ঢাকা ০৪:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২
সংবাদ শিরোনাম ::
বারইখালিতে পুত্রের সামনে বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করা, আসামি ফরিদ ও আসিফ গ্রেফতার নান্দাইলে বিদ্যুৎপৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু বাংলাদেশী তৈরি টুটু পিস্তল,চাইনিজ কুড়াল ৫০০ গ্রাম গাঁজা সহ ০৪ জন কিশোর গ্যাং এর সদস্য গ্রেফতার বাগেরহাট জেলার মোরেলগঞ্জে মটরসাইকেল চালককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা, ছেলের অবস্থা আশঙ্কাজনক নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ এর মিজমিজি এলাকায় বৈধ গ্যাস লাইন পুনঃ সংযোগ এর দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন মোংলায় ২৮৪ জন বনদস্যুকে ঈদ উপহার দিলো র‌্যাব-৮ লক্ষ্মীপুরে টাকা আত্মসাতের মামলায় চেয়ারম্যান কারাগারে লক্ষ্মীপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বীজ ব্যবসায়ীর জরিমানা কুয়াকাটা সৈকতে পদ্মার ঢেউ, পর্যটকরা এখন দক্ষিণমুখী নিজ প্রতিভার বিকাশ ঘটিয়ে দর্শকদের দৃষ্টি কেড়েছে ৩য় শ্রেণির ছাত্রী লাবিবা

সাংবাদিক শাকিল আহমেদ এর বাড়িতে ঢুকে পরিবারের স্বজনদের উপর সন্ত্রাসীদের হামলার ঘটনায় দুই জন   গ্রেপ্তার  ।

আবদুল্লাহ আল সুমন বিশেষ প্রতিনিধি।।

ঠাকুরগাঁও রোববার রাতে শহরের বিসিক শিল্প নগরী এলাকা থেকে একজনকে ও সোমবার সকালে সদর হাসপাতালের সামনে থেকে আরেক জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, শহরের কলেজপাড়া (আদম নগর) এলাকার মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে বুলবুল ওরফে বুলু (৪৮) ও তার ছোট ভাই রুবেল (২৪)।

মামলার বিবরণে বলা হয়, গত ২৩ ফেব্রয়ারি বিকেলে শহরের কলেজপাড়া (আদম নগর) এলাকায় সাংবাদিক শাকিল আহমেদ এর বাড়ির পাশে টাঙ্গন নদীর ধারে একটি বড়ই গাছে বড়ই পাড়তে যায় তার চাচাতো ভাই শিশু আবিদ (১০)। এসময় প্রতিবেশী রেজাউল, রইসুল সহ তার ভায়েরা শিশু আবিদকে চরথাপ্পর দেয়।

 

খবর পেয়ে সাংবাদিক শাকিল তাৎক্ষনিক বাড়িতে এসে পরিবারের সদস্যদের সাথে বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে শুরু করে। এসময় রেজাউল, রইসুল, বুলবুল ওরফে বুলু সহ তার ৮ ভাই ও বেশকিছু সন্ত্রাসী ধারালো দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সাংবাদিক শাকিলের বাড়িতে ঢুকে তার উপর অতর্কিতভাবে হামলা করে। এসময় সাংবাদিক শাকিলকে বাচাঁতে এগিয়ে আসলে তার বাবা আদম আলী, মা শাকিলা আক্তার, বড় চাচা আলম আলী ও চাচাতো ভাই লাবুকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে রেজাউল, রইসুল, বুলু সহ তার ৮ ভাই ও বেশকিছু সন্ত্রাসী।

 

পরে এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে রেজাউল, রইসুল, বুলু সহ তার ৮ ভাই ও বেশকিছু সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায় এবং পরে স্থানীয়রা রক্তাক্ত অবস্থায় আহতদের উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। আহতদের মধ্যে আলম আলীর অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে কর্তব্যরত চিকৎসক তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে।

 

এ ঘটনায় পরদিন ২৪ ফেব্রয়ারি সাংবাদিক শাকিল আহমেদ বাদী হয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় ৮ জনের নাম উল্লেখ করে ও ৭ জনকে অজ্ঞাত আসামী করা হয়।ঠাকুরগাঁও সদর থানার অফিসার ইনচার্জ তানভিরুল ইসলাম বলেন, এখন পর্যন্ত এ মামলায় ২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেপ্তার করার জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে। সেই সাথে মামলার তদন্ত চলছে।

