ঢাকা ০৭:২৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
সংবাদ শিরোনাম ::
বেস্ট অব দ্য বেস্টই চাকরি পাবে: এসপি কুমিল্লার -২ (হোমনা-তিতাস) আসনে বেগম খালেদা জিয়ার সাবেক এপিএস -২ এর বিরুদ্ধে বিএনপির রেজুলেশন, প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন ঠাকুরগাঁওয়ে ছেলের হাতে বাবা খুন পীরগঞ্জ উপজেলায় দক্ষিণ এশিয়ার সাহিত্য সংস্কৃতি বিষয়ক সম্মেলন”২৩ সুন্দরবন থেকে ২০ কেজি হরিণের মাংস সহ ডিঙ্গি নৌকা জব্দ মোংলা কোস্টগার্ডের অভিযানে ১৮৭ পিচ ইয়াবাসহ এক ব্যবসায়ী আটক বাদাঘাট বাজারে সিলেট জেলা পরিষদের ১৮ বছর পর জায়গা উদ্ধার রাজশাহীর নোহনপুরে সরিষার ফলন ও দামে খুশি কৃষক সাংবাদিক বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে লাইভ সাপোর্টে আছেন দোয়া চেয়েছেন মোহনপুরে রনি বাহিনী অস্ত্র ঠেকিয়ে টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ

পুনরায় এসএসসি-এইচএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ

সময়ের কন্ঠ রিপোর্টার।।

নতুন করে এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ করেছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। এই সিলেবাস গত বৃহস্পতিবার রাতে প্রকাশ করে সব শিক্ষা বোর্ড।

Nogod

এর আগে গত ২৫ জানুয়ারি এসএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ করার পর তা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

গত বৃহস্পতিবার এনসিটিবিতে আয়োজিত এক সভায় সিলেবাস আন্তঃশিক্ষাবোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির কাছে সংক্ষিপ্ত সিলেবাস জমা দেওয়া হয়। সিলেবাসটি এনসিটিবির পক্ষ থেকে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদের কাছে জমা দেওয়া হয়। এরপর সব বোর্ডের কাছে সেগুলো পাঠানো হয় এবং রাতেই তা প্রকাশ করা হয়।আগামী জুনে এসএসসি ও জুলাই-আগস্টে এইচএসসি পরীক্ষা গ্রহণের চিন্তা রয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের। ফলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর এসএসসিতে ৬০ কর্মদিবসে এবং এইচএসসিতে সর্বোচ্চ ৮০ কর্মদিবস ক্লাস করানোর পরিকল্পনা করে এবারের সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে।

এনসিটিবির একজন কর্মকর্তা জানান, যেটুকু না পড়লেই নয় শুধু সেটুকু অধ্যায় দিয়েই নতুন করে বিষয়ভিত্তিক সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে। ছোট হওয়া সিলেবাসে সব বিষয়েই প্রশ্নের বিভাজন ও নম্বর কাঠামো ঠিকই থাকবে। অর্থাৎ যে সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে সেখান থেকেই প্রশ্নপত্র প্রণয়ন করা হবে। তবে ইংরেজি বিষয়ে প্রশ্নের কাঠামোতে কিছু পরিবর্তন হয়েছে। এরমধ্যে ইংরেজির গ্রামার অংশের ন্যারেশন, বাক্যগঠনসহ বেশ কিছু অংশ বাদ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ইংরেজিতে রচনাও লিখন

সময়েরকন্ঠ

 

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রথম দফায় প্রকাশিত সিলেবাসে ২০ থেকে ৩০ শতাংশ বাদ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এবার প্রতিটি বিষয়ে ৩০ থেকে ৩৫ শতাংশ অধ্যায় নির্বাচন করে সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে। যেহেতু এবার কোনোভাবেই অটোপাস দেওয়ার পক্ষে রাজী নয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তাই শিক্ষার্থীরা যাতে সহজেই উত্তীর্ণ হতে পারে সে লক্ষ্যেই এসএসসি-এইচএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে।

আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বেস্ট অব দ্য বেস্টই চাকরি পাবে: এসপি

পুনরায় এসএসসি-এইচএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ

আপডেট টাইম : ০৬:২০:১২ অপরাহ্ণ, শুক্রবার, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১

সময়ের কন্ঠ রিপোর্টার।।

নতুন করে এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ করেছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। এই সিলেবাস গত বৃহস্পতিবার রাতে প্রকাশ করে সব শিক্ষা বোর্ড।

Nogod

এর আগে গত ২৫ জানুয়ারি এসএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ করার পর তা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

গত বৃহস্পতিবার এনসিটিবিতে আয়োজিত এক সভায় সিলেবাস আন্তঃশিক্ষাবোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির কাছে সংক্ষিপ্ত সিলেবাস জমা দেওয়া হয়। সিলেবাসটি এনসিটিবির পক্ষ থেকে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদের কাছে জমা দেওয়া হয়। এরপর সব বোর্ডের কাছে সেগুলো পাঠানো হয় এবং রাতেই তা প্রকাশ করা হয়।আগামী জুনে এসএসসি ও জুলাই-আগস্টে এইচএসসি পরীক্ষা গ্রহণের চিন্তা রয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের। ফলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর এসএসসিতে ৬০ কর্মদিবসে এবং এইচএসসিতে সর্বোচ্চ ৮০ কর্মদিবস ক্লাস করানোর পরিকল্পনা করে এবারের সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে।

এনসিটিবির একজন কর্মকর্তা জানান, যেটুকু না পড়লেই নয় শুধু সেটুকু অধ্যায় দিয়েই নতুন করে বিষয়ভিত্তিক সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে। ছোট হওয়া সিলেবাসে সব বিষয়েই প্রশ্নের বিভাজন ও নম্বর কাঠামো ঠিকই থাকবে। অর্থাৎ যে সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে সেখান থেকেই প্রশ্নপত্র প্রণয়ন করা হবে। তবে ইংরেজি বিষয়ে প্রশ্নের কাঠামোতে কিছু পরিবর্তন হয়েছে। এরমধ্যে ইংরেজির গ্রামার অংশের ন্যারেশন, বাক্যগঠনসহ বেশ কিছু অংশ বাদ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ইংরেজিতে রচনাও লিখন

সময়েরকন্ঠ

 

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রথম দফায় প্রকাশিত সিলেবাসে ২০ থেকে ৩০ শতাংশ বাদ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এবার প্রতিটি বিষয়ে ৩০ থেকে ৩৫ শতাংশ অধ্যায় নির্বাচন করে সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে। যেহেতু এবার কোনোভাবেই অটোপাস দেওয়ার পক্ষে রাজী নয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তাই শিক্ষার্থীরা যাতে সহজেই উত্তীর্ণ হতে পারে সে লক্ষ্যেই এসএসসি-এইচএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে।