ঢাকা ০৬:২২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
রাণীশংকৈলে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন নওগাঁর নিয়ামতপুরে শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২১শে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে ভাষা শহীদদের স্বরনে শ্রদ্ধাঞ্জলি দেবহাটা উপজেলা সমিতির ও পিকনিক স্পট পরিদর্শন কালিহাতীতে মহান শহিদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত আজ সারা ভারতের বিভিন্ন যায়গার সাথে সিরাকল মহাবিদ্যালয়ে উদযাপিত হল ভাষা দিবস আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উৎযাপন ভৈরবে অমর ২১শে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে সকল বীর শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়েছে কিশোরগঞ্জে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত কমলনগরে সয়াবিন ক্ষেত থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার ২১ শে ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে

গাজীপুরের কাশিমপুর থানাধীন মোন্তজ হাউজিং নামে প্রকল্প প্লট বিরুদ্ধে ব্যাপক খাস জমি দখলের অভিযোগ।

স্টাফ রিপোর্টার)

গাজীপুরের কাশিমপুর থানাধীন লতিপুর ২নং ওয়ার্ডে এলাকায় কাউন্সিল মোন্তজ হাউজিং প্রকল্প প্লট ক্রয় অবৈধ ভাবে বিক্রি চলছে যেখানে রক্ষক সেখানে ভক্ষক নাম ভাঙ্গীয়ে সরকারি খাসজমি ও মালিকানা জমি বেদখলের করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে অবৈধ ভাবে জমি বিক্রি করে চলছে
ক্ষমতাসীন কিছু অসাধু ভূমি দস্যু ও দালালদের হাত ধরে দখল হচ্ছে অসহায় সাধারণ মানুষের জমি ও মূল্যবান সরকারী খাসজমি। বিভিন্ন সময় বেদখলদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেও থামানো যাচ্ছেনা স্থানীয় ক্ষমতাসীন জমি দখল দারদের। ও মালিকদের,
সাথে কথা বলে সোনা যায় কাউন্সিলর আলহাজ্বঃ মোন্তজ উদ্দিন মন্ডল কেউ কিছু যান্তে চাইলে ভিবিন্ন অজুহাত দেখিয়ে পাশ কাটিয়ে যায়। মোন্তজের যোগ সাজশেই দখল হচ্ছে মূল্যবান খাসের জমি
তবে জমি উদ্ধারে এবং দখল ঠেকাতে অনেক ক্ষেত্রেই কতৃপক্ষের উদারসীনতার অভিযোগ ও রয়েছে।
