ঢাকা ০৬:৫৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
মেট্রোরেল স্টেশনের ধ্বংসলীলা দেখে কাঁদলেন প্রধানমন্ত্রী রুশ এমআই-২৮ সামরিক হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত মস্কোর দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত কালুগা অঞ্চলে আজ বৃহস্পতিবার হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয় কে হামলা চালাবে—বিএনপির নীল নকশা আগেই প্রস্তুত ছিল: কাদের ৪ দিন কোথায় কী অবস্থায় ছিলেন সমন্বয়ক আসিফ সারা দেশে হাজারো প্রাণ কেড়ে নেওয়ার ব্যাপারে সরকার কোনো কথা বলছে না: মির্জা ফখরুল সব ধরনের সহিংসতার হুমকি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র ডিএমপির তিন যুগ্ম-কমিশনারকে স্থান বদলি বাসে আগুন দিতে ৪ লাখ টাকায় চুক্তি, শ্রমিক লীগ নেতা গ্রেপ্তার রোকেয়া হলে ছাত্রলীগ নেত্রীদের হলছাড়া করল আন্দোলনকারীরা আন্দোলনকারীদের মৃত্যুর জন্য সরকারের পক্ষ থেকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে, ৩৩ নাগরিকের বিবৃতি বিবৃতিতে বলা হয়, দাবি আদায় করতে হয় জীবনের বিনিময়ে বা দমন করতে হয় হত্যা করে

বে-পরোয়া ট্রাকের চাপায় হারিয়ে গেলো দু’টি তাজা প্রাণ,আহত-৪

  • আপডেট টাইম : ০৪:১২:৫৬ অপরাহ্ণ, মঙ্গলবার, ২ জুলাই ২০২৪
  • / ২৪ ৫০০.০০০ বার পাঠক

সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলায় বে-পরোয়া ট্রাকের মুখামুখি সংঘর্ষে অকালে প্রাণ হারালেন রেখা বেগম(৩৮)ও সিএনজি চালক দবির মিয়া(৩১)এ-সময় দুর্ঘটনা এলাকা থেকে উদ্ধার করে আরও চারজনকে গুরুতর আহতাবস্থায় সিলেট প্রেরণ করা হয়েছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষকারীর মারফতে জানাযায়, ৩০(জুন)রোববার বিকেলে জগন্নাথপুর সদর থেকে সিএনজি ভাড়া করে নিহতের নিজ বাড়ির উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন।
এ-সময় সুনামগঞ্জ-জগন্নাথপুর আঞ্চলিক মহা-সড়কের কলকলিয়া ইউনিয়নের খাশিলা নামক এলাকায় পৌঁছামাত্র বিপরীত দিক থেকে দ্রুতগামী বে-পরোয়া গতিতে একটি মালবাহী ট্রাক ও সিএনজির মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।সংঘর্ষে ওই অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়।এতে মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় ছাতক উপজেলার ভাতগাঁও ইউনিয়নের ঝিগলী (সুলেমানপুর)গ্রামের সুহেল মিয়ার স্ত্রী রেখা বেগম(৩৮) ঘটনাস্থলেই মৃত্যুবরণ করেন।
এ-সময় তার সাথে সিএনজিতে থাকা শাশুড়ি আয়জান বিবি(৬৫),ননদ রেনু বেগম(৩০), জাকির মিয়া(২২) ও সিএনজি চালক শফিক মিয়া(৩০)সহ চারজনকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
এ-দিকে ২৭(জুন)বৃহস্পতিবার একই এলাকায় বে-পরোয়া দ্রুতগামী ট্রাকের ধাক্কায় সিএনজি (অটোরিকশার)চালক জগন্নাথপুর পৌর-শহরের হবিবনগর এলাকার চান্দালি মিয়ার পু্ত্র দবির মিয়া(৩০)অকালে প্রাণ হারান।
তিন দিনের মাথায় দুইটি তাজা প্রাণ কেড়ে নিল ঘাতক ট্রাক।
উপজেলা দিয়ে যাতায়াতকারী বে-পরোয়া ট্রাকের লাগাম এখনই টানতে না পারলে আগামীতে আরও বে-পরোয়া হয়ে তাদের ইচ্ছে খুশি মতে ট্রাক চালিয়ে যত্রতত্র মানুষকে খুন করবে বলে অভিজ্ঞ মহল মনে করেন।
ট্রাকের চাপায় প্রাণহানির ঘটনায় জগন্নাথপুর উপজেলা সহ আশ-পাশ এলাকায় মারাত্মক ট্রাক আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্ম-কর্তা আল-বশিরুল ইসলাম ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)রিয়াদ বিন ইব্রাহিম ভূঞা।
এ-ব্যাপারে নিশ্চিত করে জগন্নাথপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।নিহত রেখা বেগমের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। অপর নিহত দবির মিয়ার লাশ ময়নাতদন্ত শেষে তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়ছে।
জনতার সহযোগিতায় চালক সহ দুর্ঘটনাকারী ঘাতক দুইটি ট্রাকই আমরা আটক করতে সক্ষম হয়েছি।

