ঢাকা ০৪:৪৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
ডিএমপির ৬ কর্মকর্তার বদলি কালিয়াকৈরে পালিত হলো প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী-২০২৪ দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী মেলা অনুষ্ঠিত রায়পুরে আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত সেভ দ্য রোডের ১৫ দিনব্যাপী সচেতনতা ক্যাম্পেইন সমাপ্ত জামালপুরে কৃষককূল লাউ চাষে স্বাবম্বিতা অর্জন করেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অস্ত্রাগারের ভিডিও সম্প্রচার এক পুলিশ সুপারকে বাধ্যতামূলক অবসর মাদক কারবার-মানি লন্ডারিংয়ে বদির দুই ভাইয়ের সংশ্লিষ্টতা মিলেছে ঠাকুরগাঁওয়ে চেতনা নাশক স্প্রে ব্যবহার করে চুরি এলাকায় আতঙ্ক পরিবারের সংবাদ সম্মেলন মামলা সুষ্ঠু তদন্তের দাবি কলেজ ছাত্রকে মাদক মামলায় ফাঁসানোর দাবি

রাজশাহীর বাঘায় ইমু হ‍্যাকার চক্রের ৬সদস‍্য আটক

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি:।
রাজশাহীর বাঘায় দীর্ঘদিন ধরে একটি ইমু হ‍্যাকার চক্র মানুষের প্রতারণা করে আসছে।বিষয়টি মানুষে মুখে মুখে ভাসছে থাকে।বিষয়টি এক সময় পত্রিকায় প্রকাশ হলে প্রশাসন নড়ে চড়ে।তারপর শুরু হয় অভিযান।অভিযানে মাঝে মাঝ কিছু আটক হলেও হলো থেমে থাকেনি এই চক্রের কার্যকলাপ।মাঝখানে অনেক দিনই বাঘায় হ‍্যাকার আটক হয়নি।সর্বশেষ শনিবার (১০ জুলাই) সন্ধ্যায় র‌্যাব-৫, রাজশাহী এর সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্পের একটি অপারেশন দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বাঘার আলাইপুর ও চারঘাটের খেড়ুর মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে  ৬ সদস‍্যকে গ্রেফতার করেন।
জানা যায়, মোবাইল ফোন ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম “ইমো” হ্যাকিং করে বিকাশের মাধ্যমে প্রতারণাপূর্বক অর্থ হাতিয়ে নেওয়ায় অভিযোগে সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্প, র‌্যাব-৫, রাজশাহীর কোম্পানী কমান্ডার মেজর মো. সানরিয়া চৌধুরী এবং উপ-অধিনায়ক অতিঃ পুলিশ সুপার মো. ফরহাদ হোসেনের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে বাঘা উপজেলার নন্দি গ্রামের সামসুল সরকারের ছেলে সেলিম রেজা (২৪), তুলসিপুর গ্রামের আনিসুল মোল্লার ছেলে সাদিকুর ইসলাম (২৪), উত্তর মিলিক বাঘা গ্রামের ইতিম বিশ্বাসের ছেলে শান্ত বিশ্বাস (২১), আবুল হোসেনের ছেলে আবু জাফর (১৯), দক্ষিণ মিলিক বাঘা গ্রামের  কালাম হোসেনের ছেলে রবিন ইসলাম (২২), আলাইপুর গ্রামের মৃত তাজ মোহাম্মদের ছেলে ইসরাফিল হোসেনকে (৩০) গ্রেফতার করা হয়েছে।
এ সময় তাদের কাছে থেকে ১৩টি মোবাইল, ১৮টি সিম কার্ড-, ১টি মেমোরী কার্ড, ১টি মোটর সাইকেল, নগদ ৩০ হাজার ৭১৫ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।
এ বিষয়ে সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্প, র‌্যাব-৫, রাজশাহীর কোম্পানী কমান্ডার মেজর মো. সানরিয়া চৌধুরী এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, এই সংঘবদ্ধ গ্রুপটি দীর্ঘদিন এলাকায় থেকে প্রতারণা, অর্থ-আত্মসাৎ ও মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। তারা নিজ নিজ এলাকায় ইমো পার্টির সদস্য হিসেবে পরিচিত। এই চক্র সংঘবদ্ধভাবে প্রবাসীদের সঙ্গে প্রতারণা করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। প্রবাসী নামে বিভিন্ন ফেসবুক পেজ, গ্রæপ খুলে প্রবাসীদের অ্যাড করে। সেসব পেজ কিংবা গ্রুপের কিছু মেয়েকে লাইভে এ্যাড করে। পাশাপাশি চ্যাটিংয়ের মাধ্যমে যোগাযোগ করে ফোন নম্বর সংগ্রহ করে। তাদের প্রধান টার্গেট প্রবাসী বাংলাদেশি। ধারণা করা হচ্ছে এ ধরনের প্রতারণার সাথে অনেকেই জড়িত রয়েছে। র‌্যাব বাদি হয়ে তাদের বিরুদ্ধে চারঘাট থানায় মামলা দায়ের করেন। আসামীদের রোববার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে ওসি জানান।
আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

