ঢাকা ০৬:১৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
রাণীশংকৈলে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন নওগাঁর নিয়ামতপুরে শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২১শে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে ভাষা শহীদদের স্বরনে শ্রদ্ধাঞ্জলি দেবহাটা উপজেলা সমিতির ও পিকনিক স্পট পরিদর্শন কালিহাতীতে মহান শহিদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত আজ সারা ভারতের বিভিন্ন যায়গার সাথে সিরাকল মহাবিদ্যালয়ে উদযাপিত হল ভাষা দিবস আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উৎযাপন ভৈরবে অমর ২১শে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে সকল বীর শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়েছে কিশোরগঞ্জে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত কমলনগরে সয়াবিন ক্ষেত থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার ২১ শে ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে

নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয় ব্যক্তি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক অরুন সরকার রানা

  • সময়ের কন্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : ০৮:২৪:৩১ পূর্বাহ্ণ, বৃহস্পতিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • ১৫৫ ০.০০০ বার পাঠক

শেখ শিবলী রাজশাহী প্রতিনিধি।।নিজের জীবনের সুখ-শান্তির কথা চিন্তা না করে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নের জন্য দীর্ঘ ৪৫ বছর বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের কাজ করে যাচ্ছেন এই সংগঠনের মূল চালিকা শক্তি হচ্ছে অরুন সরকার রানা জীবনের মায়া ত্যাগ করে এই সংগঠনে কাজ করেছেন। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট তার নিঃশ্বাসে বিশ্বাসে সর্বক্ষণ এই সংগঠন নিয়ে চিন্তা করেন। তার বাসায় গেলে ও আশে পাশে লোক জনের কাছে খবর নিলে বুঝা যায় তারমত একজন ত্যাগী আদর্শবান সৎ নিষ্ঠাবান ব্যক্তি হাজারে একজন পাওয়া যাবে না তার জীবনে চাওয়া পাওয়ার কিছু নেই তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক এটাই তার বড় গর্ভ তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হতে চান মনে প্রাণে। এদের মত ত্যাগী মানুষে কথা জননেত্রী শেখ হাসিনা কাছে কেহ বলেনা বলে টাউট, বাটপার, ধান্দাবাজ, তকবির বাস, চাঁদাবাজ, টাকা কামানো জন্য নিজে ভাগ্য গড়তে রাজনিতি করে টাকা মালিক দের কথা তাদের দলের পদ দেয়। অরুন সরকার রানা মত ভদ্রলোক আদর্শবান ত্যাগী,সৎ, ব্যক্তিরা বঞ্চিত হয় তারা আওয়ামী লীগ এ মূল্যায়ন হয়না কিছু নেতার কারণে। অরুন সরকার রানা মত ত্যাগীদের কথা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে কেহ বলেন না কারন সবাই নিজেদের গুনকীর্তন নিয়ে কথা বলেন। কোন নেতা কি তার বাসায় গিয়ে খবর নিয়েছেন তার পরিবার এর নেয়নি। কারন নেওয়ার প্রয়োজন মনে করেননি কিছু কিছু দাঙ্গাবাজরা অরুন সরকার রানা সমালোচনা করে নেতাদের কাছে গিয়ে তাদের স্বার্থের জন্য অরুন সরকার রানা স্বার্থের জন্য কোন নেতার কাছে মন্ত্রীর কাছে ধরনা দেন নি সচিবালয়ে জাওয়া কাড ও করেনি। ৫ সন্তানের জন্য কিছু করেও যাননি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা তাকে কিছু আর্থিক সহায়তা দিয়েছে এর জন্য তার পরিবার প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। এদের মত ত্যাগীদের কথা হয় বড় পএিকায় লিখবে না কোন প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রচার হবে না। অরুন সরকার রানা দের মত ত্যাগী আদর্শবান কমিরা ছিলেন বলেই আওয়ামী লীগ খমতায় এসেছিল। এরাই শেখ হাসিনার প্রকৃত সৈনিক এরাই দুঃসময় দুঃদিনের এরাই থাকবে।অরুন সরকার রানা মন্ত্রী, এম,পি, নেতা,কোন প্রতিষ্ঠানের পরিচালক হতে চায়নি। অরুণ সরকার রানা দাদারা আওয়ামী লীগ কে দিয়েছে বিনিময় কিছু নেয়নি। কখোন এদের মূল্যায়ন হবে না এরা দলকেই দিয়েই যাবে কিছুই পাবে না।

