ঢাকা ০৩:৪৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
ইংল্যান্ড বিএনপি’র সভাপতির সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন পিসা বিএনপি’র আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পারভেজ মোশারফ কোস্টগার্ড কর্তৃক বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান কিশোরগঞ্জে দৈনিক নাগরিক ভাবনার ৪র্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত যুব উন্নয়ন থেকে দর্জি বিজ্ঞান প্রশিক্ষণ নিয়ে জামালপুরের যুব মহিলারা আত্ম নির্ভরশীল এমপি হবার শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রতিপাদ্য নিয়ে ময়মনসিংহ রেলওয়ে ষ্টেশনে চাঞ্চল্যকর খুনের প্রধান আসামী মোহাম্মদ আলী গ্রেফতার ইপিজেড থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে(দুইশত চার) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার পাকুন্দিয়ায় ৬ষ্ট বার্ষিকী ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্টিত টঙ্গীতে কিশোর গ্যাং লিডার মাইদুল গ্রেফতার তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে অস্ট্রিয়াতে দুই বাংলাদেশী প্রবাসীর মধ্যে মারামারি গ্রেফতার এক

পাথরঘাটায় প্রবাসীর স্ত্রীকে প্রতারণা করে ধর্ষণের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

নুরুল আমিন মিল্টন বরগুনা জেলা প্রতিনিধি।।

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার কাকচিড়া ইউনিয়নের এক প্রবাসীর স্ত্রীকে প্রতারণাকরে একই ইউনিয়নের  ৭নং ওয়ার্ড শিংড়াবুনিয়া (বাইনচটকি) গ্রামের সাঈদুর রহমান এর ছেলে মঠবাড়িয়া টিয়ারখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক
মোঃ শাহিন (৩২) ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এঘটনায় ভুক্তভোগী ওই নারী ২৮,আগস্ট পাথরঘাটা প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে লিখিত সংবাদ সম্মেলন করেছেন।
লিখিত অভিযোগে তিনি বলেন উল্লেখিত শাহিন এবং আমি কাকচিড়া বাজারের ছালেক ও চান্দু মিয়ার পাকা বাড়ির একই ফ্লাটে বসবাস করার সুবাদে এবং আমার স্বামী প্রবাসে থাকায় শিক্ষক শাহিন প্রায় এক বছর পূর্ব থেকে আমাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এদিকে আমার স্বামী প্রবাসে (সৌদি আরব) গিয়ে আমি ও আমার একমাত্র সাড়ে চার বছরের শিশু সন্তানের খোঁজ খবর না নেওয়ায় আমি তার প্রস্তাবে রাজি হই। পরে শাহিন বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে
অামার কা্ছ থেকে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেওয়াসহ প্রায় এক বছর পর্যন্ত আমাকে ধর্ষণকরে।
এক পর্যায়ে শাহিন আমার স্বামীকে ডিভোর্স দিতে বল্লে আমি তার কথায় সরল বিশ্বাসে রাজি হইয়া গত ২ জুন ২০২১ আমার স্বামীকে ডিভোর্স প্রদানকরি।
পরে আমি তার কাছে স্ত্রীর স্বীকৃতি চাইলে তিনি আমায় বিয়ে করবেন বলে সময় ক্ষেপনকরে এক পর্যায়ে আমাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায়।
পরে আমি বাধ্য হয়ে গত ২২ আগস্ট সকালে শাহিনের বাড়িতে গিয়ে বিয়ের দাবিতে অনশন করলে তাদের লোকজন আমি ও আমার মামি এবং আমার খালাতো বোনকে বেধম ভাবে পিটিয়ে গুরতর  আত্মহত্যা  করে।
বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার শালিশ মিমাংসা হলেও শাহিন আমাকে বিয়ে করতে রাজি না হয়ে আমাকে দুই লক্ষ টাকার বিনিময়ে সবকিছু ধামাচাপা দেওয়ার প্রস্তাব দেয়।
ভুক্তভোগী বলেন, আমি সরল বিশ্বাসে শিক্ষক শাহিনের কথায় আমার স্বামীকে ডিভোর্স দিয়েছি । শাহিন এথন আমাকে বিয়ে না করলে অামার অাত্মহত্যা ছাড়া আমার কোন বিকল্প পথে নেই।
এ ব্যাপারে শাহিনের মোবাইল বন্ধ থাকায় এবং তিনি আত্মগোপনে থাকায় তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

