ঢাকা ০৩:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২
সংবাদ শিরোনাম ::
বারইখালিতে পুত্রের সামনে বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করা, আসামি ফরিদ ও আসিফ গ্রেফতার নান্দাইলে বিদ্যুৎপৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু বাংলাদেশী তৈরি টুটু পিস্তল,চাইনিজ কুড়াল ৫০০ গ্রাম গাঁজা সহ ০৪ জন কিশোর গ্যাং এর সদস্য গ্রেফতার বাগেরহাট জেলার মোরেলগঞ্জে মটরসাইকেল চালককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা, ছেলের অবস্থা আশঙ্কাজনক নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ এর মিজমিজি এলাকায় বৈধ গ্যাস লাইন পুনঃ সংযোগ এর দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন মোংলায় ২৮৪ জন বনদস্যুকে ঈদ উপহার দিলো র‌্যাব-৮ লক্ষ্মীপুরে টাকা আত্মসাতের মামলায় চেয়ারম্যান কারাগারে লক্ষ্মীপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বীজ ব্যবসায়ীর জরিমানা কুয়াকাটা সৈকতে পদ্মার ঢেউ, পর্যটকরা এখন দক্ষিণমুখী নিজ প্রতিভার বিকাশ ঘটিয়ে দর্শকদের দৃষ্টি কেড়েছে ৩য় শ্রেণির ছাত্রী লাবিবা

জগন্নাথপুরকে নিয়ে বেফাঁস মন্তব্যে করায় সর্বমহলে এমপি হাবিবের বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড়

জগন্নাথপুর প্রতিনিধিঃ

সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিবের বিরুদ্ধে সর্বমহলে সমালোচনার ঝড় উটেছে।
সম্প্রতি সুনামগঞ্জ জেলার প্রবাসী অধ্যুষিত জগন্নাথপুর উপজেলাকে নিয়ে একটি বেফাঁস মন্তব্যকে কেন্দ্র করে স্যোশাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড় বইছে।
এরই মধ্যে এই মন্তব্যের প্রতিবাদে সচেতন নাগরিকদের ব্যানারে জগন্নাথপুর পৌর পয়েন্টে বিশাল মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে ।
জানা যায়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সিলেট ৩ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব একটি ভিডিওতে এক দরিদ্র নারী সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমানের সঙ্গে দেখা করে একটি ঘরের আবেদন করলে তিনি ওই নারীকে তার বাড়ি কোথায় জিজ্ঞেস করেন। ওই নারী তার বাড়ি সিলামে বলে জানান। এসময় সাংসদ হাবিবুর রহমান তাঁর বাড়ি সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর নয়তো বলে কটাক্ষ করলে ওই নারী তিনি এরকম নন বলতে ভিডিওতে শোনা যায়। এর পর পরই স্যোশাল মিডিয়ায় ভিডিওটি ভাইরাল হলে সমালোচনার ঝড় বইতে শুরু করে।
বিশেষ করে জগন্নাথপুরের নাগরিকদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দেয়। ওই উপজেলাসহ সুনামগঞ্জের নাগরিকবৃন্দ স্যোশাল মিডিয়া এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে পোষ্ট দেন। জগন্নাথপুরের বাসিন্দা ছাত্রলীগ কর্মী মোবাশ্বির নিজের ফেসবুকে ভিডিওটি পোষ্ট করে নিজের ক্ষোভ ঝাঁড়েন। তিনি লিখেন- ‘সদ্য নির্বাচিত সিলেট-৩ আসনের এমপি হাবিব সাহেব কর্তৃক জগন্নাথপুর নিয়ে হীন মন-মানসিকতা প্রকাশের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। আমাদের দেশের কিছু এমপি-মন্ত্রী একেক সময় একেকটা বিষয়ে বক্তব্য দেন, যা ভাষায় প্রকাশ করার ক্ষমতা রাখে না। দল ও ব্যাক্তির প্রতি সংশয় সৃষ্টি হয়। এক বয়স্ক মহিলাকে জিজ্ঞেস করলেন আপনার বাড়ী কোথায়? প্রতিউত্তরে মহিলা বললেন, সিলাম। আবার এমপি হাবিব বললেন, সুনামগঞ্জ জগন্নাথপুর নয়তো? সুনামগঞ্জ জেলায় আরো উপজেলা থাকা সত্ত্বেও একক ভাবে জগন্নাথপুরের দিকে আপনার এমন মন-মানসিকতা কেন? ভুলে গেলে চলবে না, আপনি একা নৌকার মাঝি নন, একা আওয়ামীলীগ নন। এই জগন্নাথপুর আওয়ামীলীগ ও নৌকার জায়গা, কম বেশি সকল দলের নেতা- কর্মী এখানে আছেন। রাজনীতিতে সমৃদ্ধ উপজেলা জগন্নাথপুর। এই জেলার অনেক সুনাম রয়েছে। এখান থেকে অনেক বড় বড় ব্যাক্তি বের হয়েছেন, মরহুম সামাদ আজাদ এই জগন্নাথপুরের সূর্য সন্তান ছিলেন। আরো অনেক আছেন যাদের নাম নিলে আপনার মতো মানুষের নামের তালিকায় খুঁজে মিলবে না। আপনার নির্বাচনী এলাকায় কি এমন করছেন আপনি আমার জানা নাই, তবে চ্যালেঞ্জ করে বলতে পারি, জগন্নাথপুর উপজেলার মানুষ অনেক বড় মনের মানুষ। আপনার মত ত্যানা প্যাচানোর নয়। আপনার মতো কয়েক ডজন হাবিব এমপিকে চালানোর ক্ষমতাও রাখেন, এটা বরাবরের মতো ক্লিয়ার। সিলেটের হাওর অঞ্চলের রাজধানী খ্যাত সুনামগঞ্জ জগন্নাথপুর জনপদের ইতিহাস ঐতিহ্য আছে। আমি জগন্নাথপুরের সন্তান, একজন এমপির এমন বক্তব্য আমার কলিজায় রক্তক্ষরণ করবেই এটা স্বাভাবিক। আমি এমন বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। আমি জগন্নাথপুরের সন্তান, এখান আমার জন্মস্থান। আমি জগন্নাথপুরকে ভালবাসি’। এদিকে সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব কর্তৃক জগন্নাথপুর উপজেলাবাসীকে নিয়ে কটাক্ষ করে কথা বলায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে এবং তার বক্তব্য প্রত্যাহার করে অতিসত্বর জগন্নাথপুরবাসীর কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার দাবিতে বিশাল মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা (৩০ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার) বিকালে জগন্নাথপুর পৌর পয়েন্টে উপজেলার সচেতন নাগরিকদের ব্যানারে বিশাল মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জগন্নাথপুর পৌর সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ছালিক আহমদ পীর। পৌর যুবলীগের আহবায়ক আকমল হোসেন ভূঁইয়ার পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, প্রবীণ আইনজীবী এডভোকেট জিয়াউর রহিম শাহীন, উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক সিনিয়র সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম লাল, জগন্নাথপুরের সিনিয়র সাংবাদিক সানোয়ার হাসান সুনু, জগন্নাথপুর পৌরসভার সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র শফিকুল হক শফিক, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লুৎফুর রহমান, পৌর কাউন্সিলর কামাল হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতৃ সুফিয়া খানম সাথী, দৈনিক প্রথম আলো জগন্নাথপুর প্রতিনিধি- সাংবাদিক অমিত দেব, ফেয়ার ফেস এর সমন্বয়ক শামীম আহমেদ, ছাত্রদল নেতা মামুন আহমেদ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন- সাংবাদিক হিফজুর রহমান তালুকদার জিয়া, বাংলাটিভি প্রতিনিধি গোবিন্দ দেব, জগন্নাথপুর রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি আমিনুর রহমান জিলু, সহ সভাপতি ইকবাল হোসাইন, যুবলীগ নেতা সাফরোজ ইসলাম রুনু প্রমুখ। বক্তারা বলেন- সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব জগন্নাথপুর তথা সুনামগঞ্জবাসীকে নিয়ে ফেসবুক লাইভে কটাক্ষ করে কথা বলে যে বক্তব্য দিয়েছেন, তাতে দেশ বিদেশে অবস্থানরত জগন্নাথপুর উপজেলাবাসীর হৃদয়ে রক্তক্ষরণের সৃষ্টি হয়েছে। অবিলম্বে তার এই বক্তব্য প্রত্যাহার করে জগন্নাথপুর তথা সুনামগঞ্জবাসীর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করার আহবান জানান। এবিষয়ে নিজের বক্তব্য জানতে সোমবার (৩ জানুয়ারি) বিকেলে সিলেট ৩ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিবের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দেয়া হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।

জাতীয় আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

বারইখালিতে পুত্রের সামনে বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করা, আসামি ফরিদ ও আসিফ গ্রেফতার

জগন্নাথপুরকে নিয়ে বেফাঁস মন্তব্যে করায় সর্বমহলে এমপি হাবিবের বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড়

আপডেট টাইম : ০৩:২৩:৩৬ অপরাহ্ণ, মঙ্গলবার, ৪ জানুয়ারি ২০২২

জগন্নাথপুর প্রতিনিধিঃ

সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিবের বিরুদ্ধে সর্বমহলে সমালোচনার ঝড় উটেছে।
সম্প্রতি সুনামগঞ্জ জেলার প্রবাসী অধ্যুষিত জগন্নাথপুর উপজেলাকে নিয়ে একটি বেফাঁস মন্তব্যকে কেন্দ্র করে স্যোশাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড় বইছে।
এরই মধ্যে এই মন্তব্যের প্রতিবাদে সচেতন নাগরিকদের ব্যানারে জগন্নাথপুর পৌর পয়েন্টে বিশাল মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে ।
জানা যায়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সিলেট ৩ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব একটি ভিডিওতে এক দরিদ্র নারী সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমানের সঙ্গে দেখা করে একটি ঘরের আবেদন করলে তিনি ওই নারীকে তার বাড়ি কোথায় জিজ্ঞেস করেন। ওই নারী তার বাড়ি সিলামে বলে জানান। এসময় সাংসদ হাবিবুর রহমান তাঁর বাড়ি সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর নয়তো বলে কটাক্ষ করলে ওই নারী তিনি এরকম নন বলতে ভিডিওতে শোনা যায়। এর পর পরই স্যোশাল মিডিয়ায় ভিডিওটি ভাইরাল হলে সমালোচনার ঝড় বইতে শুরু করে।
বিশেষ করে জগন্নাথপুরের নাগরিকদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দেয়। ওই উপজেলাসহ সুনামগঞ্জের নাগরিকবৃন্দ স্যোশাল মিডিয়া এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে পোষ্ট দেন। জগন্নাথপুরের বাসিন্দা ছাত্রলীগ কর্মী মোবাশ্বির নিজের ফেসবুকে ভিডিওটি পোষ্ট করে নিজের ক্ষোভ ঝাঁড়েন। তিনি লিখেন- ‘সদ্য নির্বাচিত সিলেট-৩ আসনের এমপি হাবিব সাহেব কর্তৃক জগন্নাথপুর নিয়ে হীন মন-মানসিকতা প্রকাশের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। আমাদের দেশের কিছু এমপি-মন্ত্রী একেক সময় একেকটা বিষয়ে বক্তব্য দেন, যা ভাষায় প্রকাশ করার ক্ষমতা রাখে না। দল ও ব্যাক্তির প্রতি সংশয় সৃষ্টি হয়। এক বয়স্ক মহিলাকে জিজ্ঞেস করলেন আপনার বাড়ী কোথায়? প্রতিউত্তরে মহিলা বললেন, সিলাম। আবার এমপি হাবিব বললেন, সুনামগঞ্জ জগন্নাথপুর নয়তো? সুনামগঞ্জ জেলায় আরো উপজেলা থাকা সত্ত্বেও একক ভাবে জগন্নাথপুরের দিকে আপনার এমন মন-মানসিকতা কেন? ভুলে গেলে চলবে না, আপনি একা নৌকার মাঝি নন, একা আওয়ামীলীগ নন। এই জগন্নাথপুর আওয়ামীলীগ ও নৌকার জায়গা, কম বেশি সকল দলের নেতা- কর্মী এখানে আছেন। রাজনীতিতে সমৃদ্ধ উপজেলা জগন্নাথপুর। এই জেলার অনেক সুনাম রয়েছে। এখান থেকে অনেক বড় বড় ব্যাক্তি বের হয়েছেন, মরহুম সামাদ আজাদ এই জগন্নাথপুরের সূর্য সন্তান ছিলেন। আরো অনেক আছেন যাদের নাম নিলে আপনার মতো মানুষের নামের তালিকায় খুঁজে মিলবে না। আপনার নির্বাচনী এলাকায় কি এমন করছেন আপনি আমার জানা নাই, তবে চ্যালেঞ্জ করে বলতে