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

রাণীশংকৈলে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয় ব্যক্তি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক অরুন সরকার রানা

আপডেট টাইম : ০৮:২৪:৩১ পূর্বাহ্ণ, বৃহস্পতিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১

শেখ শিবলী রাজশাহী প্রতিনিধি।।নিজের জীবনের সুখ-শান্তির কথা চিন্তা না করে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নের জন্য দীর্ঘ ৪৫ বছর বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের কাজ করে যাচ্ছেন এই সংগঠনের মূল চালিকা শক্তি হচ্ছে অরুন সরকার রানা জীবনের মায়া ত্যাগ করে এই সংগঠনে কাজ করেছেন। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট তার নিঃশ্বাসে বিশ্বাসে সর্বক্ষণ এই সংগঠন নিয়ে চিন্তা করেন। তার বাসায় গেলে ও আশে পাশে লোক জনের কাছে খবর নিলে বুঝা যায় তারমত একজন ত্যাগী আদর্শবান সৎ নিষ্ঠাবান ব্যক্তি হাজারে একজন পাওয়া যাবে না তার জীবনে চাওয়া পাওয়ার কিছু নেই তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক এটাই তার বড় গর্ভ তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হতে চান মনে প্রাণে। এদের মত ত্যাগী মানুষে কথা জননেত্রী শেখ হাসিনা কাছে কেহ বলেনা বলে টাউট, বাটপার, ধান্দাবাজ, তকবির বাস, চাঁদাবাজ, টাকা কামানো জন্য নিজে ভাগ্য গড়তে রাজনিতি করে টাকা মালিক দের কথা তাদের দলের পদ দেয়। অরুন সরকার রানা মত ভদ্রলোক আদর্শবান ত্যাগী,সৎ, ব্যক্তিরা বঞ্চিত হয় তারা আওয়ামী লীগ এ মূল্যায়ন হয়না কিছু নেতার কারণে। অরুন সরকার রানা মত ত্যাগীদের কথা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে কেহ বলেন না কারন সবাই নিজেদের গুনকীর্তন নিয়ে কথা বলেন। কোন নেতা কি তার বাসায় গিয়ে খবর নিয়েছেন তার পরিবার এর নেয়নি। কারন নেওয়ার প্রয়োজন মনে করেননি কিছু কিছু দাঙ্গাবাজরা অরুন সরকার রানা সমালোচনা করে নেতাদের কাছে গিয়ে তাদের স্বার্থের জন্য অরুন সরকার রানা স্বার্থের জন্য কোন নেতার কাছে মন্ত্রীর কাছে ধরনা দেন নি সচিবালয়ে জাওয়া কাড ও করেনি। ৫ সন্তানের জন্য কিছু করেও যাননি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা তাকে কিছু আর্থিক সহায়তা দিয়েছে এর জন্য তার পরিবার প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। এদের মত ত্যাগীদের কথা হয় বড় পএিকায় লিখবে না কোন প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রচার হবে না। অরুন সরকার রানা দের মত ত্যাগী আদর্শবান কমিরা ছিলেন বলেই আওয়ামী লীগ খমতায় এসেছিল। এরাই শেখ হাসিনার প্রকৃত সৈনিক এরাই দুঃসময় দুঃদিনের এরাই থাকবে।অরুন সরকার রানা মন্ত্রী, এম,পি, নেতা,কোন প্রতিষ্ঠানের পরিচালক হতে চায়নি। অরুণ সরকার রানা দাদারা আওয়ামী লীগ কে দিয়েছে বিনিময় কিছু নেয়নি। কখোন এদের মূল্যায়ন হবে না এরা দলকেই দিয়েই যাবে কিছুই পাবে না।