ঢাকা ০৭:২৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩
সংবাদ শিরোনাম ::
ভারতবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে শহীদ পরিবারের পাশে থাকার আহবান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী হোমনায় ইয়াবা ব্যবসায়ী,সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজিদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন লামা বনবিভাগের সাড়াশি ৯ টি ব্রীকফিল্ডের প্রায় ৯ হাজার ঘনফুট গাছ জব্দ বর্তমান সরকার উন্নয়ন বান্ধব সরকার এই সরকারের সময় গ্রামীণ অবকাঠামোয় ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে বাশিস পীরগঞ্জ শাখার নবনির্বাচিতদের শপথ পাঠ করা হয়েছে খুলনা নগরের-খাঁন এ সবুর রোড-(আপার যশোর রোড)-এ-চলছে-রাস্তা সম্পসারনের কাজ রাঙামাটিতে উপজাতীয় সন্ত্রাসীদের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে নিহত-১ সন্দ্বীপের বানীরহাটে একরাতে ১৮দোকান চুরি মেট্রোপলিটন পুলিশ (ট্রাফিক) বন্দর বিভাগের আয়োজনে সচেতনতামূলক সভা তারাকান্দায় গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী জন্মদিন উদযাপন

হামলার বিচার না হলে আত্মহত্যা করব: ইডেন ছাত্রলীগ নেত্রী

হলের সিট নিয়ে দ্বন্দ্ব ইডেন ছাত্রলীগ সভাপতি ও সহ-সভাপতির। এরই জেরে সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌসকে আটক ও মারধরের অভিযোগ আনা হয়েছে সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা রাজিয়ার বিরুদ্ধে।

এই বিভক্তি থেকেই শুরু হয় ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের অন্তর্কোন্দল। এর পর একে একে বেরিয়ে এসেছে সিট বাণিজ্য, দলাদলি, সাধারণ শিক্ষার্থী নির্যাতনসহ নানা অভিযোগ।

নিজের ওপর হামলার বিচার দাবি করেছেন ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস। তার অভিযোগ, মারধর করে তাকে হল থেকে বের করে দিয়েছেন ছাত্রলীগ সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা রাজিয়া।

সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস অভিযোগ করে বলেন, রাজিয়া ও রিভা আপুর সঙ্গে আমাদের রাজনৈতিকভাবে মিলছে না। আমি দুই একটা জায়গায় জানিয়েছি। কিন্তু লেখক দাদা তো ফোনই ধরছেন না। আমার ওপর হামলার যদি বিচার না হয় তবে আগামীকালের মধ্যে আমি আত্মহত্যা করব।

এতেই দুটি পক্ষে বিভক্ত হয়ে পড়ে ইডেনের ছাত্রলীগ। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযোগ তোলে জান্নাতুল ফেরদৌসের সমর্থনে থাকা মেয়েরা। উঠে আসে সিট বাণিজ্য, দলাদলি, সাধারণ শিক্ষার্থী নির্যাতন, অবৈধ কাজের প্রস্তাবের মতো গুরুতর সব অভিযোগ।

অন্যদিকে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের পক্ষেও জড়ো হয় অনেকে। তারা চান জান্নাতুল ফেরদৌসের অপসারণ। এ বিষয়ে ইডেন কলেজের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ছাত্রী নিবাসের হল সুপার নাজমুন্নাহার বলেন, প্রশাসনের সঙ্গে বসে এখন আমরা চিন্তা করব কী করা যায়। দুপক্ষ কী চায় সেটা বসে ঠিক করব।

এ ঘটনায় ভোগান্তিতে পড়ে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীরা কলেজ প্রশাসনের ব্যর্থতার অভিযোগ করলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের কথা জানান হল সুপার।

আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ভারতবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে শহীদ পরিবারের পাশে থাকার আহবান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

হামলার বিচার না হলে আত্মহত্যা করব: ইডেন ছাত্রলীগ নেত্রী

আপডেট টাইম : ০৯:৫০:২৯ পূর্বাহ্ণ, রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

হলের সিট নিয়ে দ্বন্দ্ব ইডেন ছাত্রলীগ সভাপতি ও সহ-সভাপতির। এরই জেরে সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌসকে আটক ও মারধরের অভিযোগ আনা হয়েছে সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা রাজিয়ার বিরুদ্ধে।

এই বিভক্তি থেকেই শুরু হয় ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের অন্তর্কোন্দল। এর পর একে একে বেরিয়ে এসেছে সিট বাণিজ্য, দলাদলি, সাধারণ শিক্ষার্থী নির্যাতনসহ নানা অভিযোগ।

নিজের ওপর হামলার বিচার দাবি করেছেন ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস। তার অভিযোগ, মারধর করে তাকে হল থেকে বের করে দিয়েছেন ছাত্রলীগ সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা রাজিয়া।

সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস অভিযোগ করে বলেন, রাজিয়া ও রিভা আপুর সঙ্গে আমাদের রাজনৈতিকভাবে মিলছে না। আমি দুই একটা জায়গায় জানিয়েছি। কিন্তু লেখক দাদা তো ফোনই ধরছেন না। আমার ওপর হামলার যদি বিচার না হয় তবে আগামীকালের মধ্যে আমি আত্মহত্যা করব।

এতেই দুটি পক্ষে বিভক্ত হয়ে পড়ে ইডেনের ছাত্রলীগ। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযোগ তোলে জান্নাতুল ফেরদৌসের সমর্থনে থাকা মেয়েরা। উঠে আসে সিট বাণিজ্য, দলাদলি, সাধারণ শিক্ষার্থী নির্যাতন, অবৈধ কাজের প্রস্তাবের মতো গুরুতর সব অভিযোগ।

অন্যদিকে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের পক্ষেও জড়ো হয় অনেকে। তারা চান জান্নাতুল ফেরদৌসের অপসারণ। এ বিষয়ে ইডেন কলেজের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ছাত্রী নিবাসের হল সুপার নাজমুন্নাহার বলেন, প্রশাসনের সঙ্গে বসে এখন আমরা চিন্তা করব কী করা যায়। দুপক্ষ কী চায় সেটা বসে ঠিক করব।

এ ঘটনায় ভোগান্তিতে পড়ে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীরা কলেজ প্রশাসনের ব্যর্থতার অভিযোগ করলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের কথা জানান হল সুপার।