ঢাকা ০৫:২৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
মনোহরদীতে নানা আয়োজনে বর্ষবরণ উৎসব পালিত হয়েছে ঠাকুরগাঁও। রুহিয়া ঐতিহ্যবাহী বৈশাখী মেলা করোনাভাইরাস এর কারণে বন্ধ থাকায় আবারও পাঁচ বছর পর ১০ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলার আয়োজন করা হয়েছে রানীশংকৈলে নানা আয়োজনে বাংলা নববর্ষ উদযাপিত রায়পুরে পহেলা বৈশাখে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা নবাবগঞ্জে বাংলা নববর্ষ ১৪৩১ পালিত ঘাটাইলে ব্যবসায়ীর হাত-পায়ের রগ কেটে সর্বস্ব লুট টঙ্গীতে চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীর উপর হামলা: তদন্তে গিয়ে সিসিটিভি আবদার করলো পুলিশ! আনোয়ারা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে ঈদ পূর্ণমিলনী ও মত বিনিময় সভা মোংলায় নিরুদ্দেশ মোতালেব জমাদ্দারের নাতিদের আকিকা অনুষ্ঠানে হাজারও লোকের ভিড় বহিষ্কার মোঃ রবিউল ইসলাম রবি কে দৈনিক সময়ের কন্ঠ পত্রিকা ও অনলাইন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে

বগুড়ায় ছেলের লাঠির আঘাতে মায়ের মাথা রক্তাক্ত

বগুড়ায় ছেলের লাঠির আঘাতে মায়ের মাথা রক্তাক্ত।

মাসুদ রানা সোহেল

ব্যুরো প্রধান

বগুড়া শেরপুর সীমাবাড়ী ইউনিয়ন নিশিন্দারা উওরপাড়া ছেলের লাঠির আঘাতে বৃদ্ধ মা মোছাঃ জমিরুন খাতুন(৭৫) মাথা রক্তাক্ত। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়- আঃ রশিদের বড় ছেলে মোঃ জামাল হোসেন তাঁর লাগানো পেঁপে চারা গাছ কে বা কাহারা ভেংঙ্গে চলে যায় কিন্তুু সন্দেহে জামালের ছোট ভাই হাফিজুরে ছেলেকে সন্দেহ করে এবং এই পেঁপে চারা কে কেন্দ্র করে জামাল ভাতিজা অন্তরকে বাড়ীতে এসে গলাচেঁপে ধরে এবং এলোপাতাড়ি মারধর করলে জামালের বৃদ্ধ মা জমিরুন বেগম মারপিট ঠেকাতে আসলে জামাল ও ছেলে নাছিম, বৃদ্ধ জমিরুন বেগমের মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করেন এবং ঘটনা স্হলে বৃদ্ধ মহিলার মাথা ফেঁটে রক্ত বাহির হয়। ঘটনা তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে অনুসন্ধানে জানা যায়, বৃদ্ধ মহিলা জমিরুনকে পূর্বেও তাঁর বড় ছেলের বউ ভাতের সাথে বিষ মিশায়ে খাওয়ানো চেষ্টা করেছিল। বৃদ্ধ মহিলা মোছাঃ জমিরুন খাতুন স্বামীঃ আঃ রশিদ দুইজনই সাংবাদিকদের প্রতিবেদনে বলেন আমার তিন ছেলে আমাদের দুই ছেলে ভাত কাপুড় কোন কিছুই দেয় না। আমরা দুই জন বৃদ্ধ বয়সে মেঝো ছেলে হাফিজুর আমাদের খাবার, বস্ত, চিকিৎসা দেন। আমার বড় ছেলে মোঃ জামাল হোসেনের বউ পূর্বেও আমার সহধর্মিণী মোছাঃ জমিরুন বেগমকে ভাতের সাথে বিষ মিশায়ে হত্যা করতে চেয়েছিল। আমি আমার কুলংঙ্গার ছেলেদের আইনেয় আওতায় এনে কঠোর শাস্তি দাবি করি। বগুরা শেরপুর সীমাবাড়ী ইউনিয়নে নিশিন্দারা গ্রামে ছেলের লাঠির আঘাতে বৃদ্ধ মায়ের মাথা রক্তাক্ত এই মারপিটে ঘটনায় এলাকায় এক আলোড়ন চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি হয়। এই বিষয়ে বগুড়া শেরপুর সীমাবাড়ী ইউনিয়ন মেম্বার শ্রী বাবুপাল মুঠোফোনে কথা হলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, ছেলের লাঠির আঘাতে বৃদ্ধ মহিলা মাথা রক্তাক্ত ঘটনা শুনে, আমি ঘটনা স্হলে গিয়ে বিষরটি জানতে পারি এবং নিশিন্দারা উওরপাড়া গ্রামে মাতাব্বর মোঃ ফরিদুল ইসলামকে বিষয়টি জানাই। এই মারাপিটে ঘটনা শেরপুর থানায় ৫ জনকে আসামী করে একটা অভিযোগ দায়ের করেছেন আঃ রশিদের মেঝো ছেলে মোঃ হাফিজুর ইসলাম। এই বিষয়ে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শহিদুল ইসলাম বলেন, মারপিটের বিষয় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি সুষ্ঠু তদন্ত করে আসামীদের আইনেয় আওতায় এনে কঠোর শাস্তি ব্যবস্হা করা হবে।

