ঢাকা ০৬:২৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
রাণীশংকৈলে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন নওগাঁর নিয়ামতপুরে শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২১শে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে ভাষা শহীদদের স্বরনে শ্রদ্ধাঞ্জলি দেবহাটা উপজেলা সমিতির ও পিকনিক স্পট পরিদর্শন কালিহাতীতে মহান শহিদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত আজ সারা ভারতের বিভিন্ন যায়গার সাথে সিরাকল মহাবিদ্যালয়ে উদযাপিত হল ভাষা দিবস আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উৎযাপন ভৈরবে অমর ২১শে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে সকল বীর শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়েছে কিশোরগঞ্জে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত কমলনগরে সয়াবিন ক্ষেত থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার ২১ শে ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে

মোংলায় ইউপি নির্বাচনে ভোটের লড়াইয়ে শুধু মেম্বার প্রার্থীরা

  • সময়ের কন্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : ০৫:৩৩:৪২ অপরাহ্ণ, সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • ১৯১ ০.০০০ বার পাঠক

ওমর ফারুক মোংলা ।।

মোংলা উপজেলায় আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ছয়টি ইউনিয়নের সব কয়টিতেই আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সাথে বিদ্রোহী
হিসেবে প্রার্থী ছিলেন অনেক। কিন্ত গত মার্চে মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে ছয়টি ইউনিয়ন থেকে প্রতিদ্বন্ধী সেসব প্রার্থী তাদের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নিলে একক প্রার্থী হিসেবে টিকে যান নৌকার প্রার্থীরা। ফলে বেসরকারি ভাবে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় এই ছয় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মোংলা উপজেলায় এই ঘটনা প্রথম ঘটলো। ফলে একই সাথে ছয়টি ইউনিয়নে এখন নির্বাচন হবে শুধু সাধারণ ও সংরক্ষিত মেম্বার (সদস্যদের) মধ্যে।

মোংলা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, মোংলা উপজেলার বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ সমর্থিত উদয় শংকর, সোনাইলতলায় নাজরিনা বেগম, চাঁদপাইতে মোল্লা তারিকুল ইসলাম, মিঠাখালীতে উৎপল কুমার মন্ডল, সুন্দরবনে একরাম ইজারাদার ও চিলা ইউনিয়নে গাজী আকবর হোসেন বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

বিএনপি অংশ না নেওয়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ছয়টি ইউনিয়নেই আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ছিল। কিন্তু বিদ্রোহীরা প্রত্যাহারের শেষ দিন নির্বাচন থেকে সরে দাড়ান। কিন্ত করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় নির্বাচন কমিশন ১১ এপ্রিল অনুষ্ঠিতব্য
নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করে। চলতি সেপ্টেম্বর মাসে নির্বাচন কমিশন পুরোনো তফসিলে নির্বাচন অনুষ্ঠানের দিন ধার্য করে ২০ সেপ্টেম্বর।

যেহেতু চেয়ারম্যানরা বেসরকারি ভাবে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত তাই এখন নির্বাচন হবে সাধারণ ও সংরক্ষিত সদস্যদের মধ্যে।
আব্দুল্লাহ আল মামুনআরও বলেন, বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়নে সাধারণ সদস্য পদে একজন প্রত্যাহার করেন। এ পদে এখন নির্বাচন হবে ৩৭ জনের মধ্যে। আর সংরক্ষিত আসনে কেউ প্রত্যাহার না করায় ১০ জনই আছেন। সোইনাইলতলা ইউনিয়নে একজন সাধারণ সদস্য পদ থেকে পত্যাহার করায় ২৮ জন ও সংরক্ষিত আসনে কেউ প্রত্যাহার না করায় ১১ জন নির্বাচন করছেন। মিঠাখালী ইউনিয়নে দুইজন সাধারণ সদস্য প্রত্যাহার করায় ৩৪ জন ও সংরক্ষিত আসনে কেউ প্রত্যাহার না করায় নির্বাচন করছেন ১১ জন। চাঁদপাই ইউনিয়নেও দুইজন সাধারণ সদস্য প্রত্যাহার করায় ৩৬ জন ও সংরক্ষিত আসনে কেউ প্রত্যাহার না করায় ১৩ নির্বাচন করছেন। সুন্দরবন ইউনিয়নে নয়জন সাধারণ সদস্য প্রত্যাহার করায় ৩১ জন এবং সংরক্ষিত আসনে প্রত্যাহার না করায় ১২ জনই নির্বাচন করছেন এখানে। আর চিলা ইউনিয়নে একজন সাধারণ সদস্য প্রত্যাহার এবং করোনায় একজন মারা যাওয়ায় ৪১ জন ও সংরক্ষিত আসনে দুইজন প্রত্যাহার করায় ১৬ জন প্রার্থী আগামী ২০ সেপ্টেম্বর নির্বাচনে অংশগ্রহন করবেন।

