ঢাকা ০৬:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
মোংলায় দারুল আমীন নূরানী মাদ্রাসার আয়োজনে ১ম বার্ষিক ক্রীড়া সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত ময়মনসিংহ ডিবি পুলিশের অভিযানে ২৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার-০১ ফুলপুরে ৮ বোতল বিদেশি মদ সহ এক মাদক কারবারী আটক নওগাঁর মহাদেবপুর এ ২০০ বছরের পুরাতন মসজিদের সন্ধান মিলেছে জামালপুরের রানীগঞ্জ বাজার ঐতিহ্য হারিয়ে ফেলেছে পানি নিস্কাশনের রাস্তা বন্ধ করে পুকুর নির্মানের কারনে প্রায় শত বিঘা ফসলী জমি পানির নীচে ইবি শিক্ষার্থীকে গলাটিপে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে তদন্ত কমিটি গঠন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় বেগম জাহানারা হান্নান উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩য় বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্টিত জামালপুরে ভেজাল কীটনাশকে বাজার সয়লাব, কৃষি শিল্প ধ্বংসের পাঁয়তারা মোংলায় সিবিএ নির্বাচন নিয়ে শ্রমিক-কর্মচারীদের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে

সুসজ্জিত ও আধুনিকায়নের পর রাসিকের মাননীয় মেয়র দপ্তরের উদ্বোধন

  • সময়ের কন্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : ০৩:৩৪:১০ অপরাহ্ণ, মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • ১৭০ ০.০০০ বার পাঠক

শেখ শিবলী রাজশাহী প্রতিনিধি।।

সংস্কার, আধুনিকায়ন ও সুসজ্জিতকরণের পর রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র দপ্তরের উদ্বোধন করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে নগর ভবনে মেয়র দপ্তর কক্ষের উদ্বোধন করেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। এ উপলক্ষে মতবিনিময়, দোয়া ও মোনাজাত করা হয়েছে। দোয়া ও মোনাজাতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্যবৃন্দ, জাতীয় চার নেতা সহ মহান মুক্তিযুদ্ধে সকল শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করা হয়। একইসঙ্গে দেশ ও জাতির কল্যান এবং রাজশাহীর উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি কামনা করা হয়।

মতবিনিময়কালে মেয়র মহোদয় বলেন, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতায় রাজশাহী মহানগরীর সুনাম সর্বত্র ছড়িয়ে পড়েছে। দেশের পরিচ্ছন্ন শহরের এক নম্বরে আছে রাজশাহী। আগামীতে নগরীকে আরো তকতকে ঝকঝকে নগরীতে হিসেবে গড়ে তোলা হবে। সিটি কর্পোরেশনের আর্থিক ভিত্তি শক্তিশালী করতে চাই। সকলের সহযোগিতায় নগরবাসীর সেবা নিশ্চিত করতে চাই।

মেয়র আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা মহামারি করোনার মধ্যেও দেশের সকল ক্ষেত্রে উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত রেখেছেন। রাজশাহীতেও উন্নয়ন কাজ এগিয়ে চলেছে। বর্তমান পরিষদের মেয়াদ প্রায় তিন বছর অতিবাহিত হয়েছে। সিটি কর্পোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডে অলি-গলির রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ কাজ চলমান আছে। খুব অল্প সময়ে ব্যাপক উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন করা হবে। চলমান প্রকল্প বাস্তবায়নের পাশাপাশি হযরত শাহ্ মখদুম রূপোশ (র) দরগাহ শরীফের উন্নয়ন, শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান এঁর সমাধিসৌধ নির্মাণ ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনার আধুনিকায়নের নতুন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, নগর ভবনের যে কক্ষগুলোর সংষ্কার ও আধুনিকায়ন প্রয়োজন পর্যায়ক্রমে সেগুলো করা হবে। ইতোমধ্যে কাউন্সিলরবৃন্দের কক্ষের সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে। আগামীতে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তর, প্রকৌশলীদের দপ্তরসহ অন্যান্য কর্মকর্তাদের কক্ষ সংস্কার ও আধুনিকায়ন করা হবে।

