ঢাকা ০৩:৩৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২
সংবাদ শিরোনাম ::
বারইখালিতে পুত্রের সামনে বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করা, আসামি ফরিদ ও আসিফ গ্রেফতার নান্দাইলে বিদ্যুৎপৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু বাংলাদেশী তৈরি টুটু পিস্তল,চাইনিজ কুড়াল ৫০০ গ্রাম গাঁজা সহ ০৪ জন কিশোর গ্যাং এর সদস্য গ্রেফতার বাগেরহাট জেলার মোরেলগঞ্জে মটরসাইকেল চালককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা, ছেলের অবস্থা আশঙ্কাজনক নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ এর মিজমিজি এলাকায় বৈধ গ্যাস লাইন পুনঃ সংযোগ এর দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন মোংলায় ২৮৪ জন বনদস্যুকে ঈদ উপহার দিলো র‌্যাব-৮ লক্ষ্মীপুরে টাকা আত্মসাতের মামলায় চেয়ারম্যান কারাগারে লক্ষ্মীপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বীজ ব্যবসায়ীর জরিমানা কুয়াকাটা সৈকতে পদ্মার ঢেউ, পর্যটকরা এখন দক্ষিণমুখী নিজ প্রতিভার বিকাশ ঘটিয়ে দর্শকদের দৃষ্টি কেড়েছে ৩য় শ্রেণির ছাত্রী লাবিবা

১৫ দিন গভীর সাগরে ভাসছিলো ২০ জেলে

ওমর ফারুক মোংলা : হঠাৎ ইঞ্জিন বিকল হয়ে গভীর সাগরে চরম সংকটে পড়ে যায় দ্বীপ জেলা ভোলার ২০ জন জেলে। এ অবস্থায় তারা টানা ১৫ দিন সাগরেই ভাসতে থাকেন। গত ১১ ডিসেম্বর থেকে সাগরে হারিয়ে যান এসব জেলেরা। একপর্যায়ে তাদের খাবারসহ প্রয়োজনীয় রসদ ফুরিয়ে গেলে বাঁচার আশা ছেড়ে দেন তারা।

পরে তাদের ফিসিং ট্রলার ” এফ বি আল্লার দান” ভাসতে ভাসতে বাংলাদেশের জলসীমা অতিক্রম করে ভারতীয় জলসীমায় চলে যায়। গত ২৬ ডিসেম্বর ভারতীয় কোস্টগার্ড ওই ফিসিং ট্রলারসহ ২০ জন জেলেদের সংকটাপন্ন অবস্থায় উদ্ধার করে। খবর পেয়ে সেখান থেকে বাংলাদেশের কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন (মোংলা সদর দপ্তর) ৯ জানুয়ারি (রবিবার) দুই দেশের সমঝোতার মাধ্যমে বাংলাদেশে নিয়ে আসে। কোস্টগার্ডের জোনাল কমান্ডার ক্যাপ্টেন এম মোসায়েদ হোসেন সোমবার (১০ জানুয়ারি) এসব তথ্য জানান। এসময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, তাদের (কোস্টগার্ড) জাহাজ “স্বাধীন বাংলা ” বাংলদেশের সমুদ্র সীমার নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারতীয় কোস্টগার্ডের জাহাজ “সরোজিনি নাইডু” থেকে বাংলাদেশের ওই ২০ জেলেকে গ্রহন করেন।

এসব জেলেরা হচ্ছেন-মোঃ নুরুল ইসলাম, মোঃ তাছিন, মোঃ নুরুল ইসলাম, মোঃ হানিফ, মোঃ সোহেল, মোঃ বেল্লাল, মোঃ আলাউদ্দিন আহমেদ, আবু বকর, মোঃ মিরাজ, মোঃ সালাউদ্দিন, মোঃ সালাউদ্দিন, মোঃ সবুজ, মোঃ হারুন, মোঃ জামাল, মোঃ বসর, মোঃ মোস্তাফিজ, মোঃ সোলাইমান, মোঃ আবু জাহের, মোঃ রিপন ও মোঃ দেলোয়ার। তাদের সবার বাড়ী ভোলার চরফ্যাশান উপজেলায়।

এদেরকে তাদের মহাজন আবুল কাশেমের কাছে সোমবার (১০ জানুয়ারি) সকালে ফিসিং ট্রলারসহ মোংলা কোস্টগার্ড হস্তান্তর করেন।

জাতীয় আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বারইখালিতে পুত্রের সামনে বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করা, আসামি ফরিদ ও আসিফ গ্রেফতার

১৫ দিন গভীর সাগরে ভাসছিলো ২০ জেলে

আপডেট টাইম : ০১:৫৫:৩১ অপরাহ্ণ, সোমবার, ১০ জানুয়ারি ২০২২

ওমর ফারুক মোংলা : হঠাৎ ইঞ্জিন বিকল হয়ে গভীর সাগরে চরম সংকটে পড়ে যায় দ্বীপ জেলা ভোলার ২০ জন জেলে। এ অবস্থায় তারা টানা ১৫ দিন সাগরেই ভাসতে থাকেন। গত ১১ ডিসেম্বর থেকে সাগরে হারিয়ে যান এসব জেলেরা। একপর্যায়ে তাদের খাবারসহ প্রয়োজনীয় রসদ ফুরিয়ে গেলে বাঁচার আশা ছেড়ে দেন তারা।

পরে তাদের ফিসিং ট্রলার ” এফ বি আল্লার দান” ভাসতে ভাসতে বাংলাদেশের জলসীমা অতিক্রম করে ভারতীয় জলসীমায় চলে যায়। গত ২৬ ডিসেম্বর ভারতীয় কোস্টগার্ড ওই ফিসিং ট্রলারসহ ২০ জন জেলেদের সংকটাপন্ন অবস্থায় উদ্ধার করে। খবর পেয়ে সেখান থেকে বাংলাদেশের কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন (মোংলা সদর দপ্তর) ৯ জানুয়ারি (রবিবার) দুই দেশের সমঝোতার মাধ্যমে বাংলাদেশে নিয়ে আসে। কোস্টগার্ডের জোনাল কমান্ডার ক্যাপ্টেন এম মোসায়েদ হোসেন সোমবার (১০ জানুয়ারি) এসব তথ্য জানান। এসময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, তাদের (কোস্টগার্ড) জাহাজ “স্বাধীন বাংলা ” বাংলদেশের সমুদ্র সীমার নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারতীয় কোস্টগার্ডের জাহাজ “সরোজিনি নাইডু” থেকে বাংলাদেশের ওই ২০ জেলেকে গ্রহন করেন।

এসব জেলেরা হচ্ছেন-মোঃ নুরুল ইসলাম, মোঃ তাছিন, মোঃ নুরুল ইসলাম, মোঃ হানিফ, মোঃ সোহেল, মোঃ বেল্লাল, মোঃ আলাউদ্দিন আহমেদ, আবু বকর, মোঃ মিরাজ, মোঃ সালাউদ্দিন, মোঃ সালাউদ্দিন, মোঃ সবুজ, মোঃ হারুন, মোঃ জামাল, মোঃ বসর, মোঃ মোস্তাফিজ, মোঃ সোলাইমান, মোঃ আবু জাহের, মোঃ রিপন ও মোঃ দেলোয়ার। তাদের সবার বাড়ী ভোলার চরফ্যাশান উপজেলায়।

এদেরকে তাদের মহাজন আবুল কাশেমের কাছে সোমবার (১০ জানুয়ারি) সকালে ফিসিং ট্রলারসহ মোংলা কোস্টগার্ড হস্তান্তর করেন।