ডিএমপির ৬ কর্মকর্তার বদলি

রাজশাহীর বাঘায় ইমু হ‍্যাকার চক্রের ৬সদস‍্য আটক

আপডেট টাইম : ০১:৪৫:৩৮ অপরাহ্ণ, রবিবার, ১১ জুলাই ২০২১
বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি:।
রাজশাহীর বাঘায় দীর্ঘদিন ধরে একটি ইমু হ‍্যাকার চক্র মানুষের প্রতারণা করে আসছে।বিষয়টি মানুষে মুখে মুখে ভাসছে থাকে।বিষয়টি এক সময় পত্রিকায় প্রকাশ হলে প্রশাসন নড়ে চড়ে।তারপর শুরু হয় অভিযান।অভিযানে মাঝে মাঝ কিছু আটক হলেও হলো থেমে থাকেনি এই চক্রের কার্যকলাপ।মাঝখানে অনেক দিনই বাঘায় হ‍্যাকার আটক হয়নি।সর্বশেষ শনিবার (১০ জুলাই) সন্ধ্যায় র‌্যাব-৫, রাজশাহী এর সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্পের একটি অপারেশন দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বাঘার আলাইপুর ও চারঘাটের খেড়ুর মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে  ৬ সদস‍্যকে গ্রেফতার করেন।
জানা যায়, মোবাইল ফোন ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম “ইমো” হ্যাকিং করে বিকাশের মাধ্যমে প্রতারণাপূর্বক অর্থ হাতিয়ে নেওয়ায় অভিযোগে সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্প, র‌্যাব-৫, রাজশাহীর কোম্পানী কমান্ডার মেজর মো. সানরিয়া চৌধুরী এবং উপ-অধিনায়ক অতিঃ পুলিশ সুপার মো. ফরহাদ হোসেনের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে বাঘা উপজেলার নন্দি গ্রামের সামসুল সরকারের ছেলে সেলিম রেজা (২৪), তুলসিপুর গ্রামের আনিসুল মোল্লার ছেলে সাদিকুর ইসলাম (২৪), উত্তর মিলিক বাঘা গ্রামের ইতিম বিশ্বাসের ছেলে শান্ত বিশ্বাস (২১), আবুল হোসেনের ছেলে আবু জাফর (১৯), দক্ষিণ মিলিক বাঘা গ্রামের  কালাম হোসেনের ছেলে রবিন ইসলাম (২২), আলাইপুর গ্রামের মৃত তাজ মোহাম্মদের ছেলে ইসরাফিল হোসেনকে (৩০) গ্রেফতার করা হয়েছে।
এ সময় তাদের কাছে থেকে ১৩টি মোবাইল, ১৮টি সিম কার্ড-, ১টি মেমোরী কার্ড, ১টি মোটর সাইকেল, নগদ ৩০ হাজার ৭১৫ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।
এ বিষয়ে সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্প, র‌্যাব-৫, রাজশাহীর কোম্পানী কমান্ডার মেজর মো. সানরিয়া চৌধুরী এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, এই সংঘবদ্ধ গ্রুপটি দীর্ঘদিন এলাকায় থেকে প্রতারণা, অর্থ-আত্মসাৎ ও মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। তারা নিজ নিজ এলাকায় ইমো পার্টির সদস্য হিসেবে পরিচিত। এই চক্র সংঘবদ্ধভাবে প্রবাসীদের সঙ্গে প্রতারণা করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। প্রবাসী নামে বিভিন্ন ফেসবুক পেজ, গ্রæপ খুলে প্রবাসীদের অ্যাড করে। সেসব পেজ কিংবা গ্রুপের কিছু মেয়েকে লাইভে এ্যাড করে। পাশাপাশি চ্যাটিংয়ের মাধ্যমে যোগাযোগ করে ফোন নম্বর সংগ্রহ করে। তাদের প্রধান টার্গেট প্রবাসী বাংলাদেশি। ধারণা করা হচ্ছে এ ধরনের প্রতারণার সাথে অনেকেই জড়িত রয়েছে। র‌্যাব বাদি হয়ে তাদের বিরুদ্ধে চারঘাট থানায় মামলা দায়ের করেন। আসামীদের রোববার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে ওসি জানান।