ঢাকা ০৮:০১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২
সংবাদ শিরোনাম ::
ফুলবাড়ী উপজেলা স্কাউটস ভবন কাজের ভিত্তি স্থাপন ও শীতকালী ক্রীড়া প্রতিযোগীর শুভ উদ্বোধন লক্ষ্মীপুরে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন,ঘাতক ভাই আটক জমি বিরোধের জের- বৃদ্ধকে কুপিয়ে হত্যা পুলিশের অসহযোগীর অভিযোগ ওয়াজ মাহফিল ইসলাম প্রচারের চমৎকার এক মাধ্যম: মাওলানা আব্দুল কাইয়ূম সাহেব বশেমুরবিপ্রবিতে সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে মতবিনিময় সভা দাউদকান্দি হাইওয়েতে সড়ক দুর্ঘটনায় একজনের মৃত্যু চট্রগ্রামের আলিচিত আয়াত হত্যা দেহের দুই টুকরার খোঁজ মিলেছে সাগরপাড়ে তারাকান্দায় জেলা প্রশাসকের বদলি জনিত বিদায় সংবর্ধনা নৌবাহিনী তে চাকুরীর প্রলোভনে ৩ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন ইব্রাহিম দুলাল আশুলিয়ায় চাঁদা না পেয়ে নির্মানকাজে বাঁধা, নির্মানসামগ্রী লুট

ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে গৃহ শিক্ষকের যাবজ্জীবন

  • সময়ের কন্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : ০১:০০:১১ অপরাহ্ণ, বৃহস্পতিবার, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১
  • ১২০ বার পঠিত

নীলফামারী প্রতিনিধি।।

নীলফামারীর সৈয়দপুরে দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে গৃহশিক্ষককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। আজ বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় আসামির অনুপস্থিতিতে ওই রায় ঘোষণা করেন নীলফামারী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মো. আহসান তারেক। এছাড়াও তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ছয় মাসের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

সাজাপ্রাপ্ত ওয়াজেদ আলী টুকু সৈয়দপুর উপজেলার পূর্ব বেলপুকুর দেড়ানী গ্রামের মৃত খাতির আলীর ছেলে। মামলা দায়েরর পর থেকেই আসামি ওয়াজেদ আলী টুকু পলাতক রয়েছে।

মামলার নথির বিবরণ দিয়ে ওই আদালতের বিশেষ পিপি রমেন্দ্র নাথ বর্ধন বাপী বলেন, বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ২০০৪ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে দশম শ্রেণীর ওই ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে গৃহশিক্ষক ওয়াজেদ আলী টুকু। এক পর্যায়ে ওই ছাত্রী চার মাসের অন্তসত্ত্বা হয়ে পড়লে তাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায় ওয়াজেদ আলী টুকু। এঘটনায় ওই ছাত্রী বাদী হয়ে একই বছরের ২৪ জুন নীলফামারী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল- ১ আদালতে টুকুকে প্রধান করে তিন জনের নামের একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলাটি গ্রহণের পর আদালত সৈয়দপুর থানা পুলিশকে তদন্ত করে প্রদিবেদন দায়েরর নির্দেশ দেয়। মামলাটি তদন্ত শেষে সৈয়দপুর থানার উপ-পরিদর্শক আজগর আলী ২০০৪ সালের ১৫ আগষ্ট ওয়াজেদ আলী টুকুর বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

তিনি আরো জানান, মামলার দীর্ঘ শুনানী শেষে ওয়াজেদ আলী টুকুর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৯ (১) ধারা সন্দেহাতীত ভাবে প্রণাতি হওয়ায় তাকে উক্ত ধারায় যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। একই সাথে তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানার টাকা না দিলে তাকে আরো ছয় মাস কারাগারে থাকার আদেশ দিয়েছেন আদালতের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মো. আহসান তারেক।

আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

ফুলবাড়ী উপজেলা স্কাউটস ভবন কাজের ভিত্তি স্থাপন ও শীতকালী ক্রীড়া প্রতিযোগীর শুভ উদ্বোধন

ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে গৃহ শিক্ষকের যাবজ্জীবন

আপডেট টাইম : ০১:০০:১১ অপরাহ্ণ, বৃহস্পতিবার, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১

নীলফামারী প্রতিনিধি।।

নীলফামারীর সৈয়দপুরে দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে গৃহশিক্ষককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। আজ বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় আসামির অনুপস্থিতিতে ওই রায় ঘোষণা করেন নীলফামারী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মো. আহসান তারেক। এছাড়াও তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ছয় মাসের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

সাজাপ্রাপ্ত ওয়াজেদ আলী টুকু সৈয়দপুর উপজেলার পূর্ব বেলপুকুর দেড়ানী গ্রামের মৃত খাতির আলীর ছেলে। মামলা দায়েরর পর থেকেই আসামি ওয়াজেদ আলী টুকু পলাতক রয়েছে।

মামলার নথির বিবরণ দিয়ে ওই আদালতের বিশেষ পিপি রমেন্দ্র নাথ বর্ধন বাপী বলেন, বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ২০০৪ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে দশম শ্রেণীর ওই ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে গৃহশিক্ষক ওয়াজেদ আলী টুকু। এক পর্যায়ে ওই ছাত্রী চার মাসের অন্তসত্ত্বা হয়ে পড়লে তাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায় ওয়াজেদ আলী টুকু। এঘটনায় ওই ছাত্রী বাদী হয়ে একই বছরের ২৪ জুন নীলফামারী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল- ১ আদালতে টুকুকে প্রধান করে তিন জনের নামের একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলাটি গ্রহণের পর আদালত সৈয়দপুর থানা পুলিশকে তদন্ত করে প্রদিবেদন দায়েরর নির্দেশ দেয়। মামলাটি তদন্ত শেষে সৈয়দপুর থানার উপ-পরিদর্শক আজগর আলী ২০০৪ সালের ১৫ আগষ্ট ওয়াজেদ আলী টুকুর বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

তিনি আরো জানান, মামলার দীর্ঘ শুনানী শেষে ওয়াজেদ আলী টুকুর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৯ (১) ধারা সন্দেহাতীত ভাবে প্রণাতি হওয়ায় তাকে উক্ত ধারায় যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। একই সাথে তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানার টাকা না দিলে তাকে আরো ছয় মাস কারাগারে থাকার আদেশ দিয়েছেন আদালতের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মো. আহসান তারেক।