোষ দিয়ে লাভ নেই, প্রয়োজনেই খেয়েছে। এখনও খাচ্ছে।’

অন্য যেকোনও সময়ের তুলনায় বর্তমান সরকার ভালো করছে বলে তিনি মনে করেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের সরকারপ্রধানের আগ্রহ সর্বব্যাপী। এমন কোনও বিষয় নেই যেটা তিনি অ্যাভয়েড করে যান। অতীতের যেকোনও সময়ের তুলনায় এই সরকার ভালো করছে।’

এ সময় তিনি আয়োজকদের নীল অর্থনীতি নিয়ে গবেষণা চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান। এ ক্ষেত্রে সরকারের সব ধরনের সহয়তা থাকবে বলেও আশ্বাস দেন তিনি।গোলটেবিল বৈঠকে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. জসীম উদ্দিন, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সন্তুস কুমার দেব, ওশেনোগ্রাফি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. কেএম আজয়ে চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেরিটাইম বিশ্ববিদ্যালয়ের মেরিটাইম ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড স্ট্যাটিজিক স্টাডিস ডিপার্টমেন্টের প্রধান কমোডর ওয়াহিদ হাসান কুতুবুদ্দিন (এনডিসি)-সহ অনেকে।