ঢাকা ০৪:১২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
ইংল্যান্ড বিএনপি’র সভাপতির সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন পিসা বিএনপি’র আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পারভেজ মোশারফ কোস্টগার্ড কর্তৃক বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান কিশোরগঞ্জে দৈনিক নাগরিক ভাবনার ৪র্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত যুব উন্নয়ন থেকে দর্জি বিজ্ঞান প্রশিক্ষণ নিয়ে জামালপুরের যুব মহিলারা আত্ম নির্ভরশীল এমপি হবার শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রতিপাদ্য নিয়ে ময়মনসিংহ রেলওয়ে ষ্টেশনে চাঞ্চল্যকর খুনের প্রধান আসামী মোহাম্মদ আলী গ্রেফতার ইপিজেড থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে(দুইশত চার) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার পাকুন্দিয়ায় ৬ষ্ট বার্ষিকী ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্টিত টঙ্গীতে কিশোর গ্যাং লিডার মাইদুল গ্রেফতার তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে অস্ট্রিয়াতে দুই বাংলাদেশী প্রবাসীর মধ্যে মারামারি গ্রেফতার এক

৫ জানুয়ারি। নির্বাচনকে সামনে রেখে চেয়ারম্যান পদে উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে ৬ টি নতুন মুখ চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ।

মোঃ শহিদুল ইসলাম শহিদ

বিভাগীয় ব্যুরো প্রধান চট্রগ্রাম।।

চট্টগ্রামের চন্দনাইশের পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ করা হবে আগামী ৫ জানুয়ারি। নির্বাচনকে সামনে রেখে চেয়ারম্যান পদে উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন পরিষদের দলীয় প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ।
রবিবার (৫ ডিসেম্বর) বিকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের সংসদীয় ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের মুলতবী সভায় এই প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করা হয়।
আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভায় সভাপতিত্ব করেন। আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
চন্দনাইশ উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের মধ্যে জোয়ারা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান আমিন আহমেদ চৌধুরী ও বরমা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মো. নুরুল ইসলাম পুনরায় নৌকা পেলেও বাকি ৬টি ইউনিয়নে এসেছে পরিবর্তন। ওই ৬টি ইউনিয়নে নৌকা পেয়েছেন ৬ জন নতুন মুখ।
তারা হলেন- কাঞ্চনাবাদ ইউনিয়নে মো. আবু ছালেহ, বরকল ইউনিয়নে মো. ফেরদাউছ ইসলাম খান, বৈলতলী ইউনিয়নে এস,এম, সায়েম, হাসিমপুর ইউনিয়নে মো. খোরশেদ বিন ইসহাক, ধোপাছড়ি ইউনিয়নে মো. আবদুল আলীম, সাতবাড়িয়া ইউনিয়নে ফোরক আহমদ।
এদিকে, উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নৌকার মনোনয়ন পাওয়ায় ৮ প্রার্থির কর্মীসমর্থকেরা এলাকায় রাতেই আনন্দ-উল্লাস, মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করেছেন।
এব্যাপারে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন না হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এই ইউনিয়নটি নির্বাচন করার উপযুক্ত নয় জানিয়ে কমিশনে আমরা একটা চিঠি দিয়েছি। কমিশন থেকে এখনো কোন সিদ্ধান্ত পাইনি।

প্রসঙ্গত- ৮টি ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের সর্বশেষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১১ সালের ২৫ জুন। এরপর থেকে সীমানা সংক্রান্ত জটিলতার কারনে এই ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি। ২০১৭ সালের ১১মে পার্শ্ববর্তী দোহাজারী ইউনিয়নকে পৌরসভা ঘোষণার পর সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড দোহাজারী পৌরসভায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়।সেই থেকে সীমানা নির্ধারণ করে ওয়ার্ড পুনর্বিন্যাসের মাধ্যমে ৭ ওয়ার্ড থেকে ৯ ওয়ার্ড না হওয়ায় নির্বাচন নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়। আগামী ৫ জানুয়ারি ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করে গত ২৭ নভেম্বর ঘোষিত তফসিলে সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের নাম আসলেও ৫ জানুয়ারি এই ইউনিয়ন পরিষদের ভোটগ্রহণ করা হবে কিনা তা নিয়ে প্রার্থী ও সাধারণ ভোটারদের মধ্যে রয়েছে সংশয়।

