ঢাকা ০১:১৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২
সংবাদ শিরোনাম ::
গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগ এর সদস্য নির্বাচিত (২০২২) এর গনসংবর্ধনা চট্টগ্রামের আলোচিত শিশু আয়াত হত্যা: আসামি আবির দুই দিনের রিমান্ডে ফুলবাড়ীতে অগ্নিকাণ্ডে বিদেশি গরু সহ বাড়ি পুড়ে ভস্মীভূত। ক্ষয়ক্ষতি প্রায় ৯ লক্ষ টাকা কাশিমপুর প্রেসক্লাবে কার্ডধারী সাংবাদিক নেতা মাজহারুল ইসলাম প্রতিক সন্দ্বীপে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান  সংবর্ধনা মোংলা পৌর যুবলীগের সভাপতি/ সম্পাদকের অসাংগঠনিক কার্যকলাপের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন ঠাকুরগাঁওয়ে হানিফ কোচের ধাক্কায় সড়কে প্রাণ গেল বাবা-মা ও মেয়ের বিএমএসএফ নিজস্ব গঠনতন্ত্রে পরিচালিত ট্রাস্টিনামা দলিলের অন্তর্ভুক্ত নয় -সাধারণ সভায় নেতৃবৃন্দ শহর সমাজসেবা কার্যালয়(২)খুলনার কার্যক্রম উপজেলা কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতি স্বাবলম্বী করতে মন্ত্রণালয় দৃষ্টি দিবেন কি?

দেশের প্রথম মহিলা কারাগার

আমাদের কাগজ মানুষের কথা বলে।।

সামাজিক শৃঙ্খলে আটকে পড়া নারীরাও অপরাধ জগতের ভয়ঙ্কর আগ্রাসন থেকে কোনভাবেই মুক্ত নয়। সমাজের অপেক্ষাকৃত দুর্বল এবং পিছিয়ে পড়া এই অর্ধাংশকে এমনিতেই বিভিন্ন বঞ্চনা, নিপীড়ন এবং অধিকারহীনতায় তাদের ঝঞ্ঝা বিক্ষুব্ধ জীবনকে বয়ে বেড়াতে হয়। যেখানে পেশী শক্তির দুর্বৃত্তায়নই শুধু নয়, নানামাত্রিক লোভাতুর হাতছানিতে সমাজ বহির্ভূত ঘৃণ্য অপকর্মে জড়িয়ে পড়া এক দুঃসহ চিত্র। অপরাধের মাত্রা বিবেচনায় রেখে এসব অপরাধী নারীকে আটক করে কারাগারে রাখার আদেশও জারি হয়। পরকীয়ায় লিপ্ত হয়ে স্বামী সন্তানকে খুনই শুধু নয়, আরও মারাত্মক ঘটনা সংঘটিত করে অপরাধীর কাতারে দাঁড়াতে নারীদেরও সময় লাগে না। অপরাধ জগতের বলয় বিচিত্র এবং জটিল। স্নেহশীল মায়ের মমতায় সিক্ত হওয়া সন্তানের জন্মগত অধিকার। তেমন দাবি খর্বিত হতেও সময় লাগে না। প্রতিহিংসায় মাতৃশৌর্য ধুলায় লুণ্ঠিত হওয়ার অসহনীয় চিত্রও সবাইকে বিস্মিত করে দেয়। আবার কোন কন্যা সন্তানের স্নেহশীল পিতা-মাতার ঘাতক হতেও সময় নিতে হয় না। সঙ্গত কারণে অপরাধের ঘৃণ্য বলয় নারী-পুরুষের পদচারণায় সমানভাবে পিষ্ট, দলিত মথিত। নারী অপরাধীদের অবশ্যই আলাদা কারাকক্ষে রাখা এক প্রকার আইনী বিধান। নারীদের জন্যও প্রস্তুত করা হয়েছে দেশের বৃহত্তম মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগার। এতদিন যা ছিল বিক্ষিপ্ত, অসংলগ্ন এখন তাতে এসেছে নতুন মাত্রা, আধুনিক ব্যবস্থাপনা এবং সময়ের উপযোগী কারা অন্তরীণ ভোগ করা। ২৭ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দেশের সববৃহৎ মহিলা কারগারটি উদ্বোধন করেন। নিরাপত্তা বেষ্টনীর নিñিদ্র বলয় থেকে শুরু করে আধুনিক মানসম্মত সমস্ত সুযোগ সুবিধা সংবলিত এই মহিলা কারগারটি বহু সম্ভাবনায় তার নতুন যাত্রা শুরু করেছে। বৃহৎ আকারের এই কেন্দ্রীয় মহিলা কারগার কেরানীগঞ্জের মূল কারগারের সঙ্গে সমন্বিত করে তার প্রযুক্তিগত সেবাকে সবার মাঝে পৌঁছে দিতে সব ধরনের কার্যক্রম চালু রাখা হয়েছে। ভার্চুয়াল কোর্ট বসানো থেকে আরম্ভ করে প্রযুুক্তির মাধ্যমে সেবাদান প্রকল্প চালু করা বাংলাদেশের নবযাত্রার এক উল্লেখযোগ্য নির্দেশনা। করোনা দুর্যোগে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে গিয়ে শারীরিক উপস্থিতিকে যেভাবে পরিহার করা হয়েছে, সেখানে নতুনভাবে সম্পৃক্ত হলো ডিজিটাল ব্যবস্থায় মামলা পরিচালনা করা। এটি নতুন ও আধুনিক বাংলাদেশের আর এক নব পথযাত্রা তো বটেই। প্রধানমন্ত্রী দেশের নারী জাতির জন্য যে অনন্য পথরেখায় তাদের নতুন সময়ের সঙ্গে একীভূত করার পরিকল্পনা করেছেন, সেখানে এই বৃহৎ মহিলা কারাগার একটি ইতিবাচক অগ্রগতি। একজন বন্দীর যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন কর্মসম্পাদন বর্তমান এই মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগার ভিন্ন মাত্রার এক আধুনিক মেগা প্রকল্প।

আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগ এর সদস্য নির্বাচিত (২০২২) এর গনসংবর্ধনা

দেশের প্রথম মহিলা কারাগার

আপডেট টাইম : ০৮:৫২:২০ পূর্বাহ্ণ, বুধবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২০

আমাদের কাগজ মানুষের কথা বলে।।

সামাজিক শৃঙ্খলে আটকে পড়া নারীরাও অপরাধ জগতের ভয়ঙ্কর আগ্রাসন থেকে কোনভাবেই মুক্ত নয়। সমাজের অপেক্ষাকৃত দুর্বল এবং পিছিয়ে পড়া এই অর্ধাংশকে এমনিতেই বিভিন্ন বঞ্চনা, নিপীড়ন এবং অধিকারহীনতায় তাদের ঝঞ্ঝা বিক্ষুব্ধ জীবনকে বয়ে বেড়াতে হয়। যেখানে পেশী শক্তির দুর্বৃত্তায়নই শুধু নয়, নানামাত্রিক লোভাতুর হাতছানিতে সমাজ বহির্ভূত ঘৃণ্য অপকর্মে জড়িয়ে পড়া এক দুঃসহ চিত্র। অপরাধের মাত্রা বিবেচনায় রেখে এসব অপরাধী নারীকে আটক করে কারাগারে রাখার আদেশও জারি হয়। পরকীয়ায় লিপ্ত হয়ে স্বামী সন্তানকে খুনই শুধু নয়, আরও মারাত্মক ঘটনা সংঘটিত করে অপরাধীর কাতারে দাঁড়াতে নারীদেরও সময় লাগে না। অপরাধ জগতের বলয় বিচিত্র এবং জটিল। স্নেহশীল মায়ের মমতায় সিক্ত হওয়া সন্তানের জন্মগত অধিকার। তেমন দাবি খর্বিত হতেও সময় লাগে না। প্রতিহিংসায় মাতৃশৌর্য ধুলায় লুণ্ঠিত হওয়ার অসহনীয় চিত্রও সবাইকে বিস্মিত করে দেয়। আবার কোন কন্যা সন্তানের স্নেহশীল পিতা-মাতার ঘাতক হতেও সময় নিতে হয় না। সঙ্গত কারণে অপরাধের ঘৃণ্য বলয় নারী-পুরুষের পদচারণায় সমানভাবে পিষ্ট, দলিত মথিত। নারী অপরাধীদের অবশ্যই আলাদা কারাকক্ষে রাখা এক প্রকার আইনী বিধান। নারীদের জন্যও প্রস্তুত করা হয়েছে দেশের বৃহত্তম মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগার। এতদিন যা ছিল বিক্ষিপ্ত, অসংলগ্ন এখন তাতে এসেছে নতুন মাত্রা, আধুনিক ব্যবস্থাপনা এবং সময়ের উপযোগী কারা অন্তরীণ ভোগ করা। ২৭ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দেশের সববৃহৎ মহিলা কারগারটি উদ্বোধন করেন। নিরাপত্তা বেষ্টনীর নিñিদ্র বলয় থেকে শুরু করে আধুনিক মানসম্মত সমস্ত সুযোগ সুবিধা সংবলিত এই মহিলা কারগারটি বহু সম্ভাবনায় তার নতুন যাত্রা শুরু করেছে। বৃহৎ আকারের এই কেন্দ্রীয় মহিলা কারগার কেরানীগঞ্জের মূল কারগারের সঙ্গে সমন্বিত করে তার প্রযুক্তিগত সেবাকে সবার মাঝে পৌঁছে দিতে সব ধরনের কার্যক্রম চালু রাখা হয়েছে। ভার্চুয়াল কোর্ট বসানো থেকে আরম্ভ করে প্রযুুক্তির মাধ্যমে সেবাদান প্রকল্প চালু করা বাংলাদেশের নবযাত্রার এক উল্লেখযোগ্য নির্দেশনা। করোনা দুর্যোগে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে গিয়ে শারীরিক উপস্থিতিকে যেভাবে পরিহার করা হয়েছে, সেখানে নতুনভাবে সম্পৃক্ত হলো ডিজিটাল ব্যবস্থায় মামলা পরিচালনা করা। এটি নতুন ও আধুনিক বাংলাদেশের আর এক নব পথযাত্রা তো বটেই। প্রধানমন্ত্রী দেশের নারী জাতির জন্য যে অনন্য পথরেখায় তাদের নতুন সময়ের সঙ্গে একীভূত করার পরিকল্পনা করেছেন, সেখানে এই বৃহৎ মহিলা কারাগার একটি ইতিবাচক অগ্রগতি। একজন বন্দীর যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন কর্মসম্পাদন বর্তমান এই মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগার ভিন্ন মাত্রার এক আধুনিক মেগা প্রকল্প।