ঢাকা ০৬:২৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
কোটা সংস্কারের পক্ষে সরকার নীতিগতভাবে একমত: আইনমন্ত্রী ঘোষণার পর মানছেন না কোটা আন্দোলনকারীরা আমার ভাইদের ফেরত দেওয়া হোক আগে রায়পুরে বালু উত্তোলনে ভাঙন আতঙ্ক সরকারের কাছ থেকে দৃশ্যমান পদক্ষেপ ও সমাধানের পথ তৈরির প্রত্যাশা করে বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন শনির আখড়া-যাত্রাবাড়ী সড়কে চলছে সংঘর্ষ, যান চলালাচল অচল করে দিচ্ছেন ফেসবুক লাইভে এসে পদত্যাগের ঘোষণা ছাত্রলীগ নেতার উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত কমপ্লিট শাটডাউন ঢাকার সঙ্গে সব জেলার যোগাযোগ বন্ধ, টার্মিনাল থেকে ছাড়ছে না কোনো বাস ফুলবাড়ীর দৌলতপুর ইউনিয়নে গরু চুরির হিড়িক দেশবাসীর প্রতি মির্জা ফখরুলের আহ্বান, শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঢাবি, ৬টার মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশ

১৫ দিন গভীর সাগরে ভাসছিলো ২০ জেলে

সময়ের কন্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : ০১:৫৫:৩১ অপরাহ্ণ, সোমবার, ১০ জানুয়ারি ২০২২
  • / ১৯৯ ৫০০.০০০ বার পাঠক

ওমর ফারুক মোংলা : হঠাৎ ইঞ্জিন বিকল হয়ে গভীর সাগরে চরম সংকটে পড়ে যায় দ্বীপ জেলা ভোলার ২০ জন জেলে। এ অবস্থায় তারা টানা ১৫ দিন সাগরেই ভাসতে থাকেন। গত ১১ ডিসেম্বর থেকে সাগরে হারিয়ে যান এসব জেলেরা। একপর্যায়ে তাদের খাবারসহ প্রয়োজনীয় রসদ ফুরিয়ে গেলে বাঁচার আশা ছেড়ে দেন তারা।

পরে তাদের ফিসিং ট্রলার ” এফ বি আল্লার দান” ভাসতে ভাসতে বাংলাদেশের জলসীমা অতিক্রম করে ভারতীয় জলসীমায় চলে যায়। গত ২৬ ডিসেম্বর ভারতীয় কোস্টগার্ড ওই ফিসিং ট্রলারসহ ২০ জন জেলেদের সংকটাপন্ন অবস্থায় উদ্ধার করে। খবর পেয়ে সেখান থেকে বাংলাদেশের কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন (মোংলা সদর দপ্তর) ৯ জানুয়ারি (রবিবার) দুই দেশের সমঝোতার মাধ্যমে বাংলাদেশে নিয়ে আসে। কোস্টগার্ডের জোনাল কমান্ডার ক্যাপ্টেন এম মোসায়েদ হোসেন সোমবার (১০ জানুয়ারি) এসব তথ্য জানান। এসময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, তাদের (কোস্টগার্ড) জাহাজ “স্বাধীন বাংলা ” বাংলদেশের সমুদ্র সীমার নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারতীয় কোস্টগার্ডের জাহাজ “সরোজিনি নাইডু” থেকে বাংলাদেশের ওই ২০ জেলেকে গ্রহন করেন।

এসব জেলেরা হচ্ছেন-মোঃ নুরুল ইসলাম, মোঃ তাছিন, মোঃ নুরুল ইসলাম, মোঃ হানিফ, মোঃ সোহেল, মোঃ বেল্লাল, মোঃ আলাউদ্দিন আহমেদ, আবু বকর, মোঃ মিরাজ, মোঃ সালাউদ্দিন, মোঃ সালাউদ্দিন, মোঃ সবুজ, মোঃ হারুন, মোঃ জামাল, মোঃ বসর, মোঃ মোস্তাফিজ, মোঃ সোলাইমান, মোঃ আবু জাহের, মোঃ রিপন ও মোঃ দেলোয়ার। তাদের সবার বাড়ী ভোলার চরফ্যাশান উপজেলায়।

এদেরকে তাদের মহাজন আবুল কাশেমের কাছে সোমবার (১০ জানুয়ারি) সকালে ফিসিং ট্রলারসহ মোংলা কোস্টগার্ড হস্তান্তর করেন।

আরো খবর.......

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

১৫ দিন গভীর সাগরে ভাসছিলো ২০ জেলে

আপডেট টাইম : ০১:৫৫:৩১ অপরাহ্ণ, সোমবার, ১০ জানুয়ারি ২০২২

ওমর ফারুক মোংলা : হঠাৎ ইঞ্জিন বিকল হয়ে গভীর সাগরে চরম সংকটে পড়ে যায় দ্বীপ জেলা ভোলার ২০ জন জেলে। এ অবস্থায় তারা টানা ১৫ দিন সাগরেই ভাসতে থাকেন। গত ১১ ডিসেম্বর থেকে সাগরে হারিয়ে যান এসব জেলেরা। একপর্যায়ে তাদের খাবারসহ প্রয়োজনীয় রসদ ফুরিয়ে গেলে বাঁচার আশা ছেড়ে দেন তারা।

পরে তাদের ফিসিং ট্রলার ” এফ বি আল্লার দান” ভাসতে ভাসতে বাংলাদেশের জলসীমা অতিক্রম করে ভারতীয় জলসীমায় চলে যায়। গত ২৬ ডিসেম্বর ভারতীয় কোস্টগার্ড ওই ফিসিং ট্রলারসহ ২০ জন জেলেদের সংকটাপন্ন অবস্থায় উদ্ধার করে। খবর পেয়ে সেখান থেকে বাংলাদেশের কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন (মোংলা সদর দপ্তর) ৯ জানুয়ারি (রবিবার) দুই দেশের সমঝোতার মাধ্যমে বাংলাদেশে নিয়ে আসে। কোস্টগার্ডের জোনাল কমান্ডার ক্যাপ্টেন এম মোসায়েদ হোসেন সোমবার (১০ জানুয়ারি) এসব তথ্য জানান। এসময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, তাদের (কোস্টগার্ড) জাহাজ “স্বাধীন বাংলা ” বাংলদেশের সমুদ্র সীমার নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারতীয় কোস্টগার্ডের জাহাজ “সরোজিনি নাইডু” থেকে বাংলাদেশের ওই ২০ জেলেকে গ্রহন করেন।

এসব জেলেরা হচ্ছেন-মোঃ নুরুল ইসলাম, মোঃ তাছিন, মোঃ নুরুল ইসলাম, মোঃ হানিফ, মোঃ সোহেল, মোঃ বেল্লাল, মোঃ আলাউদ্দিন আহমেদ, আবু বকর, মোঃ মিরাজ, মোঃ সালাউদ্দিন, মোঃ সালাউদ্দিন, মোঃ সবুজ, মোঃ হারুন, মোঃ জামাল, মোঃ বসর, মোঃ মোস্তাফিজ, মোঃ সোলাইমান, মোঃ আবু জাহের, মোঃ রিপন ও মোঃ দেলোয়ার। তাদের সবার বাড়ী ভোলার চরফ্যাশান উপজেলায়।

এদেরকে তাদের মহাজন আবুল কাশেমের কাছে সোমবার (১০ জানুয়ারি) সকালে ফিসিং ট্রলারসহ মোংলা কোস্টগার্ড হস্তান্তর করেন।