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

মনোহরদীতে নানা আয়োজনে বর্ষবরণ উৎসব পালিত হয়েছে

বগুড়ায় ছেলের লাঠির আঘাতে মায়ের মাথা রক্তাক্ত

আপডেট টাইম : ১০:২৮:৩৩ পূর্বাহ্ণ, বুধবার, ৩০ জুন ২০২১

বগুড়ায় ছেলের লাঠির আঘাতে মায়ের মাথা রক্তাক্ত।

মাসুদ রানা সোহেল

ব্যুরো প্রধান

বগুড়া শেরপুর সীমাবাড়ী ইউনিয়ন নিশিন্দারা উওরপাড়া ছেলের লাঠির আঘাতে বৃদ্ধ মা মোছাঃ জমিরুন খাতুন(৭৫) মাথা রক্তাক্ত। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়- আঃ রশিদের বড় ছেলে মোঃ জামাল হোসেন তাঁর লাগানো পেঁপে চারা গাছ কে বা কাহারা ভেংঙ্গে চলে যায় কিন্তুু সন্দেহে জামালের ছোট ভাই হাফিজুরে ছেলেকে সন্দেহ করে এবং এই পেঁপে চারা কে কেন্দ্র করে জামাল ভাতিজা অন্তরকে বাড়ীতে এসে গলাচেঁপে ধরে এবং এলোপাতাড়ি মারধর করলে জামালের বৃদ্ধ মা জমিরুন বেগম মারপিট ঠেকাতে আসলে জামাল ও ছেলে নাছিম, বৃদ্ধ জমিরুন বেগমের মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করেন এবং ঘটনা স্হলে বৃদ্ধ মহিলার মাথা ফেঁটে রক্ত বাহির হয়। ঘটনা তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে অনুসন্ধানে জানা যায়, বৃদ্ধ মহিলা জমিরুনকে পূর্বেও তাঁর বড় ছেলের বউ ভাতের সাথে বিষ মিশায়ে খাওয়ানো চেষ্টা করেছিল। বৃদ্ধ মহিলা মোছাঃ জমিরুন খাতুন স্বামীঃ আঃ রশিদ দুইজনই সাংবাদিকদের প্রতিবেদনে বলেন আমার তিন ছেলে আমাদের দুই ছেলে ভাত কাপুড় কোন কিছুই দেয় না। আমরা দুই জন বৃদ্ধ বয়সে মেঝো ছেলে হাফিজুর আমাদের খাবার, বস্ত, চিকিৎসা দেন। আমার বড় ছেলে মোঃ জামাল হোসেনের বউ পূর্বেও আমার সহধর্মিণী মোছাঃ জমিরুন বেগমকে ভাতের সাথে বিষ মিশায়ে হত্যা করতে চেয়েছিল। আমি আমার কুলংঙ্গার ছেলেদের আইনেয় আওতায় এনে কঠোর শাস্তি দাবি করি। বগুরা শেরপুর সীমাবাড়ী ইউনিয়নে নিশিন্দারা গ্রামে ছেলের লাঠির আঘাতে বৃদ্ধ মায়ের মাথা রক্তাক্ত এই মারপিটে ঘটনায় এলাকায় এক আলোড়ন চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি হয়। এই বিষয়ে বগুড়া শেরপুর সীমাবাড়ী ইউনিয়ন মেম্বার শ্রী বাবুপাল মুঠোফোনে কথা হলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, ছেলের লাঠির আঘাতে বৃদ্ধ মহিলা মাথা রক্তাক্ত ঘটনা শুনে, আমি ঘটনা স্হলে গিয়ে বিষরটি জানতে পারি এবং নিশিন্দারা উওরপাড়া গ্রামে মাতাব্বর মোঃ ফরিদুল ইসলামকে বিষয়টি জানাই। এই মারাপিটে ঘটনা শেরপুর থানায় ৫ জনকে আসামী করে একটা অভিযোগ দায়ের করেছেন আঃ রশিদের মেঝো ছেলে মোঃ হাফিজুর ইসলাম। এই বিষয়ে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শহিদুল ইসলাম বলেন, মারপিটের বিষয় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি সুষ্ঠু তদন্ত করে আসামীদের আইনেয় আওতায় এনে কঠোর শাস্তি ব্যবস্হা করা হবে।