তিনি আরো বলেন, আমরা আশা করছি আগামী ২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচন শান্তিপূর্ন ও প্রতিদ্বন্দিতামুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে। এ ছয়টি ইউনিয়নে নারী পুরুষ মিলে মোট ভোটার রয়েছেন ৭৯ হাজার ৫৪০ জন।

বুড়িডাঙ্গা ইউনিয়নে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত চেয়ারম্যান উদয় শংকর বলেন, মোংলা উপজেলায় আগে কখনো এরকম নির্বাচন হয়নি। আমরা চেয়ারম্যানরা সবাই খুশী। তারপরও ছয় ইউনিয়নে সদস্য ও সংরক্ষিত সদস্যদের মধ্যে উৎসবমুখর ও
প্রতিদ্বন্দিতামূলক পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সাধারণ ভোটাররাও ভোট দেয়ার ব্যাপারে খুবই আগ্রহী। চাঁদপাই ই্উনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী শফিকুল ইসলাম ও মিঠাখালী ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী লিটন গাজী বলেন, এপ্রিলে ভোট গ্রহন স্থগিত হয়ে গেলে আমরা প্রার্থীরা ও ভোটাররা আশাহত হয়ে পড়ি। নুতন করে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার পর থেকে ভোটাররা আবার ভোট দিয়ে পছন্দের প্রার্থী নির্বাচনের ব্যাপারে খুবই আগ্রহী হয়ে উঠেছেন। আমরাও ভোটের জন্যে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছি।

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

রাণীশংকৈলে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

মোংলায় ইউপি নির্বাচনে ভোটের লড়াইয়ে শুধু মেম্বার প্রার্থীরা

আপডেট টাইম : ০৫:৩৩:৪২ অপরাহ্ণ, সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

ওমর ফারুক মোংলা ।।

মোংলা উপজেলায় আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ছয়টি ইউনিয়নের সব কয়টিতেই আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সাথে বিদ্রোহী
হিসেবে প্রার্থী ছিলেন অনেক। কিন্ত গত মার্চে মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে ছয়টি ইউনিয়ন থেকে প্রতিদ্বন্ধী সেসব প্রার্থী তাদের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নিলে একক প্রার্থী হিসেবে টিকে যান নৌকার প্রার্থীরা। ফলে বেসরকারি ভাবে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় এই ছয় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মোংলা উপজেলায় এই ঘটনা প্রথম ঘটলো। ফলে একই সাথে ছয়টি ইউনিয়নে এখন নির্বাচন হবে শুধু সাধারণ ও সংরক্ষিত মেম্বার (সদস্যদের) মধ্যে।

মোংলা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, মোংলা উপজেলার বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ সমর্থিত উদয় শংকর, সোনাইলতলায় নাজরিনা বেগম, চাঁদপাইতে মোল্লা তারিকুল ইসলাম, মিঠাখালীতে উৎপল কুমার মন্ডল, সুন্দরবনে একরাম ইজারাদার ও চিলা ইউনিয়নে গাজী আকবর হোসেন বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