পারি, জগন্নাথপুর উপজেলার মানুষ অনেক বড় মনের মানুষ। আপনার মত ত্যানা প্যাচানোর নয়। আপনার মতো কয়েক ডজন হাবিব এমপিকে চালানোর ক্ষমতাও রাখেন, এটা বরাবরের মতো ক্লিয়ার। সিলেটের হাওর অঞ্চলের রাজধানী খ্যাত সুনামগঞ্জ জগন্নাথপুর জনপদের ইতিহাস ঐতিহ্য আছে। আমি জগন্নাথপুরের সন্তান, একজন এমপির এমন বক্তব্য আমার কলিজায় রক্তক্ষরণ করবেই এটা স্বাভাবিক। আমি এমন বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। আমি জগন্নাথপুরের সন্তান, এখান আমার জন্মস্থান। আমি জগন্নাথপুরকে ভালবাসি’। এদিকে সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব কর্তৃক জগন্নাথপুর উপজেলাবাসীকে নিয়ে কটাক্ষ করে কথা বলায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে এবং তার বক্তব্য প্রত্যাহার করে অতিসত্বর জগন্নাথপুরবাসীর কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার দাবিতে বিশাল মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা (৩০ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার) বিকালে জগন্নাথপুর পৌর পয়েন্টে উপজেলার সচেতন নাগরিকদের ব্যানারে বিশাল মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জগন্নাথপুর পৌর সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ছালিক আহমদ পীর। পৌর যুবলীগের আহবায়ক আকমল হোসেন ভূঁইয়ার পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, প্রবীণ আইনজীবী এডভোকেট জিয়াউর রহিম শাহীন, উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক সিনিয়র সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম লাল, জগন্নাথপুরের সিনিয়র সাংবাদিক সানোয়ার হাসান সুনু, জগন্নাথপুর পৌরসভার সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র শফিকুল হক শফিক, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লুৎফুর রহমান, পৌর কাউন্সিলর কামাল হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতৃ সুফিয়া খানম সাথী, দৈনিক প্রথম আলো জগন্নাথপুর প্রতিনিধি- সাংবাদিক অমিত দেব, ফেয়ার ফেস এর সমন্বয়ক শামীম আহমেদ, ছাত্রদল নেতা মামুন আহমেদ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন- সাংবাদিক হিফজুর রহমান তালুকদার জিয়া, বাংলাটিভি প্রতিনিধি গোবিন্দ দেব, জগন্নাথপুর রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি আমিনুর রহমান জিলু, সহ সভাপতি ইকবাল হোসাইন, যুবলীগ নেতা সাফরোজ ইসলাম রুনু প্রমুখ। বক্তারা বলেন- সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব জগন্নাথপুর তথা সুনামগঞ্জবাসীকে নিয়ে ফেসবুক লাইভে কটাক্ষ করে কথা বলে যে বক্তব্য দিয়েছেন, তাতে দেশ বিদেশে অবস্থানরত জগন্নাথপুর উপজেলাবাসীর হৃদয়ে রক্তক্ষরণের সৃষ্টি হয়েছে। অবিলম্বে তার এই বক্তব্য প্রত্যাহার করে জগন্নাথপুর তথা সুনামগঞ্জবাসীর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করার আহবান জানান। এবিষয়ে নিজের বক্তব্য জানতে সোমবার (৩ জানুয়ারি) বিকেলে সিলেট ৩ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিবের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দেয়া হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।