এ সময় বক্তব্য দেন রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন, রাজশাহী মহানগরীর সমন্বিত নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের ইঞ্জিনিয়ারিং এডভাইজার মোঃ আশরাফুল হক। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন সোনাদিঘী জামে মসজিদের পেশ ইমাম ক্বারী মোঃ মামুনুর রশীদ। উদ্বোধন শেষে রাসিক মেয়র মহোদয়কে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাবৃন্দ, কর্মচারী ইউনিয়ন। এ সময় রাসিকের কাউন্সিলরবৃন্দ, বিভাগীয় প্রধান ও কর্মকর্তাবৃন্দ এবং কর্মচারী ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে মাননীয় রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন আল-আকসা ডেভেলপার্স (প্রাঃ) লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিজানুর রহমান কাজী।

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

মোংলায় দারুল আমীন নূরানী মাদ্রাসার আয়োজনে ১ম বার্ষিক ক্রীড়া সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

সুসজ্জিত ও আধুনিকায়নের পর রাসিকের মাননীয় মেয়র দপ্তরের উদ্বোধন

আপডেট টাইম : ০৩:৩৪:১০ অপরাহ্ণ, মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

শেখ শিবলী রাজশাহী প্রতিনিধি।।

সংস্কার, আধুনিকায়ন ও সুসজ্জিতকরণের পর রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র দপ্তরের উদ্বোধন করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে নগর ভবনে মেয়র দপ্তর কক্ষের উদ্বোধন করেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। এ উপলক্ষে মতবিনিময়, দোয়া ও মোনাজাত করা হয়েছে। দোয়া ও মোনাজাতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্যবৃন্দ, জাতীয় চার নেতা সহ মহান মুক্তিযুদ্ধে সকল শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করা হয়। একইসঙ্গে দেশ ও জাতির কল্যান এবং রাজশাহীর উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি কামনা করা হয়।

মতবিনিময়কালে মেয়র মহোদয় বলেন, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতায় রাজশাহী মহানগরীর সুনাম সর্বত্র ছড়িয়ে পড়েছে। দেশের পরিচ্ছন্ন শহরের এক নম্বরে আছে রাজশাহী। আগামীতে নগরীকে আরো তকতকে ঝকঝকে নগরীতে হিসেবে গড়ে তোলা হবে। সিটি কর্পোরেশনের আর্থিক ভিত্তি শক্তিশালী করতে চাই। সকলের সহযোগিতায় নগরবাসীর সেবা নিশ্চিত করতে চাই।

মেয়র আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা মহামারি করোনার মধ্যেও দেশের সকল ক্ষেত্রে উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত রেখেছেন। রাজশাহীতেও উন্নয়ন কাজ এগিয়ে চলেছে। বর্তমান পরিষদের মেয়াদ প্রায় তিন বছর অতিবাহিত হয়েছে। সিটি কর্পোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডে অলি-গলির রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ কাজ চলমান আছে। খুব অল্প সময়ে ব্যাপক উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন করা হবে। চলমান প্রকল্প বাস্তবায়নের পাশাপাশি হযরত শাহ্ মখদুম রূপোশ (র) দরগাহ শরীফের উন্নয়ন, শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান এঁর সমাধিসৌধ নির্মাণ ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনার আধুনিকায়নের নতুন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, নগর ভবনের যে কক্ষগুলোর সংষ্কার ও আধুনিকায়ন প্রয়োজন পর্যায়ক্রমে সেগুলো করা হবে। ইতোমধ্যে কাউন্সিলরবৃন্দের কক্ষের সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে। আগামীতে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তর, প্রকৌশলীদের দপ্তরসহ অন্যান্য কর্মকর্তাদের কক্ষ সংস্কার ও আধুনিকায়ন করা হবে।

এ সময় বক্তব্য দেন রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন, রাজশাহী মহানগরীর সমন্বিত নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের ইঞ্জিনিয়ারিং এডভাইজার মোঃ আশরাফুল হক। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন সোনাদিঘী জামে মসজিদের পেশ ইমাম ক্বারী মোঃ মামুনুর রশীদ। উদ্বোধন শেষে রাসিক মেয়র মহোদয়কে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাবৃন্দ, কর্মচারী ইউনিয়ন। এ সময় রাসিকের কাউন্সিলরবৃন্দ, বিভাগীয় প্রধান ও কর্মকর্তাবৃন্দ এবং কর্মচারী ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে মাননীয় রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন আল-আকসা ডেভেলপার্স (প্রাঃ) লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিজানুর রহমান কাজী।