সরেজমিনে অনুসন্ধান করে জানা যায়, কাউন্সিল মোন্তজ উদ্দিন মন্ডল এলাকায় সাধারণ মানুষের কাছে থেকে যানা যায় গরিব মানুষের অসহায় পেয়ে ফুসলিয়া তার জমিন ভালো দাম ধরে প্রথমে নিয়ে তারপর অনেক অজুহাত দেখিয়ে আচ্ছে। তারা বলে সে কিভাবে কাউন্সিলর হলো বছর দেড়েক আগে তো সে বিনপির জামায়াতে ইসলামী মিছিল মিটিং আর জ্বালাও পোড়াও আন্দোলনের অগ্রভাগে থেকে রাজপথ কাঁপিয়েছেন পরে। তিনি কেন্দ্রীয় নেতাদের পড়তে পোশাক কারখানা ভিক্ষেভ মিছিল ও সমবেসেকে উত্তপ্ত করে তুলেছেন এই মোন্তজ উদ্দিন মন্ডল বছরখানেক হয়ে গেয়ে মুজিব কোর্ট লাগিয়ে আওয়ামী লীগের সদস্য হয়েছেন এমনকি সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কাউন্সিলর ওনির্বাচিত হয়েছেন এই কাউন্সিলর মোন্তজ উদ্দিন মন্ডল, এখন আবার এলাকায় কিছু গরিব অসহায় সাধারণ মানুষের জমি ও বিভিন্ন স্থানে সরকারি জমি দখল করে নির্মাণ করা হচ্ছে বহুতল ভবন, ঘরবাড়ী, দোকানপাট। নির্মাণ করে ,বাজার বসিয়ে চাঁদাবাজি চলছে ও পতি দোকান থেকে ৫০ টাকা থেকে ২০০ টাকা পযান্ত নিয়ে যায়
আইন অনুযায়ী কতৃপক্ষের পাশে ব্যক্তিগত মালিকানাধীন জমিতে কোন প্রকার স্থাপনা নির্মাণের পূর্বে কোন মালিকের থেকে অনুমতি ও জমির সীমানা নির্ধারণের নির্মাণ করে থাকেন ও তার কোনটি মানা হচ্ছে না। শুধু স্থানীয় লোকজন নয় প্রতিনিয়ম মিতো বিভিন্ন মিল কারখানা ও ঝুট গুদামের দখলে ও চলে যাচ্ছে বিপুল পরিমাণ খসের জমি।বিক্রি রাতের আধারে?
সব বাড়ী, মিল, কারখানার যাতায়াতের রাস্তা তৈরি করার অভিযোগ ও রয়েছে। এর মধ্যে মোঃ হেলালউদ্দি দেওয়া সাব পিতঃ মৃত বসিরউদ্দি দেওয়ানে কিছু জগা বেদখলে করে এবং কিছু সন্তাসীদের নিয়ে সাইনবোর্ড লাগানো হয়ে এবং তাকে মারার হুমকি দেয়ে এই মোন্তজ উদ্দিন মন্ডল হেলাল উদ্দিন কাশিমপুর থানায় একটি অভিযোগ করেন (১) ২নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর মোন্তজ উদ্দিন মন্ডল পিতাঃ হাজী সায়েদুর রহমান মন্ডল,(২)মাতা অজ্ঞাত, মোস্তফা খানঁ পিতঃ মৃত হাসেম খাঁন,( ৩) আঃ গনি পিতা,অজ্ঞাত (৪) মোঃ ইমন হোসেন পিতাঃঅজ্ঞাত
মাতাঃ অজ্ঞাত পেয়া ২৫ জনের মত।গোবন্দীবাড়ী মৌজা, ১৪১৯দাগে সি এসে খতিয়ান ৬৩৫ আর এস দাগে জমিনে পরিমাণ ২.৩৭ একর জমি এই বিষয়ে সঠিক তদন্ত করে জমি মালিকানারা তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে জানান।

