ঢাকা ০৯:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২৩
সংবাদ শিরোনাম ::
ভারতবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে শহীদ পরিবারের পাশে থাকার আহবান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী হোমনায় ইয়াবা ব্যবসায়ী,সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজিদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন লামা বনবিভাগের সাড়াশি ৯ টি ব্রীকফিল্ডের প্রায় ৯ হাজার ঘনফুট গাছ জব্দ বর্তমান সরকার উন্নয়ন বান্ধব সরকার এই সরকারের সময় গ্রামীণ অবকাঠামোয় ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে বাশিস পীরগঞ্জ শাখার নবনির্বাচিতদের শপথ পাঠ করা হয়েছে খুলনা নগরের-খাঁন এ সবুর রোড-(আপার যশোর রোড)-এ-চলছে-রাস্তা সম্পসারনের কাজ রাঙামাটিতে উপজাতীয় সন্ত্রাসীদের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে নিহত-১ সন্দ্বীপের বানীরহাটে একরাতে ১৮দোকান চুরি মেট্রোপলিটন পুলিশ (ট্রাফিক) বন্দর বিভাগের আয়োজনে সচেতনতামূলক সভা তারাকান্দায় গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী জন্মদিন উদযাপন

গোবিন্দগঞ্জে আলোচিত অটোচালক কনক হত্যা মামলার ৩ আসামী গ্রেফতার

গোবিন্দগঞ্জে আকোচিত অটোচালক কনক হত্যা মামলার ৩ আসামী গ্রেফতার

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের আলোচিত ইজিবাইক চালক কনক প্রামাণিক হত্যা মামলার তিন আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
সোমবার (২৩ জানুয়ারি) এক প্রেস রিলিজের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে গোবিন্দগঞ্জ থানার পক্ষ থেকে। কনক প্রামাণিকের মরদেহ উদ্ধারের মাত্র ১৮ ঘন্টার মধ্যেই প্রযুক্তির সহায়তায় হত্যার রহস্যের উন্মোচন ও ছিনতাইকৃত ইজিবাইকটিসহ আসামীদের গ্রেফতার করার কথা বলা হয়েছে ওই প্রেস রিলিজে।
গোবিন্দগঞ্জ থানা সূত্রে জানা গেছে,গত শনিবার দুপুরে জাতীয় জরুরীসেবার ৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে উপজেলার সাপমারা ইউনিয়নের রামপুর মৌজার রংপুর চিনিকলের বাণিজ্যিক খামারের একটি পুকুর থেকে অজ্ঞাত পরিচয় একটি ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি উপজেলার হরিরামপুর ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুরের ফুল মিয়ার পুত্র কনক প্রামাণিক (১৯) হিসেবে সেখানেই মরদেহের পরিচয় সনাক্ত হয়।
পেশায় ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক চালক কনক ৬ দিন পূর্বে ১৫ জানুয়ারি সন্ধ্যার পর থেকে নিখোঁজ ছিলেন বলে জানানো হয়। গোবিন্দগঞ্জ থানায় সেদিনই মামলা করেন মৃতের পরিবারের পক্ষ থেকে।

বিষয়টি গুরুত্বের সাথে বিবেচনায় নিয়ে গাইবান্ধার সহকারি পুলিশ সুপার (সি-সার্কেল) উদয় কুমার সাহার নেতৃত্বে একটি বিশেষ দল প্রযুক্তির সহায়তায় স্থানীয় এলাকা ও রংপুর মেট্রোপলিটন এলাকাসহ বিভাগের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায়। মাত্র ১৮ ঘন্টার অভিযানে পুলিশের এই বিশেষ দলটি ইজিবাইক চালক কনক প্রামাণিক হত্যার সাথে সরাসরি জড়িত তিন আসামীকে গ্রেফতার করে।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন, উপজেলার রামপুরা সরকারপাড়া গ্রামের মোজাম্মেল হকের দুই ছেলে হেলাল মিয়া (২২) ও দেলাল মিয়া (২০) এবং ক্রোড়গাছা গ্রামের ফেরদৌস মন্ডলের ছেলে সৌরভ মন্ডল (২০)। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ছিনিয়ে নেয়া অটো ইজিবাইকটিও উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা ইজিবাইকটি ছিনিয়ে নেয়ার সময় বাধা দেয়ায় চালক কনককে গলাটিপে হত্যার পর হাত-পা বেধে পুকুরের পানিতে ফেলে দেয়ার কথা স্বীকার করেছে। ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেয়ার জন্য আজ সোমবার আদালতে প্রেরণ করা হবে বলে প্রেস রিলিজে জানানো হয়।

আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ভারতবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে শহীদ পরিবারের পাশে থাকার আহবান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

গোবিন্দগঞ্জে আলোচিত অটোচালক কনক হত্যা মামলার ৩ আসামী গ্রেফতার

আপডেট টাইম : ১১:১২:৪৭ পূর্বাহ্ণ, সোমবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২৩

গোবিন্দগঞ্জে আকোচিত অটোচালক কনক হত্যা মামলার ৩ আসামী গ্রেফতার

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের আলোচিত ইজিবাইক চালক কনক প্রামাণিক হত্যা মামলার তিন আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
সোমবার (২৩ জানুয়ারি) এক প্রেস রিলিজের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে গোবিন্দগঞ্জ থানার পক্ষ থেকে। কনক প্রামাণিকের মরদেহ উদ্ধারের মাত্র ১৮ ঘন্টার মধ্যেই প্রযুক্তির সহায়তায় হত্যার রহস্যের উন্মোচন ও ছিনতাইকৃত ইজিবাইকটিসহ আসামীদের গ্রেফতার করার কথা বলা হয়েছে ওই প্রেস রিলিজে।
গোবিন্দগঞ্জ থানা সূত্রে জানা গেছে,গত শনিবার দুপুরে জাতীয় জরুরীসেবার ৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে উপজেলার সাপমারা ইউনিয়নের রামপুর মৌজার রংপুর চিনিকলের বাণিজ্যিক খামারের একটি পুকুর থেকে অজ্ঞাত পরিচয় একটি ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি উপজেলার হরিরামপুর ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুরের ফুল মিয়ার পুত্র কনক প্রামাণিক (১৯) হিসেবে সেখানেই মরদেহের পরিচয় সনাক্ত হয়।
পেশায় ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক চালক কনক ৬ দিন পূর্বে ১৫ জানুয়ারি সন্ধ্যার পর থেকে নিখোঁজ ছিলেন বলে জানানো হয়। গোবিন্দগঞ্জ থানায় সেদিনই মামলা করেন মৃতের পরিবারের পক্ষ থেকে।

বিষয়টি গুরুত্বের সাথে বিবেচনায় নিয়ে গাইবান্ধার সহকারি পুলিশ সুপার (সি-সার্কেল) উদয় কুমার সাহার নেতৃত্বে একটি বিশেষ দল প্রযুক্তির সহায়তায় স্থানীয় এলাকা ও রংপুর মেট্রোপলিটন এলাকাসহ বিভাগের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায়। মাত্র ১৮ ঘন্টার অভিযানে পুলিশের এই বিশেষ দলটি ইজিবাইক চালক কনক প্রামাণিক হত্যার সাথে সরাসরি জড়িত তিন আসামীকে গ্রেফতার করে।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন, উপজেলার রামপুরা সরকারপাড়া গ্রামের মোজাম্মেল হকের দুই ছেলে হেলাল মিয়া (২২) ও দেলাল মিয়া (২০) এবং ক্রোড়গাছা গ্রামের ফেরদৌস মন্ডলের ছেলে সৌরভ মন্ডল (২০)। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ছিনিয়ে নেয়া অটো ইজিবাইকটিও উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা ইজিবাইকটি ছিনিয়ে নেয়ার সময় বাধা দেয়ায় চালক কনককে গলাটিপে হত্যার পর হাত-পা বেধে পুকুরের পানিতে ফেলে দেয়ার কথা স্বীকার করেছে। ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেয়ার জন্য আজ সোমবার আদালতে প্রেরণ করা হবে বলে প্রেস রিলিজে জানানো হয়।