বিএনপি অংশ না নেওয়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ছয়টি ইউনিয়নেই আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ছিল। কিন্তু বিদ্রোহীরা প্রত্যাহারের শেষ দিন নির্বাচন থেকে সরে দাড়ান। কিন্ত করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় নির্বাচন কমিশন ১১ এপ্রিল অনুষ্ঠিতব্য
নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করে। চলতি সেপ্টেম্বর মাসে নির্বাচন কমিশন পুরোনো তফসিলে নির্বাচন অনুষ্ঠানের দিন ধার্য করে ২০ সেপ্টেম্বর।

যেহেতু চেয়ারম্যানরা বেসরকারি ভাবে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত তাই এখন নির্বাচন হবে সাধারণ ও সংরক্ষিত সদস্যদের মধ্যে।
আব্দুল্লাহ আল মামুনআরও বলেন, বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়নে সাধারণ সদস্য পদে একজন প্রত্যাহার করেন। এ পদে এখন নির্বাচন হবে ৩৭ জনের মধ্যে। আর সংরক্ষিত আসনে কেউ প্রত্যাহার না করায় ১০ জনই আছেন। সোইনাইলতলা ইউনিয়নে একজন সাধারণ সদস্য পদ থেকে পত্যাহার করায় ২৮ জন ও সংরক্ষিত আসনে কেউ প্রত্যাহার না করায় ১১ জন নির্বাচন করছেন। মিঠাখালী ইউনিয়নে দুইজন সাধারণ সদস্য প্রত্যাহার করায় ৩৪ জন ও সংরক্ষিত আসনে কেউ প্রত্যাহার না করায় নির্বাচন করছেন ১১ জন। চাঁদপাই ইউনিয়নেও দুইজন সাধারণ সদস্য প্রত্যাহার করায় ৩৬ জন ও সংরক্ষিত আসনে কেউ প্রত্যাহার না করায় ১৩ নির্বাচন করছেন। সুন্দরবন ইউনিয়নে নয়জন সাধারণ সদস্য প্রত্যাহার করায় ৩১ জন এবং সংরক্ষিত আসনে প্রত্যাহার না করায় ১২ জনই নির্বাচন করছেন এখানে। আর চিলা ইউনিয়নে একজন সাধারণ সদস্য প্রত্যাহার এবং করোনায় একজন মারা যাওয়ায় ৪১ জন ও সংরক্ষিত আসনে দুইজন প্রত্যাহার করায় ১৬ জন প্রার্থী আগামী ২০ সেপ্টেম্বর নির্বাচনে অংশগ্রহন করবেন।

তিনি আরো বলেন, আমরা আশা করছি আগামী ২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচন শান্তিপূর্ন ও প্রতিদ্বন্দিতামুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে। এ ছয়টি ইউনিয়নে নারী পুরুষ মিলে মোট ভোটার রয়েছেন ৭৯ হাজার ৫৪০ জন।

বুড়িডাঙ্গা ইউনিয়নে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত চেয়ারম্যান উদয় শংকর বলেন, মোংলা উপজেলায় আগে কখনো এরকম নির্বাচন হয়নি। আমরা চেয়ারম্যানরা সবাই খুশী। তারপরও ছয় ইউনিয়নে সদস্য ও সংরক্ষিত সদস্যদের মধ্যে উৎসবমুখর ও
প্রতিদ্বন্দিতামূলক পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সাধারণ ভোটাররাও ভোট দেয়ার ব্যাপারে খুবই আগ্রহী। চাঁদপাই ই্উনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী শফিকুল ইসলাম ও মিঠাখালী ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী লিটন গাজী বলেন, এপ্রিলে ভোট গ্রহন স্থগিত হয়ে গেলে আমরা প্রার্থীরা ও ভোটাররা আশাহত হয়ে পড়ি। নুতন করে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার পর থেকে ভোটাররা আবার ভোট দিয়ে পছন্দের প্রার্থী নির্বাচনের ব্যাপারে খুবই আগ্রহী হয়ে উঠেছেন। আমরাও ভোটের জন্যে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছি।