ঢাকা ০৪:২৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
ঘূর্ণিঝড় রেমালের তাণ্ডবে সারাদেশে ৫ জনের মৃত্যু, নিখোঁজ শিশুসহ ২ জামালপুরে নকশি কাথা শিল্পে গ্রামীন মহিলারা আত্মকর্মসংস্থান খুঁজে পেয়েছে পাকুন্দিয়া -কিশোরগঞ্জ হাইওয়ে রোড নির্মাণ কাজের অগ্রহগতি সরেজমিনে পরিদর্শন করেন এডভোকেট মো.সোহরাব উদ্দীন এমপি ইপিজেড থানা পুলিশের অভিযানে (৫০)লিটার দেশীয় তৈরী চোলাই মদ সহ একজন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার আবারো বাংলাদেশি যুবক আশিকের বিশ্ব রেকর্ড বিমান বাহিনীর নতুন প্রধান হাসান মাহমুদ খাঁন আজ ঘূর্ণিঝড় রেমাল বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে ২৫ লাখ গ্রাহক মোংলায় ঘূর্ণিঝড় রিমেল মোকাবেলায় ব্যাপক কাজ করছে উপজেলা প্রশাসন রায়পুরে সেপটিক ট্যাংকে নেমে আবারও দুই যুবকে মৃত্যু জামালপুরে সবজি চাষে জৈব সার ব্যবহারের উদ্যোগ

জয়ের কাছে চলে যাওয়া ইংল্যান্ডকেই হারাল ভারত!

খেলাধুলার রিপোর্টার।।

ম্যাচ শেষ ওভার পর্যন্ত জমিয়ে রেখেছিল ইংল্যান্ড। কিন্তু অসাধারণ বোলিংয়ে শেষ হাসি হাসলো বিরাট কোহলিরাই। চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডকে মাত্র ৮ রানে হারিয়ে সিরিজে ২-২ সমতা ফিরিয়েছে স্বাগতিকরা। ফলে শেষ ম্যাচটি সিরিজ নির্ধারক হয়ে থাকল।

নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করেছিল স্বাগতিকরা। প্রতিষ্ঠিত ব্যাটসম্যানরা হাত খুলতে না পারলেও ঝলক দেখালেন সূর্যকুমার যাদব। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হলেও ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাননি। তাই প্রথমবার ব্যাটিংয়ে নেমেই স্মরণীয় করে রাখলেন নিজের ইনিংসটিকে। ৩১ বলে ৬টি চার ও ৩ ছক্কায় করলেন ৫৭ রান। তাতে তৈরি হলো সমৃদ্ধ স্কোরবোর্ডের ভিত। এর পর ঋষভ পান্তের ২৩ বলে ৩০ ও শ্রেয়াস আইয়ারের ১৮ বলে ৩৭ রানে ভর করে ৮ উইকেটে ১৮৫ রানের বড় সংগ্রহ পায় স্বাগতিকরা। জোফরা আর্চার ৩৩ রানে ৪ উইকেট নিয়ে সেরা বোলার ছিলেন।

জবাবে ইংল্যান্ডরা কিন্তু জয়ের লক্ষ্যেই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণটা ধরে রেখেছিল। ১৫ রানে জশ বাটলার ফিরলে জেসন রয় ঠিকই ঝড়ো গতিতে রান তুলে যাচ্ছিলেন। মালান ১৪ রানে ফিরলে রয়ও ফেরেন ২৭ বলে ৪০ রান করে। এর পরেও সমস্যা ছিল না সফরকারীদের। একটা সময় পর্যন্ত আধিপত্য বিস্তার করে খেলেন জনি বেয়ারস্টো ও বেন স্টোকস। এই জুটিতে ভর করেই জয়ের আশা দেখছিল ইংলিশরা। কিন্তু চাহারের বলে বেয়ারস্টোর বিদায়ের পরই এলোমেলো সব। শার্দুল ঠাকুর এলে পর পর ফেরান ঝড়ো গতিতে খেলা বেন স্টোকস ও নতুন নামা ইয়ন মরগানকে। স্টোকস ২৩ বলে ৪টি চার ও ৩ ছক্কায় ৪৬ রান করেছেন। তখনই পাল্টে যায় ম্যাচের মোমেন্টাম।

শেষ দিকে জোফরা আর্চার তবু রোমাঞ্চ ছড়িয়েছিলেন কিছু দৃষ্টিনন্দন শট খেলে। শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ২৩ রান। একটি চার ও ছয় মেরে শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতিরও সৃষ্টি করেছিলেন এই ইংলিশ পেসার। কিন্তু শেষ তিন বলে তেমন কিছুই করতে পারেনি ইংলিশরা। উল্টো ১৯.৫ ওভারে ঠাকুরের বলে বিদায় নিয়েছেন ক্রিস জর্ডান। ফলে ৮ উইকেটে ১৭৭ রানেই শেষ হয়েছে ইংলিশদের ইনিংস।

৪২ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন ঠাকুর। দুটি করে নিয়েছেন হার্দিক পান্ডিয়া ও রাহুল চাহার। ম্যাচসেরা প্রথম ব্যাটিংয়ে নেমে ফিফটি করা সূর্যকুমার যাদব।

আরো খবর.......