আরো খবর.......

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বে-পরোয়া ট্রাকের চাপায় হারিয়ে গেলো দু’টি তাজা প্রাণ,আহত-৪

আপডেট টাইম : ০৪:১২:৫৬ অপরাহ্ণ, মঙ্গলবার, ২ জুলাই ২০২৪

সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলায় বে-পরোয়া ট্রাকের মুখামুখি সংঘর্ষে অকালে প্রাণ হারালেন রেখা বেগম(৩৮)ও সিএনজি চালক দবির মিয়া(৩১)এ-সময় দুর্ঘটনা এলাকা থেকে উদ্ধার করে আরও চারজনকে গুরুতর আহতাবস্থায় সিলেট প্রেরণ করা হয়েছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষকারীর মারফতে জানাযায়, ৩০(জুন)রোববার বিকেলে জগন্নাথপুর সদর থেকে সিএনজি ভাড়া করে নিহতের নিজ বাড়ির উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন।
এ-সময় সুনামগঞ্জ-জগন্নাথপুর আঞ্চলিক মহা-সড়কের কলকলিয়া ইউনিয়নের খাশিলা নামক এলাকায় পৌঁছামাত্র বিপরীত দিক থেকে দ্রুতগামী বে-পরোয়া গতিতে একটি মালবাহী ট্রাক ও সিএনজির মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।সংঘর্ষে ওই অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়।এতে মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় ছাতক উপজেলার ভাতগাঁও ইউনিয়নের ঝিগলী (সুলেমানপুর)গ্রামের সুহেল মিয়ার স্ত্রী রেখা বেগম(৩৮) ঘটনাস্থলেই মৃত্যুবরণ করেন।
এ-সময় তার সাথে সিএনজিতে থাকা শাশুড়ি আয়জান বিবি(৬৫),ননদ রেনু বেগম(৩০), জাকির মিয়া(২২) ও সিএনজি চালক শফিক মিয়া(৩০)সহ চারজনকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
এ-দিকে ২৭(জুন)বৃহস্পতিবার একই এলাকায় বে-পরোয়া দ্রুতগামী ট্রাকের ধাক্কায় সিএনজি (অটোরিকশার)চালক জগন্নাথপুর পৌর-শহরের হবিবনগর এলাকার চান্দালি মিয়ার পু্ত্র দবির মিয়া(৩০)অকালে প্রাণ হারান।
তিন দিনের মাথায় দুইটি তাজা প্রাণ কেড়ে নিল ঘাতক ট্রাক।
উপজেলা দিয়ে যাতায়াতকারী বে-পরোয়া ট্রাকের লাগাম এখনই টানতে না পারলে আগামীতে আরও বে-পরোয়া হয়ে তাদের ইচ্ছে খুশি মতে ট্রাক চালিয়ে যত্রতত্র মানুষকে খুন করবে বলে অভিজ্ঞ মহল মনে করেন।
ট্রাকের চাপায় প্রাণহানির ঘটনায় জগন্নাথপুর উপজেলা সহ আশ-পাশ এলাকায় মারাত্মক ট্রাক আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্ম-কর্তা আল-বশিরুল ইসলাম ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)রিয়াদ বিন ইব্রাহিম ভূঞা।
এ-ব্যাপারে নিশ্চিত করে জগন্নাথপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।নিহত রেখা বেগমের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। অপর নিহত দবির মিয়ার লাশ ময়নাতদন্ত শেষে তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়ছে।
জনতার সহযোগিতায় চালক সহ দুর্ঘটনাকারী ঘাতক দুইটি ট্রাকই আমরা আটক করতে সক্ষম হয়েছি।