ঢাকা ০৪:৪৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২
সংবাদ শিরোনাম ::
জমির লোভে বাবা ও পরিবারের উপর হামলা বিএনপি-জামাত জোট সরকারের শাসনামলে দেশব্যপী সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে কিশোরগঞ্জের ভৈরবে বিক্ষোভ সমাবেশ করা হয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর থেকে ১২৬ বোতল ফেন্সিডিল‘সহ ০১ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক জাতীয় শোক দিবসে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচি পালন আজ সরকারি দলীয় বিক্ষোভ সমাবেস আর একে কেন্দ্র করে চলছে বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের চাঁদাবাজির অভিযোগ যাত্রীদের ১৭ই আগাস্ট বিএনপি জামায়াতের বোমা হামলার প্রতিবাদে আ.লীগের বিক্ষোভ সমাবেশ কালিয়াকৈরে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেবার কারনে স্কুলে যেতে পারছেনা ৫ শিক্ষার্থী বাসন থানার অভিযান চালিয়ে  ০৫ জন ডাকাত ধারালো অস্ত্রসহ গ্রেফতার গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের বিশেষ অভিযানে অস্ত্রগুলি, মাদকসহ কুখ্যাত মাদক সম্রাজ্ঞী পারুলী বেগম গ্রেফতার সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে তেল চুরির সময় দৌলতখানে আটক ৫ জন

খুলনা বিভাগে করোনায় প্রাণ গেলো আরও ২৭ জনের

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা অফিস ॥ খুলনা বিভাগে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু কানেভাবেই থামছেনা। মৃত্যু পিছু ছাড়ছেনা। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শহর থেকে গ্রাম সবখানেই ছড়িয়ে পড়েছে। প্রতিদিন নতুন করে আক্রান্ত ও মৃত্যুর মিছিলে যোগ হচ্ছে মানুষ। গত ২৪ ঘণ্টায় খুলনা বিভাগে আরও ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে বিভাগের ১০ জেলায় করোনায় শনাক্ত হয়েছে ১হাজার ২০১ জন।

আজ শুক্রবার খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের দেয়া প্রতিবেদনে থেকে জানা যায়, গত ২৪ ঘন্টায় বিভাগের ১০ জেলায় করোনায় অক্রান্ত হয়ে ২৭ জন মারা গেছেন। কারোনাভাইরাসের সংক্রমণের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত খুলনা বিভাগে মোট ৫৮ হাজার ৭২১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১হাজার ১৩৬ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৩৯ হাজার ৩৫৪জন।

খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে খুলনা জেলায় ৯ জন, বাগেরহাটে ১ জন, যশোরে ২জন, নড়াইল জেলায় ১ জন, ঝিনাইদহে ৩জন, কুষ্টিয়ায় ৭ জন, চুয়াডাঙ্গায় ৩ জন এবং মেহেরপুরে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। বিভাগীয় স্বাস্থ্য দফতরের প্রতিবেদন অনুযায়ী এ সময়ে সাতক্ষীরা ও মাগুরা জেলায় কোন মৃত্যু নেই।

বিাভাগীয় স্বাস্থ্য দফতরের দেয়া তথ্যে গত ২৪ ঘন্টায় করোনভাইরাসে সংক্রমণ শাণাক্ত হয়েছে খুলনা জেলায় ২২৩জন, বাগেরহাটে ৯২জন, সাতক্ষীরায় ৪৯ জন, যশোরে ২৮০ জন, নড়াইল জেলায় ৭৫ জন, মাগুরায় ৪৬ জন, ঝিনাইদহে ১৩২ জন, কুষ্টিয়ায় ১৩৭জন, চুয়াডাঙ্গায় ৯৪ জন ও মেহেরপুর জেলায় ৭৩ জন।

উল্লেখ্য, এর আগে খুলনা বিভাগে ১ জুলাই এযাবতকালের রেকর্ড ৩৯ জনের মৃত্যু হয়। এ ছাড়া ৩০ জুন ২৭ জন, ২৯জুন ৩২ জন, ২৮ জুন ৩০ জন, ২৭ জুন ২৮ জন, ২৬ জুন ১৪ জন, ২৫ জুন ২৩ জন, ২৪ জুন ২০ জন, ২৩ জুন প্রথম রেকর্ড সংখ্যক ৩২ জনের মৃত্যু হয়। তার আগেরদিন ২২ জুন মারা যান ২৭ জন।

আরো খবর.......
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

জমির লোভে বাবা ও পরিবারের উপর হামলা

খুলনা বিভাগে করোনায় প্রাণ গেলো আরও ২৭ জনের

আপডেট টাইম : ০৯:১৭:৩১ পূর্বাহ্ণ, শুক্রবার, ২ জুলাই ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা অফিস ॥ খুলনা বিভাগে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু কানেভাবেই থামছেনা। মৃত্যু পিছু ছাড়ছেনা। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শহর থেকে গ্রাম সবখানেই ছড়িয়ে পড়েছে। প্রতিদিন নতুন করে আক্রান্ত ও মৃত্যুর মিছিলে যোগ হচ্ছে মানুষ। গত ২৪ ঘণ্টায় খুলনা বিভাগে আরও ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে বিভাগের ১০ জেলায় করোনায় শনাক্ত হয়েছে ১হাজার ২০১ জন।

আজ শুক্রবার খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের দেয়া প্রতিবেদনে থেকে জানা যায়, গত ২৪ ঘন্টায় বিভাগের ১০ জেলায় করোনায় অক্রান্ত হয়ে ২৭ জন মারা গেছেন। কারোনাভাইরাসের সংক্রমণের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত খুলনা বিভাগে মোট ৫৮ হাজার ৭২১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১হাজার ১৩৬ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৩৯ হাজার ৩৫৪জন।

খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে খুলনা জেলায় ৯ জন, বাগেরহাটে ১ জন, যশোরে ২জন, নড়াইল জেলায় ১ জন, ঝিনাইদহে ৩জন, কুষ্টিয়ায় ৭ জন, চুয়াডাঙ্গায় ৩ জন এবং মেহেরপুরে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। বিভাগীয় স্বাস্থ্য দফতরের প্রতিবেদন অনুযায়ী এ সময়ে সাতক্ষীরা ও মাগুরা জেলায় কোন মৃত্যু নেই।

বিাভাগীয় স্বাস্থ্য দফতরের দেয়া তথ্যে গত ২৪ ঘন্টায় করোনভাইরাসে সংক্রমণ শাণাক্ত হয়েছে খুলনা জেলায় ২২৩জন, বাগেরহাটে ৯২জন, সাতক্ষীরায় ৪৯ জন, যশোরে ২৮০ জন, নড়াইল জেলায় ৭৫ জন, মাগুরায় ৪৬ জন, ঝিনাইদহে ১৩২ জন, কুষ্টিয়ায় ১৩৭জন, চুয়াডাঙ্গায় ৯৪ জন ও মেহেরপুর জেলায় ৭৩ জন।

উল্লেখ্য, এর আগে খুলনা বিভাগে ১ জুলাই এযাবতকালের রেকর্ড ৩৯ জনের মৃত্যু হয়। এ ছাড়া ৩০ জুন ২৭ জন, ২৯জুন ৩২ জন, ২৮ জুন ৩০ জন, ২৭ জুন ২৮ জন, ২৬ জুন ১৪ জন, ২৫ জুন ২৩ জন, ২৪ জুন ২০ জন, ২৩ জুন প্রথম রেকর্ড সংখ্যক ৩২ জনের মৃত্যু হয়। তার আগেরদিন ২২ জুন মারা যান ২৭ জন।