 

সাংবাদিক শাকিল আহমেদ বলেন, পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে রেজাউল, রইসুল, বুলু সহ তার ৮ ভাই ও বেশকিছু সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমার ও আমার পরিবারের উপর হামলা করেছে। এতে আমার বাবা, মা, চাচা ও চাচাতো ভাই গুরুতর ভাবে আহত হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।

জাতীয় আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বারইখালিতে পুত্রের সামনে বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করা, আসামি ফরিদ ও আসিফ গ্রেফতার

সাংবাদিক শাকিল আহমেদ এর বাড়িতে ঢুকে পরিবারের স্বজনদের উপর সন্ত্রাসীদের হামলার ঘটনায় দুই জন   গ্রেপ্তার  ।

আপডেট টাইম : ১২:২০:০৬ অপরাহ্ণ, সোমবার, ১ মার্চ ২০২১

আবদুল্লাহ আল সুমন বিশেষ প্রতিনিধি।।

ঠাকুরগাঁও রোববার রাতে শহরের বিসিক শিল্প নগরী এলাকা থেকে একজনকে ও সোমবার সকালে সদর হাসপাতালের সামনে থেকে আরেক জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, শহরের কলেজপাড়া (আদম নগর) এলাকার মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে বুলবুল ওরফে বুলু (৪৮) ও তার ছোট ভাই রুবেল (২৪)।

মামলার বিবরণে বলা হয়, গত ২৩ ফেব্রয়ারি বিকেলে শহরের কলেজপাড়া (আদম নগর) এলাকায় সাংবাদিক শাকিল আহমেদ এর বাড়ির পাশে টাঙ্গন নদীর ধারে একটি বড়ই গাছে বড়ই পাড়তে যায় তার চাচাতো ভাই শিশু আবিদ (১০)। এসময় প্রতিবেশী রেজাউল, রইসুল সহ তার ভায়েরা শিশু আবিদকে চরথাপ্পর দেয়।

 

খবর পেয়ে সাংবাদিক শাকিল তাৎক্ষনিক বাড়িতে এসে পরিবারের সদস্যদের সাথে বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে শুরু করে। এসময় রেজাউল, রইসুল, বুলবুল ওরফে বুলু সহ তার ৮ ভাই ও বেশকিছু সন্ত্রাসী ধারালো দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সাংবাদিক শাকিলের বাড়িতে ঢুকে তার উপর অতর্কিতভাবে হামলা করে। এসময় সাংবাদিক শাকিলকে বাচাঁতে এগিয়ে আসলে তার বাবা আদম আলী, মা শাকিলা আক্তার, বড় চাচা আলম আলী ও চাচাতো ভাই লাবুকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে রেজাউল, রইসুল, বুলু সহ তার ৮ ভাই ও বেশকিছু সন্ত্রাসী।

 

পরে এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে রেজাউল, রইসুল, বুলু সহ তার ৮ ভাই ও বেশকিছু সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায় এবং পরে স্থানীয়রা রক্তাক্ত অবস্থায় আহতদের উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। আহতদের মধ্যে আলম আলীর অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে কর্তব্যরত চিকৎসক তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে।

 

এ ঘটনায় পরদিন ২৪ ফেব্রয়ারি সাংবাদিক শাকিল আহমেদ বাদী হয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় ৮ জনের নাম উল্লেখ করে ও ৭ জনকে অজ্ঞাত আসামী করা হয়।ঠাকুরগাঁও সদর থানার অফিসার ইনচার্জ তানভিরুল ইসলাম বলেন, এখন পর্যন্ত এ মামলায় ২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেপ্তার করার জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে। সেই সাথে মামলার তদন্ত চলছে।

 

সাংবাদিক শাকিল আহমেদ বলেন, পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে রেজাউল, রইসুল, বুলু সহ তার ৮ ভাই ও বেশকিছু সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমার ও আমার পরিবারের উপর হামলা করেছে। এতে আমার বাবা, মা, চাচা ও চাচাতো ভাই গুরুতর ভাবে আহত হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।