ঢাকা ০৬:০৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
মনোহরদীতে নানা আয়োজনে বর্ষবরণ উৎসব পালিত হয়েছে ঠাকুরগাঁও। রুহিয়া ঐতিহ্যবাহী বৈশাখী মেলা করোনাভাইরাস এর কারণে বন্ধ থাকায় আবারও পাঁচ বছর পর ১০ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলার আয়োজন করা হয়েছে রানীশংকৈলে নানা আয়োজনে বাংলা নববর্ষ উদযাপিত রায়পুরে পহেলা বৈশাখে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা নবাবগঞ্জে বাংলা নববর্ষ ১৪৩১ পালিত ঘাটাইলে ব্যবসায়ীর হাত-পায়ের রগ কেটে সর্বস্ব লুট টঙ্গীতে চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীর উপর হামলা: তদন্তে গিয়ে সিসিটিভি আবদার করলো পুলিশ! আনোয়ারা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে ঈদ পূর্ণমিলনী ও মত বিনিময় সভা মোংলায় নিরুদ্দেশ মোতালেব জমাদ্দারের নাতিদের আকিকা অনুষ্ঠানে হাজারও লোকের ভিড় বহিষ্কার মোঃ রবিউল ইসলাম রবি কে দৈনিক সময়ের কন্ঠ পত্রিকা ও অনলাইন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে

খুলনার হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে ১৩ জনের মৃত্যু

রিপোর্টার, খুলনা অফিস॥ খুলনা মহানগরীর সরকারী ও বেসরকারী চারটি হাসপাতালে করোনায় ও উপসর্গে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার সকাল ৮টা থেকে সোমবার (১৯ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এদের মধ্যে করোনায় মারা গেছেন ১২ জন এবং উপসর্গে মৃত্যু হয় এক জনের। করোনায় মুতদের সাতজন খুলনার।

খুলনা ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালের ফোকালপার্সন ডাঃ সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, হাসপাতালে গত ২৪ ঘন্টায় রেড জোনে ছয়জন ও ইয়োলো জোনে একজনের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় মৃতদেও দুইজন খুলনা মহানগরীর খালিশপুর ও খুলনা জেলার পাইকগছা উপজেলার এবং বাকি চার জনের একজন করে মাদরীপুরের শ্রীনদী, বাগেরহাটের ফকিরহাট, নড়াইলের কারিয়া ও যশোরের বাঘারপাড়া এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। বর্তমানে হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১৬৩ জন। এর মধ্যে রেড জোনে ৮৭ জন, ইয়ালো জোনে ৩৭ জন, আইসিইউতে ২০ জন ও এই্চডিইউতে ১৯ জন চিকিৎসাধীন আছেন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ২৩ জন ও ডিসচার্জ দেয়া হয়েছে ৩১ জনকে।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডাঃ কাজী আবু রাশেদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে একজন মারা গেছেন। মৃত ব্যক্তি খুলনা মহনগরীর লবনচরা থানা এলাকার বাসিন্দা। এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটের বেড সংখ্যা ৮০। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৬২ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১২ জন ও ডিসচার্জ দেয়া হয়েছে ১৫ জনকে।

শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডাঃ প্রকাশ দেবনাথ জানান, এ হাসপাতালের করোনর ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ইউনিটে দুই জন মারা গেছেন। মৃতদের একজন খুলনা মহানগরীর দোলখোলা এলাকা এবয় অপরজন নগরীর দৌলতপুরের পাবালা মধ্যপাড়া এলাকার। এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটের বেড সংখ্যা ৪৫। বর্তমানে ভর্তি রয়েছেন ৪৩ জন। এরমধ্যে আইসিইউতে আছেন ১০ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ভর্তি হয়েছেন চার জন ও ডিসচার্জ দেয়া হয় দুইজনকে।

বেসরকারী গাজী মেডিকেল হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডাঃ গাজী মিজানরি রহমান জানান, গত ২৪ ঘন্টায় এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুবরণকারীদের দুইজন খুলনা মহানগরীরর খালিশপুরের এবং একজন যশোর সদরের নীলগঞ্জ এলাকার অধিবাসী ছিলেন। হাসপাতালটির বেড সংখ্যা ১৫০। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৮৯জন। এর মধ্যে আইসিইউতে সাত জন এবং এইচডিইউতে আটজন রয়েছেন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১৫জন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৭ জন।

খুলনা সিভিল সার্জন দফতরের কর্মকর্তা ডাঃ সাদিয়া মনোয়ারা ঊষা জানান, গত ২৪ ঘন্টায় খুলনা জেলায় নমুনা পরীক্ষা করা হয় ৮৭৭টি। এর মধ্যে আক্রান্ত ২১৩ জন। আক্রান্তের হার ২৪ শতাংশ। তিনি জানান, নগরীর চার হাসপাতালে করোনয় মারা গেছেন ১২ জন। এদের মধ্যে খুলনার সাত জন।

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

মনোহরদীতে নানা আয়োজনে বর্ষবরণ উৎসব পালিত হয়েছে

খুলনার হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে ১৩ জনের মৃত্যু

আপডেট টাইম : ০৬:১৪:৫২ পূর্বাহ্ণ, সোমবার, ১৯ জুলাই ২০২১

রিপোর্টার, খুলনা অফিস॥ খুলনা মহানগরীর সরকারী ও বেসরকারী চারটি হাসপাতালে করোনায় ও উপসর্গে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার সকাল ৮টা থেকে সোমবার (১৯ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এদের মধ্যে করোনায় মারা গেছেন ১২ জন এবং উপসর্গে মৃত্যু হয় এক জনের। করোনায় মুতদের সাতজন খুলনার।

খুলনা ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালের ফোকালপার্সন ডাঃ সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, হাসপাতালে গত ২৪ ঘন্টায় রেড জোনে ছয়জন ও ইয়োলো জোনে একজনের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় মৃতদেও দুইজন খুলনা মহানগরীর খালিশপুর ও খুলনা জেলার পাইকগছা উপজেলার এবং বাকি চার জনের একজন করে মাদরীপুরের শ্রীনদী, বাগেরহাটের ফকিরহাট, নড়াইলের কারিয়া ও যশোরের বাঘারপাড়া এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। বর্তমানে হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১৬৩ জন। এর মধ্যে রেড জোনে ৮৭ জন, ইয়ালো জোনে ৩৭ জন, আইসিইউতে ২০ জন ও এই্চডিইউতে ১৯ জন চিকিৎসাধীন আছেন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ২৩ জন ও ডিসচার্জ দেয়া হয়েছে ৩১ জনকে।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডাঃ কাজী আবু রাশেদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে একজন মারা গেছেন। মৃত ব্যক্তি খুলনা মহনগরীর লবনচরা থানা এলাকার বাসিন্দা। এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটের বেড সংখ্যা ৮০। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৬২ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১২ জন ও ডিসচার্জ দেয়া হয়েছে ১৫ জনকে।

শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডাঃ প্রকাশ দেবনাথ জানান, এ হাসপাতালের করোনর ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ইউনিটে দুই জন মারা গেছেন। মৃতদের একজন খুলনা মহানগরীর দোলখোলা এলাকা এবয় অপরজন নগরীর দৌলতপুরের পাবালা মধ্যপাড়া এলাকার। এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটের বেড সংখ্যা ৪৫। বর্তমানে ভর্তি রয়েছেন ৪৩ জন। এরমধ্যে আইসিইউতে আছেন ১০ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ভর্তি হয়েছেন চার জন ও ডিসচার্জ দেয়া হয় দুইজনকে।

বেসরকারী গাজী মেডিকেল হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডাঃ গাজী মিজানরি রহমান জানান, গত ২৪ ঘন্টায় এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুবরণকারীদের দুইজন খুলনা মহানগরীরর খালিশপুরের এবং একজন যশোর সদরের নীলগঞ্জ এলাকার অধিবাসী ছিলেন। হাসপাতালটির বেড সংখ্যা ১৫০। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৮৯জন। এর মধ্যে আইসিইউতে সাত জন এবং এইচডিইউতে আটজন রয়েছেন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১৫জন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৭ জন।

খুলনা সিভিল সার্জন দফতরের কর্মকর্তা ডাঃ সাদিয়া মনোয়ারা ঊষা জানান, গত ২৪ ঘন্টায় খুলনা জেলায় নমুনা পরীক্ষা করা হয় ৮৭৭টি। এর মধ্যে আক্রান্ত ২১৩ জন। আক্রান্তের হার ২৪ শতাংশ। তিনি জানান, নগরীর চার হাসপাতালে করোনয় মারা গেছেন ১২ জন। এদের মধ্যে খুলনার সাত জন।