1. [email protected] : admi2017 :
বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:৩৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
ই-পেপার আজকের মোংলায় ’দুর্নীতিকে না বলুন’ শ্লোগানে দুর্নীতি বিরোধী দিবস পালন নমিনেশন পেপার্স জমা দিতেই ব্যাপক আনন্দ উদ্দীপনায় সিক্ত মেম্বার আব্দুল খালেক গাজীপুরের কাশিমপুর সুরাবাড়ী এলাকায় ২৬ টি অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন, ফোর্বসের প্রভাবশালী নারীর তালিকায় ৪৩তম শেখ হাসিনা ১০৮৬ জনকে চাকরি দেবে বাংলাদেশ রেলওয়ে আসন্ন রায়পুরা পৌরসভা নির্বাচনে ৪,৫ও ৬নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদপ্রার্থী তমা আক্তারকে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর করতে চান “ওয়ার্ডবাসী” এনবিসি ইউকে “ইস্ট লন্ডন” শাখার কমিটি গঠন মাল্টিপারপাস সেডে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের ডিসেম্বরের মাসিক কল্যাণ সভা অনুষ্ঠিত মোংলায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিন তলাবিশিষ্ট “শ্রম কল্যাণ কেন্দ্র” উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী থেমে নেই কোভিট ১৯ এড সার্ভিস খেশরা এর কার্যক্রম

চীনকে প্রতিশোধের হুমকি পম্পেওর

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৮ জানুয়ারী, ২০২১, ৯.০২ এএম
  • ৭৫ বার পঠিত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।

হংকংয়ে জতীয় নিরাপত্তা আইন ভঙ্গ করায় কমপক্ষে ৫০ জন গণতন্ত্রপন্থী রাজনীতিবিদ এবং মানবাদিকার কর্মীকে গ্রেফতারের বিষয়ে চীনের ওপর ক্ষেপেছে যুক্তরাষ্ট্র। এনিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও প্রতিশোধের হুমকি দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার পম্পেও বলেন, ৫০ জন গণতন্ত্রপন্থী রাজনীতিবিদ এবং মানবাদিকার কর্মীকে গ্রেফতারের ঘটনায় যারা জড়িত তাদের ওপর ওয়াশিংটন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে পারে। এবং জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত তাইওয়ান সফরে যাবে।

পম্পেও বলেন, বুধবারের অভিযানে এক মার্কিন নাগরিককে গ্রেফতারের বিষয়ে তিনি ‘হতবাক’। যুক্তরাষ্ট্র মার্কিন নাগরিকদের নির্বিচারে আটকে রাখা বা হয়রানি সহ্য করবে না।

মার্কিন ক্যাপিটল ভবনে ট্রাম্প সমর্থকদের নজিরবিহীন হামলার পরই এমন বিবৃতি দিল পম্পেও। ক্যাপিটলে সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত পাঁচ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন আরো অনেকে।

২০১৯ সাল থেকে চীনের বিরুদ্ধে লাগাতার আন্দোলন করছে হংকং। তাদের বক্তব্য, ১৯৮৪ সালের চুক্তি লঙ্ঘন করছে চীন। যুক্তরাজ্যের থেকে স্বাধীনতা পাওয়ার পরে হংকংয়ের দায়িত্ব নেয় চীন। কিন্তু হংকংকে বিশেষ অধিকার দেওয়া হয়। বাণিজ্য এবং গণতন্ত্রের বিষয়ে চীনের চেয়ে অনেকটাই আলাদা হংকং। পশ্চিমের সঙ্গে তাদের মুক্ত বাণিজ্যচুক্তি ছিল।

কিন্তু ২০১৯ সাল থেকে গণতন্ত্রে আঘাত হানছে চীন, এই অভিযোগে আন্দোলন শুরু করে হংকং। আন্দোলন এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে দমনমূলক নীতি গ্রহণ করে চীন। কিছুদিন আগে তারই জেরে নতুন আইন বলবৎ হয়েছে। কিন্তু কোনও আইনই হংকংয়ে বিক্ষোভ আন্দোলন বন্ধ করতে পারছে না। 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazarsomoyer14
© All rights reserved  2019-2021 somoyerkontha.com