ঢাকা ০৯:৫৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
ইপিজেড থানা পুলিশের অভিযানে (৫০)লিটার দেশীয় তৈরী চোলাই মদ সহ একজন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার আবারো বাংলাদেশি যুবক আশিকের বিশ্ব রেকর্ড বিমান বাহিনীর নতুন প্রধান হাসান মাহমুদ খাঁন আজ ঘূর্ণিঝড় রেমাল বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে ২৫ লাখ গ্রাহক মোংলায় ঘূর্ণিঝড় রিমেল মোকাবেলায় ব্যাপক কাজ করছে উপজেলা প্রশাসন রায়পুরে সেপটিক ট্যাংকে নেমে আবারও দুই যুবকে মৃত্যু জামালপুরে সবজি চাষে জৈব সার ব্যবহারের উদ্যোগ ঘূর্ণিঝড় রেমাল সতর্কতায় কোস্টগার্ডের মাইকিং টঙ্গীতে রাজনীতির ছত্রছায়ায় ফকির মার্কেটের সুলতানার মাদক ব্যবসা জমজমাট। সবকিছুই জানে, এখনো কেন গ্রেফতার হয়নি, প্রশ্ন আনারকন্যার

পি কে হালদারের বক্তব্য মিডিয়ায় প্রচারের ওপর নিষেধাজ্ঞা চাইল দুদক লিখিত আবেদন দিন, আদেশ দেওয়া হবে : হাইকোর্ট

  • সময়ের কন্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : ০৭:৩৭:৫৫ পূর্বাহ্ণ, বুধবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২০
  • ৩১৫ ০.০০০ বার পাঠক

সময়ের কন্ঠ রিপোর্টার।।
হাজার হাজার কোটি টাকা পাচারের সঙ্গে জড়িত প্রশান্ত কুমার হালদারের (পি কে) বক্তব্য সোমবার প্রচার করে বেসরকারি একাত্তর টেলিভিশন। দুর্নীতির মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত ঐ আসামির বক্তব্য মিডিয়ায় প্রচারের সুযোগ নেই মর্মে হাইকোর্টকে জানান দুদক কৌঁসুলি খুরশীদ আলম খান। একই সঙ্গে এ সংক্রান্ত নিউজের ভিডিও ক্লিপ সংগ্রহের জন্য আদালতের নির্দেশনা চান।তখন হাইকোর্ট বলেন, আপনি যদি সংক্ষুব্ধ হয়ে থাকেন তাহলে লিখিত আবেদন করুন। ঐ আবেদনের ওপর অ্যাটর্নি জেনারেল ও সিনিয়র আইনজীবীদের বক্তব্য শুনে প্রয়োজনীয় আদেশ দেওয়া হবে। বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ গতকাল মঙ্গলবার এই মন্তব্য করেন। থার্টি ফার্স্টে কয়েক এলাকায় চলাচলে নির্দেশনা
আদালত বলেন, গণমাধ্যমে পলাতক ব্যক্তির বক্তব্য প্রচারে কোনো নিষেধাজ্ঞা আছে কি না? জবাবে খুরশীদ আলম খান বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেছিলেন। পরে হাইকোর্ট তার বক্তব্য মিডিয়ায় প্রচারের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল। তারেক রহমান ঐ সময়ে ছিলেন একজন পরোয়ানাভুক্ত দণ্ডিত আসামি। এ ক্ষেত্রেও পি কে হালদারের বক্তব্য প্রচারের সুযোগ নেই। কারণ হাইকোর্টের এই বেঞ্চ থেকে পি কে হালদারকে দেশে ফেরানোর বিষয়ে দুদকের পদক্ষেপ কি সে বিষয়ে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে আদেশ দেওয়া হয়েছে। আমরা ইতিমধ্যে দুদকের পক্ষ থেকে অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিল করেছি। সেখানে পি কে হালদারের বিরুদ্ধে নিম্ন আদালতের জারিকৃত গ্রেফতারি পরোয়ানা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ইন্টারপোলে পাঠানো হয়েছে। এখন যদি একজন পি কে হালদারকে টিভি মিডিয়ার সামনে এনে তার বক্তব্য প্রচারের সুযোগ করে দেওয়া হয় নিশ্চয়ই তা আইনসংগত হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। ঐ বক্তব্য প্রচার করে তাকে ডিফেন্ড করার সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে।

আরো খবর.......

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ইপিজেড থানা পুলিশের অভিযানে (৫০)লিটার দেশীয় তৈরী চোলাই মদ সহ একজন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

পি কে হালদারের বক্তব্য মিডিয়ায় প্রচারের ওপর নিষেধাজ্ঞা চাইল দুদক লিখিত আবেদন দিন, আদেশ দেওয়া হবে : হাইকোর্ট

আপডেট টাইম : ০৭:৩৭:৫৫ পূর্বাহ্ণ, বুধবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২০

সময়ের কন্ঠ রিপোর্টার।।
হাজার হাজার কোটি টাকা পাচারের সঙ্গে জড়িত প্রশান্ত কুমার হালদারের (পি কে) বক্তব্য সোমবার প্রচার করে বেসরকারি একাত্তর টেলিভিশন। দুর্নীতির মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত ঐ আসামির বক্তব্য মিডিয়ায় প্রচারের সুযোগ নেই মর্মে হাইকোর্টকে জানান দুদক কৌঁসুলি খুরশীদ আলম খান। একই সঙ্গে এ সংক্রান্ত নিউজের ভিডিও ক্লিপ সংগ্রহের জন্য আদালতের নির্দেশনা চান।তখন হাইকোর্ট বলেন, আপনি যদি সংক্ষুব্ধ হয়ে থাকেন তাহলে লিখিত আবেদন করুন। ঐ আবেদনের ওপর অ্যাটর্নি জেনারেল ও সিনিয়র আইনজীবীদের বক্তব্য শুনে প্রয়োজনীয় আদেশ দেওয়া হবে। বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ গতকাল মঙ্গলবার এই মন্তব্য করেন। থার্টি ফার্স্টে কয়েক এলাকায় চলাচলে নির্দেশনা
আদালত বলেন, গণমাধ্যমে পলাতক ব্যক্তির বক্তব্য প্রচারে কোনো নিষেধাজ্ঞা আছে কি না? জবাবে খুরশীদ আলম খান বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেছিলেন। পরে হাইকোর্ট তার বক্তব্য মিডিয়ায় প্রচারের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল। তারেক রহমান ঐ সময়ে ছিলেন একজন পরোয়ানাভুক্ত দণ্ডিত আসামি। এ ক্ষেত্রেও পি কে হালদারের বক্তব্য প্রচারের সুযোগ নেই। কারণ হাইকোর্টের এই বেঞ্চ থেকে পি কে হালদারকে দেশে ফেরানোর বিষয়ে দুদকের পদক্ষেপ কি সে বিষয়ে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে আদেশ দেওয়া হয়েছে। আমরা ইতিমধ্যে দুদকের পক্ষ থেকে অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিল করেছি। সেখানে পি কে হালদারের বিরুদ্ধে নিম্ন আদালতের জারিকৃত গ্রেফতারি পরোয়ানা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ইন্টারপোলে পাঠানো হয়েছে। এখন যদি একজন পি কে হালদারকে টিভি মিডিয়ার সামনে এনে তার বক্তব্য প্রচারের সুযোগ করে দেওয়া হয় নিশ্চয়ই তা আইনসংগত হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। ঐ বক্তব্য প্রচার করে তাকে ডিফেন্ড করার সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে।