ঢাকা ০৬:৩৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::

মুম্বাই হামলার ‘মাস্টারমাইন্ড’ পাকিস্তানে গ্রেফতার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।

পাকিস্তানের গ্রেফতার হয়েছেন ২০০৮ সালের মুম্বাই হামলার হামলার অন্যতম মূলহোতা জাকিউর রহমান লাখবি । জঙ্গি কার্যকলাপে অর্থ জোগানোর অভিযোগে শনিবার তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে পাকিস্তান সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে। তবে কোন জায়গা থেকে লাখবিকে গ্রেফতার করা হয়েচে এ বিষয়ে পাকিস্তান কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে কিছু বলা হয়নি।

এ বিষয়ে কাউন্টার টেরোরিজম ডিপার্টমেন্ট অব পাকিস্তানের পক্ষ থেকে বলা হয়, জঙ্গি কার্যকলাপে অর্থ যোগান দিতে একাধিক কার্যকলাপ চালাচ্ছিল সে। সেই কারণেই শনিবার তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক জঙ্গি তালিকাভুক্ত লাখবি ২৬/১১ মুম্বই হামলার অন্যতম মূলহোতা ছিল। ২০০৮ সালে পাকিস্তানের ১০ জঙ্গি মুম্বাইয়ের একাধিক স্থানে হামলা চালিয়েছিল। ওই ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছিলেন ১৬৬ জন। আহত হন ৩০০ জন। সেই হামলাতে বড় ভূমিকা ছিল লাখভির।লস্কর-ই-তৈয়বার অপারেশন কমান্ডার লাখভিকে অনেকদিন ধরেই আটক করে রেখেছিল পাক প্রশাসন। মুম্বাই হামলার অভিযোগে আটক থাকার পর ২০১৫ সালের এপ্রিল মাসে জামিনে মুক্তি পায় সে।

আরো খবর.......

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

পাকুন্দিয়ায় পুলিশের অভিজানে চোরাই মোটরসাইকেল সহ ১ জন আটক

মুম্বাই হামলার ‘মাস্টারমাইন্ড’ পাকিস্তানে গ্রেফতার

আপডেট টাইম : ১২:০১:৪১ অপরাহ্ণ, শনিবার, ২ জানুয়ারি ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।

পাকিস্তানের গ্রেফতার হয়েছেন ২০০৮ সালের মুম্বাই হামলার হামলার অন্যতম মূলহোতা জাকিউর রহমান লাখবি । জঙ্গি কার্যকলাপে অর্থ জোগানোর অভিযোগে শনিবার তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে পাকিস্তান সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে। তবে কোন জায়গা থেকে লাখবিকে গ্রেফতার করা হয়েচে এ বিষয়ে পাকিস্তান কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে কিছু বলা হয়নি।

এ বিষয়ে কাউন্টার টেরোরিজম ডিপার্টমেন্ট অব পাকিস্তানের পক্ষ থেকে বলা হয়, জঙ্গি কার্যকলাপে অর্থ যোগান দিতে একাধিক কার্যকলাপ চালাচ্ছিল সে। সেই কারণেই শনিবার তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক জঙ্গি তালিকাভুক্ত লাখবি ২৬/১১ মুম্বই হামলার অন্যতম মূলহোতা ছিল। ২০০৮ সালে পাকিস্তানের ১০ জঙ্গি মুম্বাইয়ের একাধিক স্থানে হামলা চালিয়েছিল। ওই ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছিলেন ১৬৬ জন। আহত হন ৩০০ জন। সেই হামলাতে বড় ভূমিকা ছিল লাখভির।লস্কর-ই-তৈয়বার অপারেশন কমান্ডার লাখভিকে অনেকদিন ধরেই আটক করে রেখেছিল পাক প্রশাসন। মুম্বাই হামলার অভিযোগে আটক থাকার পর ২০১৫ সালের এপ্রিল মাসে জামিনে মুক্তি পায় সে।