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ঘূর্ণিঝড় রেমালের তাণ্ডবে সারাদেশে ৫ জনের মৃত্যু, নিখোঁজ শিশুসহ ২

জয়ের কাছে চলে যাওয়া ইংল্যান্ডকেই হারাল ভারত!

আপডেট টাইম : ০৬:৪১:০৫ পূর্বাহ্ণ, শুক্রবার, ১৯ মার্চ ২০২১

খেলাধুলার রিপোর্টার।।

ম্যাচ শেষ ওভার পর্যন্ত জমিয়ে রেখেছিল ইংল্যান্ড। কিন্তু অসাধারণ বোলিংয়ে শেষ হাসি হাসলো বিরাট কোহলিরাই। চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডকে মাত্র ৮ রানে হারিয়ে সিরিজে ২-২ সমতা ফিরিয়েছে স্বাগতিকরা। ফলে শেষ ম্যাচটি সিরিজ নির্ধারক হয়ে থাকল।

নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করেছিল স্বাগতিকরা। প্রতিষ্ঠিত ব্যাটসম্যানরা হাত খুলতে না পারলেও ঝলক দেখালেন সূর্যকুমার যাদব। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হলেও ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাননি। তাই প্রথমবার ব্যাটিংয়ে নেমেই স্মরণীয় করে রাখলেন নিজের ইনিংসটিকে। ৩১ বলে ৬টি চার ও ৩ ছক্কায় করলেন ৫৭ রান। তাতে তৈরি হলো সমৃদ্ধ স্কোরবোর্ডের ভিত। এর পর ঋষভ পান্তের ২৩ বলে ৩০ ও শ্রেয়াস আইয়ারের ১৮ বলে ৩৭ রানে ভর করে ৮ উইকেটে ১৮৫ রানের বড় সংগ্রহ পায় স্বাগতিকরা। জোফরা আর্চার ৩৩ রানে ৪ উইকেট নিয়ে সেরা বোলার ছিলেন।

জবাবে ইংল্যান্ডরা কিন্তু জয়ের লক্ষ্যেই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণটা ধরে রেখেছিল। ১৫ রানে জশ বাটলার ফিরলে জেসন রয় ঠিকই ঝড়ো গতিতে রান তুলে যাচ্ছিলেন। মালান ১৪ রানে ফিরলে রয়ও ফেরেন ২৭ বলে ৪০ রান করে। এর পরেও সমস্যা ছিল না সফরকারীদের। একটা সময় পর্যন্ত আধিপত্য বিস্তার করে খেলেন জনি বেয়ারস্টো ও বেন স্টোকস। এই জুটিতে ভর করেই জয়ের আশা দেখছিল ইংলিশরা। কিন্তু চাহারের বলে বেয়ারস্টোর বিদায়ের পরই এলোমেলো সব। শার্দুল ঠাকুর এলে পর পর ফেরান ঝড়ো গতিতে খেলা বেন স্টোকস ও নতুন নামা ইয়ন মরগানকে। স্টোকস ২৩ বলে ৪টি চার ও ৩ ছক্কায় ৪৬ রান করেছেন। তখনই পাল্টে যায় ম্যাচের মোমেন্টাম।

শেষ দিকে জোফরা আর্চার তবু রোমাঞ্চ ছড়িয়েছিলেন কিছু দৃষ্টিনন্দন শট খেলে। শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ২৩ রান। একটি চার ও ছয় মেরে শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতিরও সৃষ্টি করেছিলেন এই ইংলিশ পেসার। কিন্তু শেষ তিন বলে তেমন কিছুই করতে পারেনি ইংলিশরা। উল্টো ১৯.৫ ওভারে ঠাকুরের বলে বিদায় নিয়েছেন ক্রিস জর্ডান। ফলে ৮ উইকেটে ১৭৭ রানেই শেষ হয়েছে ইংলিশদের ইনিংস।

৪২ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন ঠাকুর। দুটি করে নিয়েছেন হার্দিক পান্ডিয়া ও রাহুল চাহার। ম্যাচসেরা প্রথম ব্যাটিংয়ে নেমে ফিফটি করা সূর্যকুমার যাদব।