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

রাণীশংকৈলে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

গাজীপুরের কাশিমপুর থানাধীন মোন্তজ হাউজিং নামে প্রকল্প প্লট বিরুদ্ধে ব্যাপক খাস জমি দখলের অভিযোগ।

আপডেট টাইম : ০৪:৫৩:০৫ অপরাহ্ণ, সোমবার, ১১ অক্টোবর ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার)

গাজীপুরের কাশিমপুর থানাধীন লতিপুর ২নং ওয়ার্ডে এলাকায় কাউন্সিল মোন্তজ হাউজিং প্রকল্প প্লট ক্রয় অবৈধ ভাবে বিক্রি চলছে যেখানে রক্ষক সেখানে ভক্ষক নাম ভাঙ্গীয়ে সরকারি খাসজমি ও মালিকানা জমি বেদখলের করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে অবৈধ ভাবে জমি বিক্রি করে চলছে
ক্ষমতাসীন কিছু অসাধু ভূমি দস্যু ও দালালদের হাত ধরে দখল হচ্ছে অসহায় সাধারণ মানুষের জমি ও মূল্যবান সরকারী খাসজমি। বিভিন্ন সময় বেদখলদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেও থামানো যাচ্ছেনা স্থানীয় ক্ষমতাসীন জমি দখল দারদের। ও মালিকদের,
সাথে কথা বলে সোনা যায় কাউন্সিলর আলহাজ্বঃ মোন্তজ উদ্দিন মন্ডল কেউ কিছু যান্তে চাইলে ভিবিন্ন অজুহাত দেখিয়ে পাশ কাটিয়ে যায়। মোন্তজের যোগ সাজশেই দখল হচ্ছে মূল্যবান খাসের জমি
তবে জমি উদ্ধারে এবং দখল ঠেকাতে অনেক ক্ষেত্রেই কতৃপক্ষের উদারসীনতার অভিযোগ ও রয়েছে।
সরেজমিনে অনুসন্ধান করে জানা যায়, কাউন্সিল মোন্তজ উদ্দিন মন্ডল এলাকায় সাধারণ মানুষের কাছে থেকে যানা যায় গরিব মানুষের অসহায় পেয়ে ফুসলিয়া তার জমিন ভালো দাম ধরে প্রথমে নিয়ে তারপর অনেক অজুহাত দেখিয়ে আচ্ছে। তারা বলে সে কিভাবে কাউন্সিলর হলো বছর দেড়েক আগে তো সে বিনপির জামায়াতে ইসলামী মিছিল মিটিং আর জ্বালাও পোড়াও আন্দোলনের অগ্রভাগে থেকে রাজপথ কাঁপিয়েছেন পরে। তিনি কেন্দ্রীয় নেতাদের পড়তে পোশাক কারখানা ভিক্ষেভ মিছিল ও সমবেসেকে উত্তপ্ত করে তুলেছেন এই মোন্তজ উদ্দিন মন্ডল বছরখানেক হয়ে গেয়ে মুজিব কোর্ট লাগিয়ে আওয়ামী লীগের সদস্য হয়েছেন এমনকি সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কাউন্সিলর ওনির্বাচিত হয়েছেন এই কাউন্সিলর মোন্তজ উদ্দিন মন্ডল, এখন আবার এলাকায় কিছু গরিব অসহায় সাধারণ মানুষের জমি ও বিভিন্ন স্থানে সরকারি জমি দখল করে নির্মাণ করা হচ্ছে বহুতল ভবন, ঘরবাড়ী, দোকানপাট। নির্মাণ করে ,বাজার বসিয়ে চাঁদাবাজি চলছে ও পতি দোকান থেকে ৫০ টাকা থেকে ২০০ টাকা পযান্ত নিয়ে যায়
আইন অনুযায়ী কতৃপক্ষের পাশে ব্যক্তিগত মালিকানাধীন জমিতে কোন প্রকার স্থাপনা নির্মাণের পূর্বে কোন মালিকের থেকে অনুমতি ও জমির সীমানা নির্ধারণের নির্মাণ করে থাকেন ও তার কোনটি মানা হচ্ছে না। শুধু স্থানীয় লোকজন নয় প্রতিনিয়ম মিতো বিভিন্ন মিল কারখানা ও ঝুট গুদামের দখলে ও চলে যাচ্ছে বিপুল পরিমাণ খসের জমি।বিক্রি রাতের আধারে?
সব বাড়ী, মিল, কারখানার যাতায়াতের রাস্তা তৈরি করার অভিযোগ ও রয়েছে। এর মধ্যে মোঃ হেলালউদ্দি দেওয়া সাব পিতঃ মৃত বসিরউদ্দি দেওয়ানে কিছু জগা বেদখলে করে এবং কিছু সন্তাসীদের নিয়ে সাইনবোর্ড লাগানো হয়ে এবং তাকে মারার হুমকি দেয়ে এই মোন্তজ উদ্দিন মন্ডল হেলাল উদ্দিন কাশিমপুর থানায় একটি অভিযোগ করেন (১) ২নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর মোন্তজ উদ্দিন মন্ডল পিতাঃ হাজী সায়েদুর রহমান মন্ডল,(২)মাতা অজ্ঞাত, মোস্তফা খানঁ পিতঃ মৃত হাসেম খাঁন,( ৩) আঃ গনি পিতা,অজ্ঞাত (৪) মোঃ ইমন হোসেন পিতাঃঅজ্ঞাত
মাতাঃ অজ্ঞাত পেয়া ২৫ জনের মত।গোবন্দীবাড়ী মৌজা, ১৪১৯দাগে সি এসে খতিয়ান ৬৩৫ আর এস দাগে জমিনে পরিমাণ ২.৩৭ একর জমি এই বিষয়ে সঠিক তদন্ত করে জমি মালিকানারা তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে জানান।