ঢাকা ০৬:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
মনোহরদীতে নানা আয়োজনে বর্ষবরণ উৎসব পালিত হয়েছে ঠাকুরগাঁও। রুহিয়া ঐতিহ্যবাহী বৈশাখী মেলা করোনাভাইরাস এর কারণে বন্ধ থাকায় আবারও পাঁচ বছর পর ১০ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলার আয়োজন করা হয়েছে রানীশংকৈলে নানা আয়োজনে বাংলা নববর্ষ উদযাপিত রায়পুরে পহেলা বৈশাখে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা নবাবগঞ্জে বাংলা নববর্ষ ১৪৩১ পালিত ঘাটাইলে ব্যবসায়ীর হাত-পায়ের রগ কেটে সর্বস্ব লুট টঙ্গীতে চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীর উপর হামলা: তদন্তে গিয়ে সিসিটিভি আবদার করলো পুলিশ! আনোয়ারা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে ঈদ পূর্ণমিলনী ও মত বিনিময় সভা মোংলায় নিরুদ্দেশ মোতালেব জমাদ্দারের নাতিদের আকিকা অনুষ্ঠানে হাজারও লোকের ভিড় বহিষ্কার মোঃ রবিউল ইসলাম রবি কে দৈনিক সময়ের কন্ঠ পত্রিকা ও অনলাইন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে

২৭ বছর আগের হত্যা মামলা ॥ ১৮ আসামি আপিলে খালাস

সময়ের কন্ঠ রিপোর্টার।।

নওগাঁর বদলগাছিতে ২৭ বছর আগের টগর হত্যা মামলার চূড়ান্ত রায়ে যাবজ্জীবন সাজার ১৮ আসামিকে খালাস দিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত।

বিচার চলার মধ্যেই মূল আসামি চিকিৎসক নুরুল ইসলামের মৃত্যু হওয়ায় তার নামও বাদ দেওয়া হয়েছে মামলা থেকে।

হাইকোর্টের রায়ে যাবজ্জীবন দণ্ড পাওয়া আসামিদের আপিল শুনানি শেষে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন নেতৃত্বাধীন ভার্চুয়াল আপিল বেঞ্চ বুধবার এই রায় দেয়।

রাষ্ট্রপক্ষে আপিল বিভাগে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ। তবে আসামিদের কোন যুক্তিতে খালাস দেওয়া হয়েছে, সংক্ষিপ্ত রায়ে তা জানা যায়নি।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ১৯৯৪ সালের ৩ জুলাই নওগাঁর কেশাই গ্ৰামে পুকুরে মাছের পোনা ছাড়া নিয়ে ঝগড়ার জেরে চিকিৎসক নুরুল ইসলাম তার লাইসেন্স করা পিস্তল থেকে গুলি ছোড়েন। তাতে টগর নামে এক ব্যক্তি নিহত হন।

নওগাঁর জজ আদালত ২০০৫ সালের ১০ জুলাই এ মামলার রায়ে নুরুল ইসলামকে মৃত্যুদণ্ড এবং ১৮ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়।

পরে ডেথ রেফারেন্স ও আসামিদের আপিল শুনানি করে হাই কোর্ট ২০১১ সালের ২৮ নবেম্বর নুরুল ইসলামের সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়; বাকি ১৮ জনের যাবজ্জীবন সাজা বহাল থাকে।

ওই রায়ের বিরুদ্ধে আসামিদের আপিল শুনানি শেষে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ আসামিদের সবাইকে খালাস দিল।

আরো খবর.......

জনপ্রিয় সংবাদ

মনোহরদীতে নানা আয়োজনে বর্ষবরণ উৎসব পালিত হয়েছে

২৭ বছর আগের হত্যা মামলা ॥ ১৮ আসামি আপিলে খালাস

আপডেট টাইম : ০৯:১৪:২৩ পূর্বাহ্ণ, বুধবার, ৯ জুন ২০২১

সময়ের কন্ঠ রিপোর্টার।।

নওগাঁর বদলগাছিতে ২৭ বছর আগের টগর হত্যা মামলার চূড়ান্ত রায়ে যাবজ্জীবন সাজার ১৮ আসামিকে খালাস দিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত।

বিচার চলার মধ্যেই মূল আসামি চিকিৎসক নুরুল ইসলামের মৃত্যু হওয়ায় তার নামও বাদ দেওয়া হয়েছে মামলা থেকে।

হাইকোর্টের রায়ে যাবজ্জীবন দণ্ড পাওয়া আসামিদের আপিল শুনানি শেষে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন নেতৃত্বাধীন ভার্চুয়াল আপিল বেঞ্চ বুধবার এই রায় দেয়।

রাষ্ট্রপক্ষে আপিল বিভাগে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ। তবে আসামিদের কোন যুক্তিতে খালাস দেওয়া হয়েছে, সংক্ষিপ্ত রায়ে তা জানা যায়নি।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ১৯৯৪ সালের ৩ জুলাই নওগাঁর কেশাই গ্ৰামে পুকুরে মাছের পোনা ছাড়া নিয়ে ঝগড়ার জেরে চিকিৎসক নুরুল ইসলাম তার লাইসেন্স করা পিস্তল থেকে গুলি ছোড়েন। তাতে টগর নামে এক ব্যক্তি নিহত হন।

নওগাঁর জজ আদালত ২০০৫ সালের ১০ জুলাই এ মামলার রায়ে নুরুল ইসলামকে মৃত্যুদণ্ড এবং ১৮ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়।

পরে ডেথ রেফারেন্স ও আসামিদের আপিল শুনানি করে হাই কোর্ট ২০১১ সালের ২৮ নবেম্বর নুরুল ইসলামের সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়; বাকি ১৮ জনের যাবজ্জীবন সাজা বহাল থাকে।

ওই রায়ের বিরুদ্ধে আসামিদের আপিল শুনানি শেষে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ আসামিদের সবাইকে খালাস দিল।