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

ইংল্যান্ড বিএনপি’র সভাপতির সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন পিসা বিএনপি’র আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পারভেজ মোশারফ

৫ জানুয়ারি। নির্বাচনকে সামনে রেখে চেয়ারম্যান পদে উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে ৬ টি নতুন মুখ চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ।

আপডেট টাইম : ০৪:৩৮:০৬ অপরাহ্ণ, সোমবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২১

মোঃ শহিদুল ইসলাম শহিদ

বিভাগীয় ব্যুরো প্রধান চট্রগ্রাম।।

চট্টগ্রামের চন্দনাইশের পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ করা হবে আগামী ৫ জানুয়ারি। নির্বাচনকে সামনে রেখে চেয়ারম্যান পদে উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন পরিষদের দলীয় প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ।
রবিবার (৫ ডিসেম্বর) বিকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের সংসদীয় ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের মুলতবী সভায় এই প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করা হয়।
আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভায় সভাপতিত্ব করেন। আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
চন্দনাইশ উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের মধ্যে জোয়ারা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান আমিন আহমেদ চৌধুরী ও বরমা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মো. নুরুল ইসলাম পুনরায় নৌকা পেলেও বাকি ৬টি ইউনিয়নে এসেছে পরিবর্তন। ওই ৬টি ইউনিয়নে নৌকা পেয়েছেন ৬ জন নতুন মুখ।
তারা হলেন- কাঞ্চনাবাদ ইউনিয়নে মো. আবু ছালেহ, বরকল ইউনিয়নে মো. ফেরদাউছ ইসলাম খান, বৈলতলী ইউনিয়নে এস,এম, সায়েম, হাসিমপুর ইউনিয়নে মো. খোরশেদ বিন ইসহাক, ধোপাছড়ি ইউনিয়নে মো. আবদুল আলীম, সাতবাড়িয়া ইউনিয়নে ফোরক আহমদ।
এদিকে, উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নৌকার মনোনয়ন পাওয়ায় ৮ প্রার্থির কর্মীসমর্থকেরা এলাকায় রাতেই আনন্দ-উল্লাস, মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করেছেন।
এব্যাপারে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন না হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এই ইউনিয়নটি নির্বাচন করার উপযুক্ত নয় জানিয়ে কমিশনে আমরা একটা চিঠি দিয়েছি। কমিশন থেকে এখনো কোন সিদ্ধান্ত পাইনি।

প্রসঙ্গত- ৮টি ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের সর্বশেষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১১ সালের ২৫ জুন। এরপর থেকে সীমানা সংক্রান্ত জটিলতার কারনে এই ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি। ২০১৭ সালের ১১মে পার্শ্ববর্তী দোহাজারী ইউনিয়নকে পৌরসভা ঘোষণার পর সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড দোহাজারী পৌরসভায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়।সেই থেকে সীমানা নির্ধারণ করে ওয়ার্ড পুনর্বিন্যাসের মাধ্যমে ৭ ওয়ার্ড থেকে ৯ ওয়ার্ড না হওয়ায় নির্বাচন নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়। আগামী ৫ জানুয়ারি ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করে গত ২৭ নভেম্বর ঘোষিত তফসিলে সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের নাম আসলেও ৫ জানুয়ারি এই ইউনিয়ন পরিষদের ভোটগ্রহণ করা হবে কিনা তা নিয়ে প্রার্থী ও সাধারণ ভোটারদের মধ্যে রয়েছে সংশয়।