ইংল্যান্ড বিএনপি’র সভাপতির সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন পিসা বিএনপি’র আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পারভেজ মোশারফ

পাথরঘাটায় প্রবাসীর স্ত্রীকে প্রতারণা করে ধর্ষণের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

আপডেট টাইম : ০৮:০৯:৩৩ পূর্বাহ্ণ, শনিবার, ২৮ আগস্ট ২০২১

নুরুল আমিন মিল্টন বরগুনা জেলা প্রতিনিধি।।

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার কাকচিড়া ইউনিয়নের এক প্রবাসীর স্ত্রীকে প্রতারণাকরে একই ইউনিয়নের  ৭নং ওয়ার্ড শিংড়াবুনিয়া (বাইনচটকি) গ্রামের সাঈদুর রহমান এর ছেলে মঠবাড়িয়া টিয়ারখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক
মোঃ শাহিন (৩২) ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এঘটনায় ভুক্তভোগী ওই নারী ২৮,আগস্ট পাথরঘাটা প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে লিখিত সংবাদ সম্মেলন করেছেন।
লিখিত অভিযোগে তিনি বলেন উল্লেখিত শাহিন এবং আমি কাকচিড়া বাজারের ছালেক ও চান্দু মিয়ার পাকা বাড়ির একই ফ্লাটে বসবাস করার সুবাদে এবং আমার স্বামী প্রবাসে থাকায় শিক্ষক শাহিন প্রায় এক বছর পূর্ব থেকে আমাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এদিকে আমার স্বামী প্রবাসে (সৌদি আরব) গিয়ে আমি ও আমার একমাত্র সাড়ে চার বছরের শিশু সন্তানের খোঁজ খবর না নেওয়ায় আমি তার প্রস্তাবে রাজি হই। পরে শাহিন বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে
অামার কা্ছ থেকে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেওয়াসহ প্রায় এক বছর পর্যন্ত আমাকে ধর্ষণকরে।
এক পর্যায়ে শাহিন আমার স্বামীকে ডিভোর্স দিতে বল্লে আমি তার কথায় সরল বিশ্বাসে রাজি হইয়া গত ২ জুন ২০২১ আমার স্বামীকে ডিভোর্স প্রদানকরি।
পরে আমি তার কাছে স্ত্রীর স্বীকৃতি চাইলে তিনি আমায় বিয়ে করবেন বলে সময় ক্ষেপনকরে এক পর্যায়ে আমাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায়।
পরে আমি বাধ্য হয়ে গত ২২ আগস্ট সকালে শাহিনের বাড়িতে গিয়ে বিয়ের দাবিতে অনশন করলে তাদের লোকজন আমি ও আমার মামি এবং আমার খালাতো বোনকে বেধম ভাবে পিটিয়ে গুরতর  আত্মহত্যা  করে।
বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার শালিশ মিমাংসা হলেও শাহিন আমাকে বিয়ে করতে রাজি না হয়ে আমাকে দুই লক্ষ টাকার বিনিময়ে সবকিছু ধামাচাপা দেওয়ার প্রস্তাব দেয়।
ভুক্তভোগী বলেন, আমি সরল বিশ্বাসে শিক্ষক শাহিনের কথায় আমার স্বামীকে ডিভোর্স দিয়েছি । শাহিন এথন আমাকে বিয়ে না করলে অামার অাত্মহত্যা ছাড়া আমার কোন বিকল্প পথে নেই।
এ ব্যাপারে শাহিনের মোবাইল বন্ধ থাকায় এবং তিনি আত্মগোপনে থাকায় তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।